kalerkantho

বুধবার । ২০ নভেম্বর ২০১৯। ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২২ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

বউ ভাগিয়ে নেওয়ায় ইকার্দিকে সতীর্থের ধন্যবাদ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৯ অক্টোবর, ২০১৯ ১৫:৪০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বউ ভাগিয়ে নেওয়ায় ইকার্দিকে সতীর্থের ধন্যবাদ

ক্রীড়াঙ্গনে সতীর্থের বউ ভাগিয়ে নেওয়া বিরল কোনো ঘটনা নয়। যেমন ভারতীয় ক্রিকেটার দীনেশ কার্তিকের স্ত্রীকে ভাগিয়ে বিয়ে করেছেন মুরালি বিজয়। আর্জেন্টিনার ফুটবলেও এমন ঘটনা আছে। যেমন ম্যাক্সি লোপেজের স্ত্রী মডেল ওয়ান্ডা নারাকে ভাগিয়ে বিয়ে করেন তারই দেশের সতীর্থ মাউরো ইকার্দি। এই বিয়ের জন্য তার ক্যারিয়ারটাই প্রায় শেষ হয়ে গেছে। ইকার্দির কাটা ঘায়ে নূনের ছিঁটা দিতে এবার সোশ্যাল সাইটে বউ ভাগানোর জন্য তাকে ধন্যবাদ দিলেন লোপেজ!

২০০৮ সালে লোপেজ-নারার বিয়ে হয়েছিল। এরপর তিন সন্তান আসে তাদের ঘরে। এরপরেই শুরু হয় ভাঙনের। ২০১২-১৩ মৌসুমে সাম্পদোরিয়াতে যোগ দেন ইকার্দি। দুজনেই আর্জেন্টাইন হওয়ায় ইকার্দি ও লোপেজের মধ্যে বেশ বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক গড়ে ওঠে। সেইসঙ্গে ওয়ান্ডা নারার সঙ্গেও জমে উঠে তুমুল প্রেম। ফলাফল- বছরখানেকের মধ্যে বন্ধুর সঙ্গে সম্পর্ক শেষ হয়ে যায়। এরপর লোপেজের সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদ করার কিছুদিনের মধ্যেই ইকার্দিকে বিয়ে করেছেন ওয়ান্ডা। 

এই ঘটনার পর ম্যারাডোনা রেগেমেগে ইকার্দিকে নিষিদ্ধের দাবি তুলেছিলেন। নিষিদ্ধ করা না হলেও আর্জেন্টিনা দলে ব্র্যাত্য ছিলেন ইকার্দি। ক্লাব ফুটবলে ইন্টার মিলন তাকে গত মৌসুমের শেষভাগ পুরোটাই বসিয়ে রেখেছিল। কিন্তু এরপরেও ওয়ান্ডাকে ছাড়েননি ইকার্দি। এবার এক সাক্ষাতকারে লোপেজ বলেন, 'আমি ইকার্দিকে ক্ষমা করে দিয়েছি এবং ওর সঙ্গে আমার আর কোনো সমস্যা নেই। আমি শুধু মাউরোকে ক্ষমাই করিনি, ওয়ান্ডাকে আমার ঘাড় থেকে নামানোর জন্য তাকে ধন্যবাদও দিতে চাই। আমার জীবনের লক্ষ্য এখন ফুটবল আর বাচ্চাদের খুশি রাখা।'

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা