kalerkantho

শুক্রবার । ২ আশ্বিন ১৪২৮। ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১। ৯ সফর ১৪৪৩

সরিয়ে নেওয়া হলো নিশো-মেহজাবিনের নাটক ‘ঘটনা সত্য’

অনলাইন ডেস্ক   

২৬ জুলাই, ২০২১ ১৪:১৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সরিয়ে নেওয়া হলো নিশো-মেহজাবিনের নাটক ‘ঘটনা সত্য’

ঈদের বিশেষ নাটক 'ঘটনা সত্য'-তে বিশেষ শিশুদের বাবা-মায়ের 'পাপ কর্মের ফল' বলে ভুল বার্তা দেওয়ার অভিযোগে নাটকটি ইউটিউব থেকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। সেই সঙ্গে ভুল বার্তা নাটক প্রচারের জন্য দুঃখ প্রকাশ করেছে 'ঘটনা সত্য'র প্রযোজনাপ্রতিষ্ঠান সিএমভি ও এর পুরো টিম।

ঈদের এই নাটকটি প্রকাশের পরেই শুরু হয়েছে সমালোচনা।  রুবেল হাসান নির্মিত এ নাটকে অভিনয় করেছেন মেহজাবীন চৌধুরী ও আফরান নিশো। শাহাদাত হোসেন নামের একজন লিখেছেন, স্পেশাল চাইল্ড আমাদের কোনো বোঝা নয়, তারা আমাদের অন্য সবার সন্তানদের মতোই সাধারণ সন্তান। সৃষ্টিকর্তা নিজেও স্পেশাল চাইল্ডদের নিজের হাতে সৃষ্টি করেছেন। 

সব সমালোচনার মুখে ২৫ জুলাই এক ই-মেইল বার্তায় সিএমভির কর্ণধার এসকে শাহেদ আলী পাপ্পুর পক্ষে এই দুঃখ প্রকাশের বিজ্ঞপ্তি আসে। সেখানে পাপ্পু বলেন, 'বরাবরই আমরা আপনাদের সহযোগিতা ও ভালোবাসা পেয়েছি। এর জন্য আজীবন কৃতজ্ঞ আমরা। ২৪ জুলাই ‘ঘটনা সত্য’ নামের একটি ঈদের নাটক প্রকাশ করেছি আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে। সেটি নিয়ে কিছু আলোচনা লক্ষ্য করেছি। অভিযোগও করেছেন অনেক দর্শক। নাটকটি প্রকাশের পর অনেকেই জানিয়েছেন, এ নাটকের মাধ্যমে ভুল বার্তা দেওয়া হয়েছে। অভিযোগটির সঙ্গে আমরা সহমত পোষণ করছি। তাই ‘ঘটনা সত্য’ নাটকের নাট্যকার, পরিচালক, প্রযোজক, শিল্পী এবং কলাকুশলীদের পক্ষ থেকে আমরা গভীরভাবে দুঃখ প্রকাশ করছি। একইভাবে দুঃখ প্রকাশ করেছেন নির্মাতা রুবেল হাসান ও অভিনয়শিল্পী আফরান নিশো ও মেহজাবীন চৌধুরীও।

শাহেদ আলী পাপ্পু আরো বলেন, বিষয়টি একেবারেই অনাকাঙ্ক্ষিত। যারা আমাদের নাটক ‘ঘটনা সত্য’র এ বিষয়টি সম্পর্কে অবহিত করেছেন, সবাইকে ধন্যবাদ জানাই। সেই সঙ্গে জানাই, প্রথম বার্তা পাওয়ার পরপরই আমরা উপলব্ধি করি, অসাবধানতাবশত নাটকে আমরা ভুল একটি বার্তা পৌঁছে দিয়েছিলাম। এরপর আমরা সঙ্গে সঙ্গেই নাটকটি ইউটিউব থেকে সরিয়ে ফেলার সিদ্ধান্ত নিই। প্রয়োজনীয় সংশোধনের পর নাটকটি পুনরায় পরবর্তী সময়ে আবারও প্রকাশ করা হবে।

সব শেষে প্রত্যেক বাবা-মা ও সন্তানের প্রতি আমাদের ভালোবাসা জানিয়েছেন শাহেদ আলী পাপ্পু। সেই সঙ্গে ভবিষ্যতে এমন প্রযোজনা তৈরি করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন, যা দর্শকদের সঠিক পথে পরিচালিত করে।



সাতদিনের সেরা