kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৫ অক্টোবর ২০১৯। ৩০ আশ্বিন ১৪২৬। ১৫ সফর ১৪৪১       

প্যান্ট সেলাইয়ের কথা বলে দর্জির মেয়েকে ধর্ষণ!

বরগুনা প্রতিনিধি    

২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১৫:৩৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



প্যান্ট সেলাইয়ের কথা বলে দর্জির মেয়েকে ধর্ষণ!

বরগুনা সদর উপজেলার ১০নং নলটোনা ইউনিয়নের আজগর কাঠি গ্রামে ষষ্ঠ শ্রেণির এক শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। অভিযুক্ত ধর্ষক নলটোনা ইউনিয়নের ইউপি চেয়ারম্যান মো. হুমায়ুন কবীরের ভাগনে বলে জানা গেছে। তার নাম আল আমিন (২১)।

আজগরকাঠি গ্রামের ওয়ারেচ হাওলাদারের ছেলে তিনি। নির্যাতনের শিকার ওই শিক্ষার্থী স্থানীয় একটি মাদরাসার ষষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থী। বর্তমানে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে মেয়েটি।

নির্যাতনের শিকার ওই শিক্ষার্থী জানায়, তার মায়ের একটি কাপড় সেলাইয়ের দোকান রয়েছে। শুক্রবার বেলা ২টার দিকে তার মা দোকানে ছিল না। এ সময় আল আমিন একটি প্যান্ট সেলাইয়ের কথা বলে তাদের ঘরে ঢুকে তাকে ধর্ষণ করে। এ সময় ভুক্তভোগী ওই শিক্ষার্থী ডাক চিৎকার করলে ঘটনাস্থলে তার মা ছুটে এলে তাকে ধাক্কা দিয়ে বেরিয়ে যায় আল আমিন।

এ বিষয়ে ১০ নং নলটোনা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. হুমায়ুন কবীর বলেন, ঘটনাটি তিনি শুনেছেন। তিনি বলেন, আল আমিন তার আপন ভাগনে নয়। ঘটনা শোনার সাথে সাথে তিনি ঘটনাস্থলে গিয়েছেন। নির্যাতনের শিকার শিক্ষার্থীকে হাসপাতালে ভর্তি করার ব্যবস্থা করেছেন। ধর্ষক আল আমিনকে আটক করে থানায় হস্তান্তরের জন্য তার সকল গ্রাম পুলিশকে নির্দেশও দিয়েছেন।

এ বিষয়ে বরগুনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবীর মোহাম্মদ হোসেন বলেন, খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে মহিলা পুলিশ পাঠানো হয়েছে। ভুক্তভোগী পরিবারকে থানায় অভিযোগ দায়েরের জন্য বলা হয়েছে। 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা