kalerkantho

বুধবার । ৬ ফাল্গুন ১৪২৬ । ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০। ২৪ জমাদিউস সানি ১৪৪১

'পাম তেল' রাজনীতি : ভারতের কারণে বিপাকে মালয়েশিয়া?

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২২ জানুয়ারি, ২০২০ ১২:৪৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



'পাম তেল' রাজনীতি : ভারতের কারণে বিপাকে মালয়েশিয়া?

মাহাথির; নরেন্দ্র মোদি

গত কয়েক মাস ধরে মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ কট্টর ভারত-বিরোধী অবস্থান নিয়েছেন। কাশ্মীর-সহ নানা ইস্যুতে খোলাখুলিভাবে পাকিস্তানকে সমর্থন করছেন তিনি। তাই বদলা নিতে ভারত মালয়েশিয়া থেকে পাম তেল কেনা বন্ধ করে ইন্দোনেশিয়া থেকে পাম তেল আমদানি বাড়িয়ে দিয়েছে। গত বছর পর্যন্ত ভারত ইন্দোনেশিয়া থেকে তিন লক্ষ টন পাম তেল কিনেছে। এবার তা বাড়িয়ে হয়েছে ৬ লক্ষ টন। মালয়েশিয়া বিশ্বে যত লক্ষ টন পাম তেল বিক্রি করে তার এক- তৃতীয়াংশ ক্রয় করতো ভারত।

সম্প্রতি মালয়েশিয়া জানায়, ভারত পাম তেল রপ্তানি বন্ধ করে দিলে তার বদলা নিতে তারা পারবে না। কারণ, ভারতের বিরুদ্ধে পাল্টা ব‌্যবস্থা নিতে তারা অক্ষম। বাণিজ্যিক লড়াইয়ে মালয়েশিয়া ভারতের বিরুদ্ধে দাঁড়াতে পারবে না বলেই জানিয়েছিলেন সে দেশের প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ।  

ওই কথার সূত্র ধরেই আন্তর্জাতিক কৌশলগত বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, আর্থিক ও বাণিজ্যিক বাধ‌্যবাধকতা আছে বলেই মালয়েশিয়া ভারতের বিরুদ্ধে ব‌্যবস্থা নিতে পারবে না। মালয়েশিয়ার পাম তেল রপ্তানির হার কমছে। বেড়ে গিয়েছে পাম তেল পরিশোধন ও উৎপাদনের খরচ। বিশ্বের বৃহত্তম পাম তেল উৎপাদক দেশ হলো ইন্দোনেশিয়া। মালয়েশিয়ার এই প্রতিবেশী দেশটি উন্নততর প্রযুক্তি ব‌্যবহার করে মালয়েশিয়ার তুলনায় তিন গুণ পাম তেল উৎপাদন করে এবং রপ্তানিও করে। 

বিশ্বের বৃহত্তম মুসলিম দেশ হওয়া সত্ত্বেও ইন্দোনেশিয়ার মুসলিমদের বিশ্বজুড়ে সুখ‌্যাতি রয়েছে। তাঁরা অনেক সহিষ্ণু। ইন্দোনেশিয়ার সরকার ও মুসলিম নাগরিকরা সেখানকার হাজার বছরের ঐতিহ‌্য হিন্দু ও বৌদ্ধ সংস্কৃতিকে সযত্নে বাঁচিয়ে রেখেছেন। মালয়েশিয়ার কিন্তু সেই সুনাম ইদানীং নেই।

মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ মৌলবাদী মানসিকতার ও সংখ‌্যালঘুদের প্রতি অসহিষ্ণু বলে ভাবমূর্তি তৈরি হয়েছে। এর খারাপ প্রভাব পড়েছে বাণিজ্যে এবং আন্তর্জাতিক রাজনীতিতে। 

ফলে মালয়েশিয়ার সঙ্গে দূরত্ব বাড়িয়েছে ভারতসহ অনেক দেশ। ওই দেশগুলি ইন্দোনেশিয়ার সঙ্গে সখ‌্য বাড়িয়েছে। তার প্রমাণ 'পাম তেল' নিয়ে রাজনীতি।

সূত্র : সংবাদ প্রতিদিন 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা