kalerkantho

শনিবার । ২০ আষাঢ় ১৪২৭। ৪ জুলাই ২০২০। ১২ জিলকদ  ১৪৪১

হংকংয়ের বিশেষ সুবিধা বাতিল করলেন ট্রাম্প

চীনের ছাত্রদের ওপর নিষেধাজ্ঞা যুক্তরাষ্ট্রের

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৩১ মে, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



হংকংয়ের বিশেষ সুবিধা বাতিল করলেন ট্রাম্প

চীনের জারি করা নতুন জাতীয় নিরাপত্তা আইনের জের ধরে বিভিন্ন ক্ষেত্রে হংকংকে দেওয়া বিশেষ সুবিধা বন্ধের ঘোষণা দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। গত শুক্রবার হোয়াইট হাউসে এক সম্মেলনে তিনি এ ঘোষণা দেন। একই সঙ্গে চীনের স্নাতক পর্যায়ের বিশেষ কিছু শিক্ষার্থী ও গবেষকের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছেন তিনি। তাঁর দাবি, চীন এ শিক্ষার্থীদের মাধ্যমে অবৈধভাবে যুক্তরাষ্ট্রের বুদ্ধিবৃত্তিক সম্পদ চুরি করছে। 

হোয়াইট হাউসে সাংবাদিকদের উদ্দেশে ট্রাম্প বলেন, চীন হংকংয়ের স্বায়ত্তশাসনের ব্যাপারে দেওয়া অঙ্গীকার ভঙ্গ করেছে। হংকংয়ের বিরুদ্ধে যেসব পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে সেগুলো হংকংয়ের জনগণ, চীন ও সারা বিশ্বের জন্য দুঃখজনক ঘটনা। এসব প্রত্যাহারের জন্য যুক্তরাষ্ট্র ব্যবস্থা নেবে। শুধু তা-ই নয়, যারাই হংকংয়ের স্বায়ত্তশাসনের ক্ষেত্রে বাধা হয়ে দাঁড়াবে যুক্তরাষ্ট্র তাদের ওপরও নিষেধাজ্ঞা আরোপ করবে।

তিনি বলেন, ‘হংকংকে ভিন্নভাবে এবং বিশেষভাবে সুবিধা দেওয়ার যে নীতি রয়েছে, তা বাতিল করার কাজ শুরুর জন্য আমি আমার প্রশাসনকে নির্দেশ দিচ্ছি। অল্প কিছু ব্যতিক্রম ছাড়া বহিঃসমর্পণ থেকে শুরু করে রপ্তানি খাতে দ্বৈত প্রযুক্তির ব্যবহার—সব ধরনের চুক্তিকেই এটি প্রভাবিত করবে।’

ট্রাম্প এ সময় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডাব্লিউএইচও) সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের সম্পর্ক ছিন্ন করারও ঘোষণা দেন। যুক্তরাষ্ট্র অনেক দিন ধরেই করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে চীনের পক্ষ নেওয়ার অভিযোগ তুলে আসছিল ডাব্লিউএইচওর বিরুদ্ধে। তবে সম্মেলনে চীনের প্রেসিডেন্ট শি চিনপিংকে ব্যক্তিগত কোনো আক্রমণ করা থেকে বিরত থেকেছেন ট্রাম্প।

এদিকে চীনা সেনাবাহিনীর সঙ্গে সম্পর্ক থাকা চীনের স্নাতক পর্যায়ের কিছু শিক্ষার্থী ও গবেষকের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা আরোপের ঘোষণা দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। এসংক্রান্ত নির্বাহী আদেশে এরই মধ্যে স্বাক্ষরও করেছেন তিনি। যুক্তরাষ্ট্র মনে করছে, ওই শিক্ষার্থীরা তাদের নিরাপত্তার জন্য সম্ভাব্য হুমকি। তাদের ব্যবহার করে চীন যুক্তরাষ্ট্রের গোপনীয় তথ্য হাতিয়ে নেয়। তবে বিশ্লেষকরা মনে করছেন, এ সিদ্ধান্তে যুক্তরাষ্ট্র আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হবে। কারণ বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে অধ্যয়নরত বিদেশি শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে দেশটি প্রচুর অর্থ আয় করে। আর  গত কয়েক দশক ধরেই এ বিদেশি শিক্ষার্থীদের সবচেয়ে বড় অংশটি আসে চীন থেকে। বর্তমানে প্রায় তিন লাখ ৭০ হাজার চীনা শিক্ষার্থী যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ছে। তবে যারা আন্ডারগ্র্যাজুয়েট পর্যায়ের শিক্ষার্থী, তাদের ওপর ট্রাম্পের এ নিষেধাজ্ঞার ঘোষণা সরাসরি প্রভাব ফেলবে না। সূত্র : এএফপি, রয়টার্স।

মন্তব্য