kalerkantho

রবিবার । ১৫ ফাল্গুন ১৪২৭। ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১। ১৫ রজব ১৪৪২

এক সপ্তাহ পরেই বিদায় নেবে শীত

অনলাইন ডেস্ক   

১১ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০৯:২০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



এক সপ্তাহ পরেই বিদায় নেবে শীত

তাপমাত্রা বাড়তে শুরু করায় চলতি মাসের দ্বিতীয় শৈত্যপ্রবাহের ব্যাপ্তি অনেকটাই কমে এসেছে। বর্তমানে এটি শ্রীমঙ্গল, পঞ্চগড় ও কুড়িগ্রাম অঞ্চলের ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। বেশ কিছু অঞ্চলের তাপমাত্রা বাড়তির দিকে। দেশের অধিকাংশ অঞ্চলে শীতের আবহ আরো সাত দিন থাকতে পারে। তার পর থেকে ক্রমাগত তাপমাত্রা বাড়তে থাকবে এবং শীত বিদায় নেবে।

বুধবার (১০ ফেব্রুয়ারি) রাতে আবহাওয়াবিদ আরিফ হোসেন গণমাধ্যমকে বলেন, ‘এখন কয়েকটা দিন এ রকমই আবহাওয়া থাকবে। তাপমাত্রা একটু হয়তো বাড়বে। হয়তো দু-এক দিন তাপমাত্রা আপডাউন করতে পারে। ১৭ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত হয়তো দু-এক জায়গায় শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যেতে পারে। যেমন পঞ্চগড়। তারপর আর তাপমাত্রা কমবে না।

তিনি আরো বলেন, ‘এখনো দেখা যায়, ১০ ডিগ্রির আশপাশে তাপমাত্রা আছে কিছু জায়গায়। ওই সব এলাকায় শীত বিদায় নেয়নি। গ্রামের দিকে ১০ ডিগ্রির আশপাশের তাপমাত্রা মানে শীতই। যেহেতু সূর্যের আলো থাকে, সে কারণে শীতটা হয়তো সেভাবে অনুভূত হয় না। ১৬ ও ১৭ ফেব্রুয়ারির পর শীত আরো বিদায় নেবে। এখন যেমন আছে, ১৬ ও ১৭ পর্যন্ত তেমনই থাকবে, তারপর তাপমাত্রা বাড়তির দিকেই থাকবে।’

বুধবার সন্ধ্যায় আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, আগামী ২৪ ঘণ্টায় সারা দেশে রাত ও দিনের তাপমাত্রা সামান্য বাড়তে পারে। তার পরের দুই দিন আবহাওয়ার সামান্য পরিবর্তন হতে পারে। তার পরের পাঁচ দিনে তাপমাত্রা বাড়তে পারে।

আগামী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, শ্রীমঙ্গল, পঞ্চগড় ও কুড়িগ্রাম অঞ্চল সমূহের ওপর দিয়ে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা প্রশমিত হতে পারে।

অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। শেষ রাত থেকে সকাল পর্যন্ত সারা দেশে নদী অববাহিকার কোথাও কোথাও হালকা থেকে মাঝারি ধরনের কুয়াশা পড়তে পারে।

উপমহাদেশীয় উচ্চচাপ বলয়ের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা