kalerkantho

রবিবার । ১০ শ্রাবণ ১৪২৮। ২৫ জুলাই ২০২১। ১৪ জিলহজ ১৪৪২

আন্তর্জাতিক গ্রামীণ নারী দিবস উপলক্ষে সংবাদ সম্মেলন

নারীর প্রতি যেকোনো সংহিসতা দ্রুত বিচার আইনে নিষ্পত্তির দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৪ অক্টোবর, ২০২০ ১৮:২৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নারীর প্রতি যেকোনো সংহিসতা দ্রুত বিচার আইনে নিষ্পত্তির দাবি

নারীর প্রতি যেকোনো সংহিসতা দ্রুত বিচার আইনে নিষ্পত্তি করার দাবি জানিয়েছে আন্তর্জাতিক গ্রামীণ নারী দিবস উদ্যাপন জাতীয় কমিটি। আন্তর্জাতিক গ্রামীণ নারী দিবস উপলক্ষে আজ বুধবার এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলন এই দাবি জানানো হয়।

গ্রামীণ নারী দিবস উদ্যাপন জাতীয় কমিটির সমন্বয়কারী মোস্তফা কামাল আকন্দের সঞ্চালনায় সংবাদ সম্মেলনে মূলবক্তব্য উপস্থাপন করেন কোস্ট ট্রাস্টের সালমা সাবিহা। সংবাদ সম্মেলনে বক্তৃতা করেন জাতীয় কমিটি সদস্য ফেরদৌস আরা রুমি, কোস্ট ট্রাস্টের নির্বাহী পরিচালক রেজাউল করিম চৌধুরী, গ্রাম বিকাশ সহায়ক সংস্থার নির্বাহী পরিচালক মাসুদা ফারুক রত্না, রূপান্তরের নির্বাহী পরিচালক স্বপন গুহ, বীর মুক্তিযোদ্ধা আকবর হোসেন প্রমূখ।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, গ্রামীণ নারীরা অবহেলিত, তাদের অবদান স্বীকৃত নয়। তাই গ্রামীণ নারীরা বেশি বৈষম্য ও নির্যাতনের শিকার হয়। করোনাকালে নারীর প্রতি বিশেষ করে গ্রামীণ নারীদের প্রতি সকল প্রকার সহিংসতা বৃদ্ধি পেয়েছে। নারীর প্রতি বিশেষ করে গ্রামীণ নারীর প্রতি সহিংসতা সামাজিকভাবে প্রতিরোধ করা না গেলে সামনের দিনগুলো আরো অনিরাপদ হয়ে উঠবে। 

আরো জানানো হয়, বাংলাদেশে ২০০০ সাল থেকে বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী ও উন্নয়ন সংস্থা (এনজিও) সম্পূর্ণ নিজেদের অর্থায়নে গ্রামীণ নারী দিবস উদ্যাপন করে আসছে। এবারো দেশের ৫০টির বেশি জেলায় উদ্যাপন করা হচ্ছে আন্তর্জাতিক গ্রামীণ নারী দিবস। প্রতি বছরের মতো এবারও সারাদেশে বিভিন্ন আয়োজন এবং গ্রামীণ নারীদের বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদান রাখার জন্য সম্মাননা প্রদানসহ নানা কর্মসূচির মাধ্যমে দিবসটি উদ্যাপন করা হচ্ছে। 

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, সমাজে নারীদের অধঃস্তন অবস্থানের জন্য দায়ী পুরুষদের কর্তৃত্বপরায়নতা। নারী সহিংসতার মধ্যে সবচেয়ে ভয়াবহ ও জঘন্য সহিংসতা হলো ধর্ষণ। গড়ে প্রতি মাসে ধর্ষণের শিকর হন ১১১ জন নারী। যার বেশির ভাগই গ্রামীণ নারী ও শিশু। এই ধর্ষণ-নির্যাতন ও নারীদের প্রতি বৈষম্য দূর না করে নারীর সমতা আনয়ন সম্ভব নয়। এ জন্য জনপ্রতিনিধি, স্থানীয় সরকারসহ সকলকে একসাথে কাজ করতে হবে।



সাতদিনের সেরা