kalerkantho

শুক্রবার । ১২ আগস্ট ২০২২ । ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯ । ১৩ মহররম ১৪৪৪

ক্ষমতা, সম্মান ও পরাক্রম কেবল আল্লাহর জন্য

বিশ্বাসের মিনার

মুফতি আতাউর রহমান   

৪ জুলাই, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ক্ষমতা, সম্মান ও পরাক্রম কেবল আল্লাহর জন্য

মহান আল্লাহ যাবতীয় ক্ষমতা, সম্মান ও পরাক্রমের অধিকারী। পৃথিবীর কোনো কিছুই তাঁর ক্ষমতা ও শক্তির বাইরে নয়। পবিত্র কোরআনে ইরশাদ হয়েছে, ‘নিশ্চয়ই আপনি পরাক্রমশালী, প্রজ্ঞাময়। ’ (সুরা : বাকারা, আয়াত : ১২৯)

অন্য আয়াতে ইরশাদ হয়েছে, ‘নিশ্চয়ই যাবতীয় সম্মান আল্লাহর জন্য।

বিজ্ঞাপন

’ (সুরা : নিসা, আয়াত : ১৩৯)

যেহেতু যাবতীয় সম্মান, মর্যাদা ও ক্ষমতার অধিকারী মহান আল্লাহ, তাই অন্যকে সম্মানিত করা ও অপদস্থ করার অধিকারও কেবল তাঁর। ইরশাদ হয়েছে, ‘আপনি যাকে খুশি তাকে সম্মানিত করেন এবং যাকে খুশি তাকে অপদস্থ করেন। ’ (সুরা : আলে ইমরান, আয়াত : ২৬)

সম্মান ও মর্যাদার মালিক আল্লাহ। তবে আল্লাহর প্রতি বিশ্বাস স্থাপন ও তাঁর আনুগত্য করায় আল্লাহ কখনো কখনো তাঁর মুমিন বান্দাদের সম্মানিত করেন। ইরশাদ হয়েছে, ‘সম্মান তো আল্লাহ, তাঁর রাসুল ও মুমিনদের জন্য। ’ (সুরা : মুনাফিকুন, আয়াত : ৮)

রাসুলুল্লাহ (সা.) আল্লাহর মর্যাদা ও পরাক্রম সম্পর্কে বলেন, সম্মান-মর্যাদা আল্লাহর ভূষণ এবং গর্ব-অহংকার তাঁর চাদর। (আল্লাহ বলেন) যে লোক এ ক্ষেত্রে আমার সঙ্গে টানাহেঁচড়া করবে আমি তাকে অবশ্যই সাজা দেব। (সহিহ মুসলিম, হাদিস : ৬৫৭৪)

আল্লাহর পরাক্রম বোঝাতে কোরআনে ‘আজিজুন’ শব্দটি ব্যবহৃত হয়েছে। আরবি ভাষাবিদদের মতে, ‘আজিজুন’ শব্দের অর্থ চারটি। তা হলো—১. যিনি প্রবল ও কঠোর, ২. যিনি মহান, ৩. যিনি শক্তিশালী, ৪. যিনি অনন্য ও দৃষ্টান্তহীন। উল্লিখিত সবগুলো অর্থই আল্লাহর জন্য প্রযোজ্য।

আল-মাউসুয়াতুল আকাদিয়া



সাতদিনের সেরা