kalerkantho

রবিবার। ১৭ নভেম্বর ২০১৯। ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

ফের ফুটপাতে বাস, প্রাণ গেল কর্মজীবী নারীর

তুরাগে বাসচাপায় সংগীত পরিচালক পারভেজ রবের মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৫ মিনিটে



ফের ফুটপাতে বাস, প্রাণ গেল কর্মজীবী নারীর

স্বামী-সন্তান নিয়ে সুখের সংসার ছিল ফারহা নাজ। এই ছবি এখন শুধুই স্মৃতি। ছবি : সংগৃহীত

রাজধানীর বাংলামোটরে ফুটপাতে বেপরোয়া বাসের চাপায় বিআইডাব্লিউটিসি কর্মকর্তা কৃষ্ণা রায় চৌধুরীর পা হারানোর ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতেই এবার মহাখালীতে বাসের ধাক্কায় প্রাণ হারালেন ফারহা নাজ (২৮) নামের আরেক কর্মজীবী নারী।

এদিকে রাজধানীর তুরাগে গতকাল সকালে বাসচাপায় পারভেজ রব (৫৬) নামে এক সংগীত পরিচালক নিহত হয়েছেন। তিনি কণ্ঠশিল্পী আপেল মাহমুদের ছোট ভাই বলে জানা গেছে। এ ঘটনায় ভিক্টর ক্লাসিক পরিবহনের বাসটি জব্দ করা হলেও চালক পালিয়ে গেছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

মহাখালীর বিমানবন্দর সড়কে চেয়ারম্যানবাড়ী-আমতলী অংশে গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে রাস্তার পাশে ফুটপাতে দাঁড়িয়ে থাকা অবস্থায় ফারহা নাজকে ধাক্কা দেয় একটি বাস। এর কিছুক্ষণ আগেই ফারহার স্বামী তাঁকে প্রতিদিনের মতোই মিরপুরের বাসা থেকে মোটরসাইকেলে করে কর্মস্থলের কাছে নামিয়ে দিয়ে যান। কিন্তু ঘাতক যন্ত্রদানব তাঁকে আর কর্মস্থলে যেতে দেয়নি। পুলিশ বাসটি জব্দ করলেও এর চালক ও সহকারী পালিয়ে গেছে। বাসটির চালক শামীম মিয়াকে আসামি করে বনানী থানায় মামলা করেছেন নিহতের স্বামী নাজমুল হাসান।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ কর্মকর্তারা জানান, ক্যান্টনমেন্ট মিনিবাস সার্ভিসের বেপরোয়া গতির বাসটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে প্রথমে ফুটপাত লাগোয়া দুটি বৈদ্যুতিক খুঁটিতে ধাক্কা দেয়। এরপর ফুটপাত ঘেঁষে কিছুদূর চলে যাওয়ার সময় সেটি ফারহা নাজ ও কাউসার মোস্তফা (৩০) নামে আরেক পথচারীকে ধাক্কা দেয়। তাঁদের দ্রুত কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক ফারহাকে মৃত ঘোষণা করেন। কাউসার ওই হাসপাতালেই চিকিৎসাধীন। ফারহা বনানীতে ইউপিএল নামে একটি প্রতিষ্ঠানের হিসাবরক্ষক পদে কর্মরত ছিলেন।

এদিকে ঘাতক বাস প্রাণপ্রিয় মাকে যে চিরদিনের জন্য কেড়ে নিয়েছে তা জানে না তাহারিন হাসান ইশরা। এক বছর বয়সের শিশুটি মায়ের বুকে যেতে অনবরত কাঁদছে। স্বজনহারা পরিবারের মানুষগুলোর আহাজারির মাঝে শিশুটির এই কান্না ছুঁয়ে যাচ্ছে উপস্থিত সবাইকে।

ট্রাফিক পুলিশের মহাখালী জোনের সহকারী কমিশনার সুবির রঞ্জন দাশ জানান, গতকাল সকাল ৯টার দিকে মিরপুর-১৪ থেকে ক্যান্টনমেন্ট রুটে চলাচলকারী ক্যান্টনমেন্ট মিনি সার্ভিসের বাসটি (ঢাকা মেট্রো জ-১১-৩০০৩) আমতলী ক্রসিং দিয়ে ঘুরে কাকলির দিকে যাচ্ছিল। এ সময় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বাসটি নারীসহ দুজনকে ধাক্কা দেয়। পথচারীরা দৌড়ে আমতলী ট্রাফিক বক্সে খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। ততক্ষণে পালিয়ে যায় বাসটির চালক।

বনানী থানার এসআই আফজাল হোসেন জানান, চেয়ারম্যানবাড়ী ফুট ওভারব্রিজের কাছে বাসটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফুটপাত ঘেঁষে উঠে যায়। দ্রুতগতিতে ফুটপাতে ধাক্কা দেওয়ার সময় ফারহা নামে এক নারী ও কাউসার মোস্তফা নামে এক যুবক আহত হন। তাঁদের কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক ফারহাকে মৃত ঘোষণা করেন। ঘটনাস্থল থেকে বাসটি আটক করে বনানী পুলিশ ফাঁড়িতে রাখা হয়েছে। গাড়িটির চালক শামীম মিয়াকে শনাক্ত করা গেলেও গ্রেপ্তার করা যায়নি। তার বাড়ি শরীয়তপুরে।

ঘটনাস্থলের কাছে একটি শোরুমের নিরাপত্তা প্রহরী ফুল মাহমুদ বলেন, ‘বাসটি আমার সামনে দিয়ে দুইটা খাম্বায় ধাক্কা দিয়ে ব্যাক দেয়। খাম্বার পাশে রাস্তায় ছিলেন একজন নারী। বাসের ধাক্কায় পড়ে গিয়ে তিনি মাথায় আঘাত পান। তাঁর মাথা থেকে রক্ত ঝরছিল। আমরা দুজনকে ধরাধরি করে ফুটপাতে এনে পানি খাওয়াই। পরে তাঁদের হাসপাতালে পাঠানো হয়।’

ফারহার বড় বোন জিনাত নাজ ও তাঁর স্বামী সারফরাজ জানান, ফারহার বাবার নাম ইসরাঈল হোসেন। বাড়ি ঢাকার ডেমরা থানার কোনাপাড়ায়। ফারহা তাঁর স্বামী নাজমুল হাসানের সঙ্গে মিরপুরের মনিপুরে ৩৮৬ নম্বর বাসায় থাকতেন। তাঁর স্বামী পল্লী বিদ্যুৎ সমিতিতে চাকরি করেন। তাঁদের তাহারিন হাসান ইশরা (১৩ মাস) নামে একটি কন্যাসন্তান রয়েছে। নাজমুল হাসান গতকাল সকালে ফারহাকে মোটরসাইকেলে নিয়ে আমতলীতে তাঁর অফিসের বিপরীত পাশে ফুট ওভারব্রিজের কাছে নামিয়ে দেন। এরপর তিনি খিলক্ষেতে নিজ কর্মস্থলে চলে যান। ফারহা রাস্তা পার হয়ে অফিসে যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু রাস্তা পার হওয়ার আগেই দুর্ঘটনার শিকার হন।

সংগীত পরিচালকের মৃত্যু : তুরাগ থানার ওসি নুরুল মোত্তাকিম জানান, সংগীত পরিচালক পারভেজ রব উত্তরার তুরাগ থানা এলাকায় থাকতেন। গতকাল সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ইস্ট ওয়েস্ট হাসপাতালের সামনে থেকে বাসে ওঠার সময় ভিক্টর ক্লাসিক পরিবহনের একটি বাস (ঢাকা-মেট্রো ব-১২-০৯৬৩) রবকে ধাক্কা দেয়। এতে তিনি মাথার ডানপাশে গুরুতর আঘাত পান। তাঁকে প্রথমে পঙ্গু হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখান থেকে শহীদ সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

ওসি আরো জানান, দুর্ঘটনার পর ঘাতক বাসটি জব্দ করা হলেও চালক ও সহকারী পালিয়ে গেছে। তাদের ধরতে অভিযান চলছে। পরিবার মামলা করবে বলে পুলিশকে জানিয়েছে। রব শিল্পী আপেল মাহমুদের ছোট ভাই।

বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক পরিষদের সদস্য আলী আশরাফ আকন্দ জানান, পারভেজ রবের লাশ হিমঘরে রাখা হয়েছে। তিনি দুই ছেলে ও এক মেয়ের জনক। এক ছেলে মালয়েশিয়ায় আছেন। ছেলে মালয়েশিয়া থেকে আসার পর আগামীকাল শনিবার তাঁকে স্বামীবাগ কবরস্থানে মায়ের কবরে দাফন করা হবে।

পারভেজের বাবা আব্দুর রব পূর্ব পাকিস্তানের এমএনএ ছিলেন। রব বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক পরিষদের প্রতিষ্ঠাতা সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন। দেশের অনেক সংগীত শিল্পীর প্রশিক্ষক এবং সংগীত পরিচালক রব ৭৫টি ছবির সংগীত পরিচালনা করেছেন।

 

 

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা