kalerkantho

বুধবার । ১৭ জুলাই ২০১৯। ২ শ্রাবণ ১৪২৬। ১৩ জিলকদ ১৪৪০

ভারতে ডাক্তাররা সারা দেশে ধর্মঘটের ডাক দিলেন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৫ জুন, ২০১৯ ০৯:৫৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ভারতে ডাক্তাররা সারা দেশে ধর্মঘটের ডাক দিলেন

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের রাজধানী কলকাতায় নীলরতন সরকার (এনআরএস) মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে গতকাল শুক্রবার জুনিয়র ডাক্তারদের ধর্মঘটে দেশটির প্রায় সব রাজ্যের ডাক্তাররা সমর্থন দিয়েছেন। কর্তব্যরত চিকিৎসকদের নিরাপত্তার দাবিতে তাঁরা আন্দোলন করছেন। এর মধ্যে আগামী সোমবার সারা দেশের হাসপাতালগুলোয় ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে ইন্ডিয়ান মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশন (আইএমএ)। জরুরি ও রুটিন সেবা ছাড়া অন্য সব সেবা সেদিন বন্ধ রাখার আহ্বান জানিয়েছে সংগঠনটি।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলো জানায়, গতকাল এনআরএসের ডাক্তারদের কর্মবিরতিতে কার্যত শামিল হয় গোটা ভারত। উত্তর প্রদেশ, অন্ধ্র প্রদেশ, তেলেঙ্গানা, মহারাষ্ট্র, কেরালা, পাঞ্জাব, বিহার, আসামসহ সব রাজ্যের মেডিক্যাল কলেজের চিকিৎসকরা নিরাপত্তার দাবিতে আন্দোলনে শামিল হন। কোথাও কাজ বন্ধ রেখে, কোথাও রাস্তায় নেমে প্রতিবাদ করেছেন চিকিৎসকরা। ফলে এসব হাসপাতালে আউটডোর এবং জরুরি সেবা কার্যত বন্ধ ছিল। সব মিলিয়ে এনআরএস আন্দোলনের ঢেউ ছড়িয়ে পড়েছে ভারতজুড়ে।

কালের কণ্ঠ’র কলকাতা প্রতিনিধি জানান, এনআরএসের ডাক্তারদের আন্দোলনে পাশে দাঁড়িয়েছে বুদ্ধিজীবী মহল। কর্মস্থলে চিকিৎসকদের নিরাপত্তার এ দাবিতে আরো ছিল আইনজীবী, সমাজকর্মী, কলেজপড়ুয়াসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার অসংখ্য সাধারণ মানুষ।

এদিন মিছিলে যোগ দেন চিকিৎসক তথা মানবাধিকারকর্মী বিনায়ক সেন। ‘ন্যায্য বিচার চাই’ প্ল্যাকার্ড হাতে মিছিলে দেখা মেলে অপর্ণা সেনের। এ ছাড়া মিছিলে পা মেলান জয়া মিত্র, সুজাত ভদ্র, কমলেশ্বর মুখোপাধ্যায়, বিভাস চক্রবর্তী, দেবজ্যোতি মিশ্র, সমীর আইচ, বিকাশ রঞ্জন ভট্টাচার্য, অনুপম রায় প্রমুখ।

এনআরএসে গত সোমবার চিকিৎসক নিগ্রহের ঘটনায় তিন দিন ধরে উত্তপ্ত পশ্চিমবঙ্গ। গতকাল পর্যন্ত রাজ্য প্রশাসন ও আন্দোলনকারীদের মধ্যে মীমাংসা হয়নি। বরং কাজে না ফিরলে কড়া পদক্ষেপ নেওয়ার যে হুমকি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দিয়েছিলেন, তাতে সংকট আরো বেড়েছে। মুখ্যমন্ত্রী ক্ষমা না চাওয়া পর্যন্ত এবং নিরাপত্তা নিশ্চিত না করা পর্যন্ত আন্দোলন চলবে বলে জানিয়ে দিয়েছেন চিকিৎসকরা। সেই দাবি নিয়েই গতকাল বিকেলে এনআরএস চত্বর থেকে চিত্তরঞ্জন ন্যাশনাল মেডিক্যাল কলেজ পর্যন্ত মিছিল বেরোয়।

সূত্র : আনন্দবাজার

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা