kalerkantho

শনিবার । ৮ কার্তিক ১৪২৭। ২৪ অক্টোবর ২০২০। ৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

'না, ডিন না, আমি বাকরুদ্ধ হয়ে গেছি!'

অনলাইন ডেস্ক   

২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ১৭:৩৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



'না, ডিন না, আমি বাকরুদ্ধ হয়ে গেছি!'

করোনাকালের ভয় দূরে ঠেলে মাঠে ফিরতে শুরু করেছে ক্রিকেট। সংযুক্ত আরব আমিরাতে শুরু হয়েছে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল)। এর মাঝেই ভয়ানক খবরটি এলো। অস্ট্রেলিয়ার সাবেক তারকা ক্রিকেটার তথা জনপ্রিয় ধারাভাষ্যকার ডিন জোন্স আর নেই! হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মুম্বাইয়ের এক সাত তারকা হোটেলে তার মৃত্যু হয়েছে। চলতি আইপিএলে তিনি স্টার স্পোর্টসের হয়ে ধারাভাষ্য দিচ্ছিলেন। এই আচমকা দুঃসংবাদে শোকাহত হয়ে পড়েছে বিশ্ব ক্রিকেটাঙ্গন।

ভারতের জনপ্রিয় ধারাভাষ্যকার আর্তনাদের স্বরে টুইট করেছেন, 'না, ডিন না! আমি বাকরুদ্ধ হয়ে পড়েছি! প্রচণ্ড ধাক্কা খেয়েছি! এটা মানতে পারছি না।'

ক্রিকেট কিংবদন্তি শচীন টেন্ডুলকার লিখেছেন, 'ডিন জোন্সের মৃত্যুসংবাদে অসম্ভব কষ্ট হচ্ছে। এমন চমৎকার একজন মানুষ অকালে চলে গেলেন! আমার প্রথম অস্ট্রেলিয়া সফরে তার বিপক্ষে খেলার সুযোগ পেয়েছিলাম। সে আমার প্রিয়দের একজন, তাঁর আত্মার শান্তি কামনা করছি।'

অস্ট্রেলিয়ার সাবেক অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথ লিখেছেন, 'এটা ভয়াবহ দুঃসংবাদ পেলাম। মুম্বাইয়ে ডিন জোন্স মারা গেছেন। তিনি অস্ট্রেলিয়ার অসাধারণ একজন ক্রিকেটার ছিলেন। অবশ্যই তাকে আমরা মিস করব। তাঁর পরিবারের জন্য আমার সমবেদনা। শান্তিতে ঘুমাও ডিনো।'

ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি লিখেছেন, 'ডিন জোন্সের এমন হৃদয়বিদারক মৃত্যুসংবাদ শুনে খুব শকড। তাঁর পরিবার এবং বন্ধুরা যাতে এই শোক কাটিয়ে উঠতে পারেন, তার জন্য প্রার্থনা।'

পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড শোক প্রকাশ করে লিখেছে, 'ডিন জোন্সের মৃত্যুসংবাদ শুনে পিসিবি এখন বিধ্বস্ত বোধ করছে। পাকিস্তান ক্রিকেটের পক্ষ থেকে পিসিবি তাঁর পরিবার এবং বন্ধুদের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করছে।'

ভিভিএস লক্ষণ লিখেছেন, 'ভয়ানক খবর! ডিন জোন্স আর নেই! তাঁর পরিবারের জন্য আমার সমবেদনা রইল।'

বীরেন্দ্র শেবাগ লিখেছেন, 'ডিন জোন্সের মৃত্যুসংবাদ পেয়ে ভীষণ কষ্ট পেয়েছি। এখনও এটা বিশ্বাস করতে পারছি না। তিনি আমার প্রিয় ধারাভাষ্যকার। আমার অনেক মাইলফলক ছোঁয়ার মুহূর্ত তার ধারাভাষ্যে উঠে এসেছিল। তাঁর সঙ্গে অনেক স্মৃতি মনে পড়ছে। তাঁকে খুব মিস করব।'

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা