kalerkantho

শনিবার । ২৬ নভেম্বর ২০২২ । ১১ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ ।  ১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

পণ্য পরিবহন ভাড়া ৫০% বাড়তে পারে

আসিফ সিদ্দিকী, চট্টগ্রাম   

৭ আগস্ট, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



পণ্য পরিবহন ভাড়া ৫০% বাড়তে পারে

সড়কপথে চট্টগ্রাম বন্দর থেকে কনটেইনারভর্তি আমদানি পণ্যের ৭০ শতাংশ দেশের বিভিন্ন স্থানে যায়। একইভাবে দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে রপ্তানি পণ্যের ৯০ শতাংশ আসে চট্টগ্রাম বন্দরে। সরকার জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানোয় আমদানি-রপ্তানি পণ্যের পরিবহন ভাড়া ৫০ শতাংশ পর্যন্ত বাড়তে পারে বলে মনে করছেন পরিবহন খাতের ব্যবসায়ীরা।

পরিবহন খরচের এই বাড়তি টাকা পণ্যের আমদানি ব্যয়ের সঙ্গে যোগ করে এরপর বাজারজাত করবেন ব্যবসায়ীরা।

বিজ্ঞাপন

এতে স্বাভাবিকভাবেই বাজারে বাড়বে পণ্যের দাম। আর এর মাসুল শেষ পর্যন্ত ভোক্তাকেই বহন করতে হবে। অন্যদিকে রপ্তানি পণ্যের বাড়তি পরিবহন ব্যয়ের জোগান দিতে হবে পোশাক খাতের ব্যবসায়ীদের। এতে তাঁদের মুনাফা কমে আসবে। আবার পণ্যের উত্পাদন খরচ বেড়ে যাবে বলে বিশ্বে প্রতিযোগিতা সক্ষমতা কমবে বাংলাদেশের পোশাক ব্যবসায়ীদের। এতে রপ্তানি লক্ষ্যমাত্রা অর্জন কঠিন হয়ে পড়বে।

গত শুক্রবার রাত ১২টার পর থেকে জ্বালানি তেলের বাড়তি দাম কার্যকর করেছে সরকার। পণ্য পরিবহনে ট্রাক, কাভার্ড ভ্যান ও লরিতে জ্বালানি হিসেবে ব্যবহার করা হয় ডিজেল। লিটারে ডিজেলের দাম ৩৪ টাকা বাড়ায় কঠিন পরিস্থিতিতে পড়েছে এই খাতের সংশ্লিষ্ট সবাই।

চট্টগ্রাম ট্রাক, কাভার্ড ভ্যান, প্রাইম মুভারস অ্যাসোসিয়েশনের মহাসচিব চৌধুরী জাফর আহমদ কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘পণ্য পরিবহনের গাড়িগুলো বিভিন্ন শিল্প ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে বার্ষিক চুক্তিতে পণ্য পরিবহন করে। তবে হঠাত্ করে জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানোয় এখন চুক্তির ওপর বাড়তি ৫০ শতাংশ পরিবহন ভাড়া বাড়ানোর নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়েছি আমরা। শনিবার আমাদের বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত হয়েছে। ২০২১ সালে পরিবহন খাতে ভাড়া বাড়ানোর সময় পণ্য পরিবহন খাতে ১৫ শতাংশ ভাড়া বাড়ানো হয়নি। জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানোয় এবার আমরা ৩৪ শতাংশ ভাড়া বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছি। ’

চট্টগ্রাম বন্দর থেকে পণ্য নিয়ে ঢাকায় যেতে একটি ট্রাকের স্বাভাবিক ভাড়া নেওয়া হয় ২০ হাজার টাকা। আর ফিরতি পথে নেওয়া হয় ১৫ হাজার টাকা। চট্টগ্রাম-ঢাকা-চট্টগ্রাম আসা-যাওয়ায় ভাড়া নেওয়া হয় ৩৫ হাজার টাকা। এতে একটি ট্রাকে ১৫০ লিটার ডিজেল প্রয়োজন হয়।

চৌধুরী জাফর আহমদ বলেন, ‘জ্বালানি তেলের দাম বাড়ায় চট্টগ্রাম থেকে ঢাকায় যেতে ট্রাকপ্রতি ভাড়া ১০ হাজার টাকা বাড়িয়ে ৩০ হাজার টাকা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি আমরা। আর ঢাকা থেকে চট্টগ্রামের ফিরতি পথে ভাড়া সাত হাজার টাকা বাড়িয়ে ২২ হাজার টাকা করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। শিল্প ও ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানের মালিকদের সঙ্গে বসে আমরা উভয় পক্ষ চুক্তি সংশোধন করে বাড়তি ভাড়া কার্যকর করব। ’

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি জানান, হঠাত্ জ্বালানি তেলের দাম বাড়ায় পণ্য পরিবহনে নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে সাতক্ষীরার ভোমরা স্থলবন্দরে। শনিবার দুপুর দেড়টার পর পুনর্নির্ধারিত অস্থায়ী ভাড়ায় ভোমরা থেকে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে ট্রাক ছেড়ে গেছে।

ভোমরা স্থলবন্দর ট্রান্সপোর্ট সমবায় সমিতির সভাপতি ফিরোজ হোসেন বলেন, ডিজেলের দাম বাড়ায় আগের ভাড়ার সঙ্গে দুই থেকে তিন হাজার টাকা যোগ করে ট্রাকের ভাড়া নেওয়া হচ্ছে। সরকারিভাবে ভাড়ার হার জানালে সে অনুযায়ী ভাড়া নির্ধারণ করা হবে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি জানান, তেলের দাম বাড়ায় আখাউড়া স্থলবন্দরে আগের ভাড়ায় পণ্য আনা-নেওয়া করতে চাইছেন না ট্রাক মালিক-শ্রমিকরা; যে কারণে গতকাল আমদানি করা গম খালাসে সমস্যা দেখা দেয়।



সাতদিনের সেরা