kalerkantho

রবিবার । ২৬ জুন ২০২২ । ১২ আষাঢ় ১৪২৯ । ২৫ জিলকদ ১৪৪৩

দৈনন্দিন ইসলামী প্রশ্ন-উত্তর

সমাধান : ইসলামিক রিসার্চ সেন্টার বাংলাদেশ, বসুন্ধরা, ঢাকা

২০ মে, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ওয়াশিং মেশিনে অপবিত্র কাপড় ধোয়া

প্রশ্ন : আমরা আমাদের জামা-কাপড় ওয়াশিং মেশিনেই ধুই। যেহেতু ঘরে বাচ্চা আছে, অনেক সময় তারা জামায় প্রস্রাব করে দেয়, ফলে সেগুলো অপবিত্র হয়ে যায়। প্রশ্ন হলো, ওয়াশিং মেশিনে অপবিত্র কাপড় ধৌত করলে তা পবিত্র হবে কি?

শম্পা, বনশ্রী

উত্তর : ওয়াশিং মেশিনে অপবিত্র কাপড় পবিত্র করতে হলে কমপক্ষে তিন-চারবার নতুন পানি দিয়ে মেশিন চালু করে প্রতিবার পানি ছেড়ে দিতে হবে। যখন প্রবল ধারণা হবে যে কাপড়ের ভেতরের অপবিত্রতা চলে গেছে, তখন কাপড় পবিত্র হয়েছে বলে ধরে নেবে।

বিজ্ঞাপন

তবে অপবিত্র স্থান চিহ্নিত করা সম্ভব হলে প্রথমে ওই স্থান ধৌত করে তারপর মেশিনে দেওয়া উত্তম। (সুরা মায়েদা : ৪, হিন্দিয়া : ১/৪২, বাদায়েউস সানায়ে : ১/৮৭, আদ্দুররুল মুখতার : ১/৫৬, আপকে মাসায়েল আওর উনকা হল : ৩/১৭১)

 

নামাজ অবস্থায় কোমর দেখা গেলে

প্রশ্ন : অনেক সময় জিন্স প্যান্ট পরে নামাজ পড়ার সময় সিজদায় গেলে পেছন দিকে নাভি বরাবর নিচের সামান্য অংশ খুলে যায়। এতে কি নামাজের কোনো সমস্যা হবে?

আনোয়ার হোসেন মানিক, নোয়াখালী

উত্তর : পুরুষের নাভির নিচে থেকে হাঁটু পর্যন্ত অংশটুকু সতরের অন্তর্ভুক্ত যা ঢেকে রাখা ফরজ। নামাজ অবস্থায় সতরের কোনো অঙ্গের এক চতুর্থাংশ তিন তাসবিহ পরিমাণ সময় খোলা থাকলে নামাজ নষ্ট হয়ে যায়। তাই নাভি বরাবর পেছন দিক থেকে যেকোনো এক নিতম্বের নিচ পর্যন্ত জায়গার এক-চতুর্থাংশ পরিমাণ তিন তাসবিহ পরিমাণ সময় খোলা থাকলে নামাজ ফাসেদ হয়ে (ভেঙে) যাবে। (হিন্দিয়া : ১/৬৫, হাশিয়াতু তাহতাভি : ১/১৯১, রদ্দুল মুহতার : ২/১০১, এমদাদুল ফাতাওয়া : ৪৩৮-৪৩৯)

 

ফরজ গোসলের দোয়া মুখে উচ্চারণ করা

প্রশ্ন : যারা শহরে থাকে তারা সাধারণত ঘরের গোসলখানায় গোসল করতে হয়, যাতে টয়লেটও থাকে। এ ধরনের জায়গায় ফরজ গোসল করার সময় বিসমিল্লাহ ও অজু-গোসলের নিয়ত বা দোয়া মুখে উচ্চারণ করে পড়া কি জরুরি?

মোবারক, মিরপুর

উত্তর : ফরজ গোসলের শুরুতে অন্তরে নিয়ত করা এবং হাত ধোয়ার আগে মুখে উচ্চারণ করে বিসমিল্লাহ পড়া সুন্নত। অজুর দোয়াও মুখে উচ্চারণ করে পড়া সুন্নত। (ফাতহুল কাদির : ১/২৬৫, রদ্দুল মুহতার : ১/১০৮, আল জাওহারাতুন নিয়ারাহ : ১/১০, ফাতাওয়ায়ে ফকীহুল মিল্লাত : ৩/৭১)

 



সাতদিনের সেরা