kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১০ আষাঢ় ১৪২৮। ২৪ জুন ২০২১। ১২ জিলকদ ১৪৪২

সালমান এফ রহমান বললেন

এফবিসিসিআইয়ের কার্যক্রম ভিশন ২০৪১ বাস্তবায়নে সহায়ক হবে

বাণিজ্য ডেস্ক   

৬ মে, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



এফবিসিসিআইয়ের কার্যক্রম ভিশন ২০৪১ বাস্তবায়নে সহায়ক হবে

সালমান এফ রহমান

বর্তমান দুর্যোগের সময়ে সফলতার সঙ্গে এফবিসিসিআই পলিসি অ্যাডভোকেসি করেছে। বিশেষ করে বাংলাদেশ ব্যাংক, জাতীয় রাজস্ব বোর্ড, অর্থ মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর প্রণোদনা প্যাকেজ বাস্তবায়নে সক্রিয়ভাবে কাজ করেছে। এফবিসিসিআইয়ের বর্তমান বোর্ড একটি রোডম্যাপ তৈরি করে দিয়েছে, ভবিষ্যতে এর কর্মকাণ্ড সরকারের ভিশন ২০৪১ এবং এসডিজি লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের সঙ্গে সহায়ক ভূমিকা পালন করতে পারে। গতকাল এফবিসিসিআই আইকন, ঢাকার রিনোভেটেড ভবন ও নতুন লোগো উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা ও এফবিসিসিআইয়ের সাবেক প্রেসিডেন্ট সালমান এফ রহমান, এমপি। এ সময় এফবিসিসিআইয়ের সভাপতি শেখ ফজলে ফাহিমকে তিনি ধন্যবাদ জানান।

অনুষ্ঠানে শেখ ফজলে ফাহিম বলেন, আট বছর ধরে ‘চেম্বার ৪.০’ নিয়ে ইন্টারন্যাশনাল চেম্বার অব কমার্স কাজ করছে। এখানে প্রথম জেনারেশনের ভূমিকা ছিল সরকারের কাছ থেকে বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা নিয়ে আসা এবং দ্বিতীয় জেনারেশন সামাজিক কর্মকাণ্ড ও পলিসিতে ইনপুট দেওয়া শুরু করে। তৃতীয় ও চতুর্থ জেনারেশন সামাজিক কমিউনিটি ইম্প্যাক্ট, ন্যাশনাল ইম্প্যাক্ট এবং গ্লোবাল ইম্প্যাক্ট নিয়ে কাজ করছে। এ বছর নভেম্বর মাসে ইন্টারন্যাশনাল চেম্বার অব কমার্সের কনফারেন্সের থিম হচ্ছে চেম্বার ৪.০। এফবিসিসিআই রিজিওনাল ও গ্লোবাল বিভিন্ন পার্টনারদের সঙ্গে এই চেম্বার ৪.০ নিয়ে কাজ করছে।

এফবিসিসিআইয়ের ইম্প্যাক্ট ৪.০-এর চারটি ভার্টিক্যাল হচ্ছে এফবিসিসিআই এডিআর (বিকল্প বিরোধ নিষ্পত্তি) সেন্টার, এফবিসিসিআই ইকোনমিক অ্যান্ড অ্যাপ্লাইড রিসার্চ সেন্টার, এফবিসিসিআই টেক সেন্টার, এফবিসিসিআই ইনস্টিটিউট এবং এফবিসিসিআই বিশ্ববিদ্যালয়।

অনুষ্ঠানে এফবিসিসিআইয়ের সাবেক সভাপতিদের মধ্যে বক্তব্য দেন মাহবুবুর রহমান, মীর নাসির হোসেন, এ কে আজাদ, আবদুল মাতলুব আহমাদ, সফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন এমপি।



সাতদিনের সেরা