kalerkantho

মঙ্গলবার । ৩০ চৈত্র ১৪২৭। ১৩ এপ্রিল ২০২১। ২৯ শাবান ১৪৪২

পুলিশ সংস্কার বিল নিয়ে আবার এগোচ্ছে মার্কিন কংগ্রেস

অনলাইন ডেস্ক   

৫ মার্চ, ২০২১ ১১:০৭ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পুলিশ সংস্কার বিল নিয়ে আবার এগোচ্ছে মার্কিন কংগ্রেস

প্রতীকী ছবি

পুলিশ সংস্কার বিল নিয়ে আবারো সামনে এগোতে শুরু করেছে মার্কিন কংগ্রেস। গত বুধবার কংগ্রেসের হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভসে এ সংক্রান্ত বিল পাস হয়েছে। অচিরেই সেটি সিনেটে পাস হয়ে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের টেবিলে পৌঁছাবে বলে আশা করছেন পর্যবেক্ষক ও রাজনীতিকরা।

গত বছর ২৫ মে মিনেসোটা অঙ্গরাজ্যের মিনিয়াপোলিস শহরে পুলিশ হেফাজতে মারা যান আফ্রিকান আমেরিকান নাগরিক জর্জ ফ্লয়েড। এরপর যুক্তরাষ্ট্রে বর্ণবাদবিরোধী ও পুলিশ নিপীড়নবিরোধী আন্দোলন নতুন গতি পায়।

আন্দোলনের মুখে পুলিশে সংস্কারের জন্য গত বছরই একটি বিল হাউসে পাস করা হয়। কিন্তু সে সময় রিপাবলিকান নিয়ন্ত্রিত সিনেট বিলটি আটকে দেয়। ওই বিলে কিছু পরিবর্তন করে সেটি এ সপ্তাহে আবার হাউসে উত্থাপন করা হলে গত বুধবার তা পাস হয়।

জর্জ ফ্লয়েড জাস্টিস ইন পুলিশিং অ্যাক্ট শীর্ষক বিলটি এবার সিনেটে যাবে। তবে সিনেটে বিলটি পাস হওয়া নিয়ে খানিকটা দোলাচল আছে। কারণ ১০০ আসনের সিনেটে ডেমোক্র্যাট ও রিপাবলিকান সদস্যসংখ্যা ৫০-৫০। এর পরও পর্যবেক্ষকরা বিলটি সিনেটে উতরে যাওয়ার আশা করছেন। এরপর প্রেসিডেন্টের স্বাক্ষর পেলেই বিলটি আইনে পরিণত হবে।

পুলিশ সংস্কার বিলে বেশ কয়েকটি বিতর্কিত বিষয় নিষিদ্ধ করা হয়েছে—পুলিশ সন্দেহভাজন ব্যক্তির শ্বাস রোধ করতে পারবে না, বিনা ওয়ারেন্টে কারো বিরুদ্ধে অভিযান চালাতে পারবে না, বর্ণবাদী মনোভাব নিয়ে কারো বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করতে পারবে না। এ ছাড়া পুলিশ কর্মকর্তাদের অসদাচরণের রেকর্ড রাখার জন্য একটি ডাটাবেইস খোলার কথা বলা হয়েছে। বিলে পুলিশ কর্মকর্তাদের দায়মুক্তির অধিকার সীমিত করা হয়েছে, যা নিয়ে বিতর্ক সবচেয়ে বেশি।

বিল নিয়ে ভোটাভুটি শুরুর আগে হাউসের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি বলেন, এই আইনের মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্রে শতাব্দীর পর শতাব্দী ধরে চলমান পদ্ধতিগত বর্ণবাদ আর পুলিশের অতিরিক্ত বল প্রয়োগ একেবারে মুছে ফেলতে পারবে না। তবে আইন প্রয়োগকারী সংস্থা ও বিভিন্ন সম্প্রদায়ের মধ্যকার সম্পর্কোন্নয়নে এবং সহিংসতা বন্ধে এই আইন এক অসাধারণ পদক্ষেপ। 

সূত্র : এএফপি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা