kalerkantho

শেষ পর্যন্ত ড্রতেই শেষ হলো লর্ডস টেস্ট

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৯ আগস্ট, ২০১৯ ১১:২৯ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



শেষ পর্যন্ত ড্রতেই শেষ হলো লর্ডস টেস্ট

সব মিলিয়ে শেষ পর্যন্ত ড্রতেই শেষ হলো অ্যাশেজের লর্ডস টেস্ট। বৃষ্টিতে ভেসে গেছে এই টেস্টের প্রথম কয়েক দিন। তারপরও ড্র হওয়া এই টেস্টে উল্লেখ করার মতো অনেক ঘটনা আছে। যেমন-বেন স্টোকসের দুর্দান্ত সেঞ্চুরিতে ইংল্যান্ডের ইনিংস ঘোষণা। প্রথম ইনিংসে জোফরা আর্চারের বাউন্সারে মাথায় আঘাত পেয়েও স্টিভেন স্মিথের ৯২ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলা। টেস্ট ক্রিকেটে প্রথম বদলি ক্রিকেটার হয়ে খেলতে নামা মার্নাস লাবুশেনের ব্যাট হাতে লড়াই। 

লর্ডস টেস্টের প্রথম দিনের পুরোটাই বৃষ্টিতে ভেসে যায়। পরেও বৃষ্টির যন্ত্রণা। এমন এক টেস্টেও ফল বের করতে উঠেপড়ে লেগেছিল ইংল্যান্ড। তবে চতুর্থ ইনিংসে আর্চার-জ্যাক লিচদের তোপের মুখে পড়ে ২৬৭ তাড়া করার সাহস দেখায়নি অস্ট্রেলিয়া।

চতুর্থ দিনে ৭১ রানেই ৪ উইকেট হারানো ইংল্যান্ড শেষ দিনে শুরু করেছিল ৪ উইকেটে ৯৬ রান নিয়ে। সেখান থেকে দলকে ৫ উইকেটে ২৪৮ রানের ইনিংস ঘোষণা পর্যন্ত নিয়ে যান বেন স্টোকস। ১৬৫ বলে ১১ বাউন্ডারি আর ৩ ছক্কায় ১১৫ রানে অপরাজিত থাকেন তিনি।

চতুর্থ ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে ফের জোফরা আর্চারের তোপের মুখে পড়ে অস্ট্রেলিয়া। তার সঙ্গে যোগ দেন জ্যাক লিচ। এমতাবস্থায় ৪৭ রানের মধ্যে ৩ উইকেট হারিয়ে চোখে সর্ষে ফুল দেখছিল অসিরা। ডেভিড ওয়ার্নার ৫, ক্যামেরুন বেনক্রফট ১৫ ও উসমান খাজা ২ রান করেন। এর মধ্যে নেই স্টিভেন স্মিথ। কি হবে, এমন অজানা আশঙ্কার মধ্যেও দলকে হতাশ করেননি স্মিথের স্থলাভিষিক্ত হওয়া লাবুসচাগনে।

চতুর্থ উইকেটে ট্রাভিস হেডের সঙ্গে ৮৫ রানের জুটিতে বিপর্যয় কাটিয়ে উঠেন লাবুসচাগনে। ৫৯ রান করে লিচের শিকার হন তিনি। এরপর দ্রুত আরও দুটি উইকেট হারিয়ে ফেলে অস্ট্রেলিয়া। তবে ট্রাভিস হেড একটা প্রান্ত ধরে রাখেন। ৯০ বল খেলে ৪২ রানে থাকেন অপরাজিত। আর তাতেই ভয় কাটিয়ে ড্রয়ের স্বস্তি নিয়ে মাঠ ছাড়ে সফরকারিরা।

ম্যাচ সেরার পুরস্কার পেয়েছেন বেন স্টোকস।
 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা