kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৫ জুন ২০১৯। ১১ আষাঢ় ১৪২৬। ২২ শাওয়াল ১৪৪০

প্রেমের কারণেই বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী আশিকের মৃত্যু

হত্যার আলামত খুঁজছে পুলিশ

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৪ মে, ২০১৯ ২৩:০৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



প্রেমের কারণেই বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী আশিকের মৃত্যু

প্রেমিকার সঙ্গে নিহত আশিক

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র আশিকের মৃত্যুর প্রকৃত ঘটনা জানতে তার বান্ধবী ফারিয়াকে রিমাণ্ডে জিজ্ঞাসাবাদ অব্যাহত রেখেছে পুলিশ। তদন্তের এ পর্যায়ে ফারিয়া পুলিশের কাছে দাবি করেছে, ‘আশিক তার বাসায় আত্মহত্যা করেছে।’ তবে পরিবারের দাবি, আশিকের মৃত্যুর জন্য ফারিয়া দায়ি। কিভাবে সে মারা গেছে তার সঠিক তদন্ত হলেই জানা যাবে। 

ভাটারা থানার ওসি আবু বকর সিদ্দিক বলেন, প্রেমের কারণেই আশিকের মৃত্যু হয়েছে। তবে তার মৃত্যুর অন্য কোনো কারণ আছে কিনা তার তদন্ত চলছে। প্রকৃত কারণ জানতে ভিসেরা ও ময়নাতদন্ত প্রতিবেদনের জন্য তারা অপেক্ষা করছেন তারা। তারা তদন্ত অব্যাহত রেখেছেন। 

তদন্ত সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, এ ঘটনায় আন্তত ১০ জনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। তারা কেউই এ বিষয়ে সঠিক তথ্য দিতে পারেনি। তবে তারা সবাই প্রেমের কারণেই আশিক আত্মহত্যা করেছে বলে ধারণা করছে।

গত মঙ্গলবার সকালে রাজধানীর ভাটারা এলাকায় বান্ধবীর বাসার জানালার সঙ্গে বেল্ট দিয়ে বাঁধা অবস্থায় আশিকের লাশ ছিল বলে দাবি করা হয়। পরে পুলিশ আসার আগেই বান্ধবী ও তাঁর কয়েকজন প্রতিবেশী আশিককে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে নেন। সেখান থেকে আশিকের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠায় ভাটারা থানা পুলিশ। গত বৃহস্পতিবার সকালে আশিকের বড় ভাই আল আমিন বাদী আত্মহত্যায় প্ররোচনার অভিযোগ এনে রাজধানীর ভাটারা থানায় একটি মামলা করেন। এতে আসামি করা হয়েছে আশিকের বান্ধবী ফারিয়াকে। তবে স্বজনরা দাবি করেছেন, ফারিয়ার সঙ্গে আশিকের প্রেমের সম্পর্ক নিয়ে তার পরিবারে উত্তেজনা চলছিল। এমন পরিস্থিতিতে ফারিয়াই ফোন করে আশিককে তার বাসায় ডেকে নেয়।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা