kalerkantho

রবিবার । ২৬ জুন ২০২২ । ১২ আষাঢ় ১৪২৯ । ২৫ জিলকদ ১৪৪৩

হাফেজ হলেন ইংলিশ মিডিয়ামের অর্ধশত শিক্ষার্থী

মুহাম্মাদ হেদায়াতুল্লাহ   

১৭ মে, ২০২২ ১৬:৩৭ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



হাফেজ হলেন ইংলিশ মিডিয়ামের অর্ধশত শিক্ষার্থী

রাজধানীর লালমাটিয়ার ওয়েটন ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের অর্ধশত শিক্ষার্থী পবিত্র কোরআন হিফজ সম্পন্ন করেছেন। এদের মধ্যে ১৩ জন মেয়ে শিক্ষার্থীও রয়েছেন। হাফেজদের অনেকে গত রমজান মাসে রাজধানীর বিভিন্ন মসজিদে তারাবির নামাজও পড়িয়েছেন। প্রতিষ্ঠানটির আরো ৪০ শিক্ষার্থী আগামী ছয় মাসের মধ্যে কোরআন হিফজ সম্পন্ন করবেন।

বিজ্ঞাপন

আজ মঙ্গলবার (১৮ মে) কালের কণ্ঠকে এসব কথা জানান ওয়েটন ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের প্রিন্সিপাল সৈয়দা বদরুন্নেছা ইসলাম।

সৈয়দা বদরুন্নেছা ইসলাম বলেন, ইংরেজি মাধ্যম স্কুলটির নিয়মিত পড়াশোনার পাশাপাশি পবিত্র কোরআন হিফজ করেন আগ্রহী শিক্ষার্থীরা। কোরআন হিফজ করতে সাধারণত দুই বছরের মতো সময় লেগেছে বেশির ভাগ শিক্ষার্থীর। আবার অনেক শিক্ষার্থী মাত্র এক বছরেও হিফজ করেন। হাফেজ হওয়া ২৫ শিক্ষার্থী করোনা মহামারির দুই বছরে হিফজ সম্পন্ন করেন।  

শিক্ষার্থীদের তারাবির নামাজ পড়ানো প্রসঙ্গে স্কুলের প্রিন্সিপাল বলেন, এ রমজানে রাজধানীর বিভিন্ন মসজিদে তারাবির নামাজ পড়িয়েছেন হাফেজ শিক্ষার্থীরা। নয়াবাজার, সুরিটোলা, কলাবাগান, মোহাম্মাদপুরসহ রাজধানীর বিভিন্ন বড় বড় মসজিদে তারা নামাজ পড়িয়েছেন। এর আগে স্কুলের ক্যাম্পাসেও তারাবির নামাজ পড়িয়েছেন অনেক শিক্ষার্থী। ইতিমধ্যে তিনজন হাফেজ শিক্ষার্থী ও লেভেল পরীক্ষা সাফল্যের সঙ্গে উত্তীর্ণ হয়েছেন বলে জানান তিনি।  

ওয়েটন ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের প্রিন্সিপাল বলেন, মূলত কেমব্রিজ পাঠক্রম অনুকরণ করে এ স্কুলে পাঠদান করা হয়। ব্রিটিশ কারিকুলামে ইংরেজি ছাড়াও একটি বিদেশি ভাষা শেখার সুযোগ থাকায় এ স্কুলে পাঠ্যসুচীর অংশ হিসেবে আরবি ভাষা ও ইসলাম শিক্ষাও সব ক্লাসের আবশ্যিক বিষয়ের অন্তর্ভুক্ত। নিয়মিত ক্লাসের পাশাপাশি আগ্রহী শিক্ষার্থীদের জন্য কোরআন হিফজের ব্যবস্থা রয়েছে এ প্রতিষ্ঠানে। মূলত ক্লাসের স্বাভাবিক পড়াশোনা নিশ্চিত করে এর পাশাপাশি কোরআন হিফজের এই উদ্যোগ নেওয়া হয়। কোরআন হিফজে আগ্রহীদের জন্য প্রতিদিন ভোরবেলা থেকেই রুটিন শুরু হয়। কোরআন হিফজের জন্য প্রতিদিন ফজর নামাজের পর দুই ঘণ্টা সময় পান শিক্ষার্থীরা। এছাড়াও রমজান মাস ও শীতকালীন ছুটিসহ বিভিন্ন ছুটিতে আগ্রহী শিক্ষার্থীরা কোরআন হিফজে সময় দেন বলে জানান তিনি।  

বদরুন্নেছা ইসলাম আরো জানান, ‘শিক্ষার্থীদের মধ্যে মৌলিক আরবি ও ইসলামী শিক্ষা প্রসারে আমাদের দেশে মসজিদভিত্তিক মক্তব ব্যবস্থা একসময় খুবই জনপ্রিয় ছিল। কিন্তু কালপরিক্রমায় শহরকেন্দ্রিক উচ্চশিক্ষিত পরিবারগুলোতে আগের মতো এর গুরুত্ব নেই। তবে সচেতন মুসলিম মা-বাবারা সব সময় সন্তানের ইসলামের মৌলিক শিক্ষা নিশ্চিত করতে চান। তাই আমরা আগ্রহী শিক্ষার্থীদের জন্য সকাল ৬টা থেকে ৮টা পর্যন্ত কোরআন শিক্ষা ক্লাস চালু করি। নির্দিষ্ট সময় পর হিফজে আগ্রহী শিক্ষার্থীদের জন্য হিফজ কোর্স চালু করা হয়। ’ 

উচ্চশিক্ষিত হয়েও ধর্মীয় মূল্যবোধ, সহনশীলতা ও পরিমিতিবোধ ধারণের পাশাপাশি সব শিক্ষার্থীর মধ্যে দেশপ্রেম ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনা তৈরি করতে নানা উদ্যোগ নিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। এর আগে গত বছরের ২০ ডিসেম্বর বাংলাদেশের মহান বিজয় দিবসের সুবর্ণ জয়ন্তী ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু কর্নার চালু করা হয়। এখান থেকে মাত্র ১০ টাকায় বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে লেখা যেকোনো বই কিনতে পারবে শিক্ষার্থীরা।



সাতদিনের সেরা