kalerkantho

রবিবার । ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ২৮ নভেম্বর ২০২১। ২২ রবিউস সানি ১৪৪৩

যৌন নিপীড়নের শিকার ছাত্রীর আত্মহত্যা, শিক্ষক গ্রেপ্তার

অনলাইন ডেস্ক   

১৭ নভেম্বর, ২০২১ ১৩:০৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



যৌন নিপীড়নের শিকার ছাত্রীর আত্মহত্যা, শিক্ষক গ্রেপ্তার

ভারতের তামিল নাড়ুতে বেসরকারি একটি স্কুলের দ্বাদশ শ্রেণীর এক ছাত্রী যৌন নিপীড়নের শিকার হয়ে আত্মহত্যা করেছে। এই ঘটনায় অভিযুক্ত শিক্ষককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গত বৃহস্পতিবার শিক্ষকের বিরুদ্ধে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ তুলে আত্মহত্যা করে ওই শিক্ষার্থী।

তামিল নাড়ুর কোয়েম্বাটুর শহর থেকে ৩১ বছর বয়সী পদার্থ বিজ্ঞানের এই শিক্ষককে গ্রেপ্তার করা হয়। চলতি বছরের মাঝামাঝিতে ওই ছাত্রী যৌন নিপীড়নের শিকার হয় বলে অভিযোগ পাওয়া যায়। 
 
এদিকে ওই শিক্ষকের হোয়াটসঅ্যাপের কথোপকথন ও অডিও আলাপচারিতা ভাইরাল হলে বিক্ষোভে ফেটে পড়েন স্থানীয়রা। কথোপকথন ও আলাপচারিতায় মনে হয়েছে ওই শিক্ষক অন্য আরও দুই ছাত্রীকেও যৌন নিপীড়ন করেন। 

পুলিশের এক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা বলেছেন, যৌন নিপীড়নের ঘটনাটি চলতি বছরের মাঝামাঝিতে ঘটে। এই ব্যাপারে পুলিশের কাছে আসা হাতে লেখা একটি নোট খতিয়ে দেখা হচ্ছে। নোটে নিপীড়নের ঘটনায় আরও দুই ব্যক্তি জড়িত বলে অভিযোগ করা হয়েছে। আর ছাত্রীর অভিযোগের ব্যাপারে কোনো ব্যবস্থা না নেওয়ায় পুলিশ স্কুলটির প্রধান শিক্ষিকাকেও গ্রেপ্তার করেছে। 

শিশুদের যৌন নিপীড়ন নিয়ে কাজ করা অলাভজনক প্রতিষ্ঠান ‘তুলির’ প্রতিষ্ঠাতা বিদ্যা রেড্ডি বলেন, বিষয়টি স্কুলটির অনুধাবন করা উচিত। এটা স্কুলের প্রতিফলন নয়। এটা ওই স্কুলের ব্যক্তির প্রতিফলন। তারা একবার নিপীড়নের অভিযোগ পাওয়ার পরও যেভাবে তা মোকাবিলা করেছে, সেটাই স্কুলটির প্রতিফলন। 

এদিকে এক বিবৃতিতে তামিল নাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী এম কে স্টালিন বলেছেন, কয়েকজনের বিকৃত মানসিকতার বলি হয়ে এক শিক্ষার্থীর জীবন প্রদীপ নিভে গেলো। স্কুলগুলোর এটা নিশ্চিত করা উচিত যে সেখানে কোনো যৌন হয়রানি নেই। আমরা অপরাধীদের বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড় করাব এবং নারীর নিরাপত্তা নিশ্চিত করবো। 

সম্প্রতি চেন্নাইয়ের নামকরা কয়েকটি স্কুলের কিছু শিক্ষকের বিরুদ্ধে সাবেক ও বর্তমান শিক্ষার্থীরা যৌন হয়রানির অভিযোগ দিলে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। সেসবের কিছুর ক্ষেত্রেও অভিযোগ পেয়ে খতিয়ে না দেখে তা ধামাচাপা দেওয়ার অভিযোগ উঠে জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে। 



সাতদিনের সেরা