kalerkantho

বৃহস্পতিবার ।  ২৬ মে ২০২২ । ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ২৪ শাওয়াল ১৪৪

শীতের সকালে আলস্য দূর করবেন যেভাবে

অনলাইন ডেস্ক   

২৫ জানুয়ারি, ২০২২ ১৫:০৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



শীতের সকালে আলস্য দূর করবেন যেভাবে

শীতের সকাল মানেই যেনো অলসতা। অ্যালার্ম বাজতে থাকলেও বিছানা ছেড়ে উঠতে মন চায় না। কিন্তু অফিস বা ক্লাস কোন কিছুই সময়ের জন্য বসে থাকে না। আলস্য কাটিয়ে উঠতে উঠতে সময় গড়িয়ে যায়।

বিজ্ঞাপন

ফলে সকালের নাস্তা বা শরীরচর্চা কোনকিছুই হয়না ঠিকমতো।

শীতের সকালে আলস্য দূর করার টিপস:

খাওয়াদাওয়ার উপর বিশেষ নজর দিন:

শীতের মৌসুম মানেই সঙ্গে জমিয়ে খাওয়াদাওয়া। তবে এই সময়ে শরীর ভালো রাখতে চাইলে সহজে হজমযোগ্য খাবার গ্রহণ করা খুব জরুরি। খাদ্যতালিকায় বার্লি, গম, চাল, ভুট্টা যোগ করুন। ডালের মধ্যে মুগ, কালো ছোলা, মুসুর উপকারী। ডায়েটে আমলা রাখতে পারেন। আদা, তুলসী, হিং, এলাচ, দারচিনি, হলুদ, জিরে, মৌরি, লবঙ্গ, গোলমরিচ, জায়ফল, লেবু, রসুন হজমশক্তি বাড়াতে বিশেষ উপকারী। তিল এবং তিসি ক্যালসিয়ামের ভাল উৎস। শীতকালের খাদ্যতালিকায় এগুলো অবশ্যই রাখুন। দুধ, দুগ্ধজাত দ্রব্য, আখ, গুড়ও এই সময় নিজের ডায়েটে রাখতে পারেন।

যোগাসন করুন

যোগাসন শরীরে শক্তির মাত্রা বাড়ায় এবং আপনাকে সারা দিন সক্রিয় রাখে। এই কয়েকটি আসন বিশেষ ভাবে করে দেখতে পারেন।

শলভাসন

এই আসন শরীরে তৎপরতা যোগ করে এবং পুরো পিঠ, কাঁধ ও বাহুগুলির নমনীয়তা বাড়ায়। শক্তি বাড়ে। এই যোগাসনের ভঙ্গিটি হজমশক্তি বাড়াতেও সাহাজ্য করে।

বীরভদ্রাসন

এই আসনটি বাহু, পা এবং পিঠের নীচের অংশকে শক্তিশালী করে। যাদের একটানা অনেক ক্ষণ বসে কাজ করতে হয়, তাদের জন্য এই আসন অত্যন্ত উপকারী।

সেতু বাঁধাসন

এই আসন পেশীগুলিকে শক্তিশালী করে এবং তাত্ক্ষণিক ভাবে ক্লান্তি দূর করে। আপনার শরীরকে নমনীয় করতে এবং মেরুদণ্ডের চাপ সহনশীলতার মাত্রা বাড়াতে এই আসন অত্যন্ত উপকারী। এটি মস্তিষ্ককে শান্ত করে, উদ্বেগ, চাপ এবং বিষণ্ণতা কমায়।

শীতের দিনে গরম তেল মালিশ

ত্বকের আর্দ্রতা বাড়াতে এবং রক্ত সঞ্চালন বাড়াতে গরম তেল মালিশ করে দিন শুরু করুন। বিশেষ করে তিলের তেল মালিশ করলে ভাল ফল মিলবে। গরম তেল মালিশ রক্তসঞ্চালন উন্নত করে,পাশাপাশি, হজমশক্তি উন্নত করে এবং শীতকালে সাধারণ আলস্য কমায়।



সাতদিনের সেরা