kalerkantho

বুধবার । ২০ শ্রাবণ ১৪২৮। ৪ আগস্ট ২০২১। ২৪ জিলহজ ১৪৪২

গানের আসর থেকে ২১ বাউল শিল্পী আটকের পর মুচলেকায় মুক্তি

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি   

২১ জুন, ২০২১ ০২:২৬ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গানের আসর থেকে ২১ বাউল শিল্পী আটকের পর মুচলেকায় মুক্তি

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় গানের আসর থেকে ২১ জন বাউল শিল্পীকে আটক করেছে পুলিশ। রবিবার (২০ জুন) ভোর রাতে ফতুল্লার শীষমহল এলাকা থেকে তাদের আটকের পর দুপুরে মুচলেকা রেখে প্রত্যেককে মুক্তি দিয়েছে।

আটককৃতরা হলেন- আকবর সরকার, লিজা সরকার, আমেনা সরকার, শিন্তু সরকার, নদী আক্তার, সাথী সরকার, ময়না সরকার, সাগর, আবু, জাহাঙ্গীর আলম, ইউনুছ, তুহিন, পাপ্পু, পায়েল, ইসমাইল, আনোয়ার হোসেন, তপু চন্দ্র দাস, নয়ন চন্দ্র দাস, সানাউল্লাহ, সেলিম।

ফতুল্লা মডেল থানার ওসি রকিবুজ্জামান জানান, করোনাকালীন সময় সকল প্রকার লোকসমাগম নিষিদ্ধ। তারপরও বাউল গানের নামে শীষ মহল এলাকায় বড় পরিসরের একটি শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত ঘরের ভেতর লোকসমাগম করা হয়েছে। এলাকাবাসীর অভিযোগের ভিত্তিতে ২১ জনকে আটক করা হয়। পরে বাউল নেতাদের অনুরোধে মুচলেকা নিয়ে তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। করোনাকালীন সময় তারা আর গানের আসর বসিয়ে লোক সমাগম করবে না বলে মুচলেকা দিয়েছে।

এ বিষয়ে নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি রঞ্জিত মন্ডল ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, বাংলার বাউল গান এখন বিশ্ব সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের অংশ। এ স্বীকৃতি দিয়েছে জাতিসংঘের শিক্ষা, বিজ্ঞান ও সাংস্কৃতিক সংস্থা ইউনেসকো। বিশ্বের ৪৩টি বাক ও বিমূর্ত ঐতিহ্য চিহ্নিত করতে গিয়ে ইউনেসকো বাংলাদেশের বাউল গানকে অসাধারণ সৃষ্টি বলে আখ্যা দিয়ে একে বিশ্ব সভ্যতার সম্পদ বলে ঘোষণা দিয়েছে। বাউলদের অল্প পরিসরে প্রাকটিস করার সুযোগ দিতে হবে। বাউল শিল্পীদের আটকের নামে ভয় দেখানো ঠিক হবে না।

নারায়ণগঞ্জ জেলা বাউল শিল্পীদের নেতা ফদির আহমেদ বাধন বলেন, বাউল শিল্পীরা শীষ মহলে একটি প্রাকটিস ঘর তৈরি করেছে। সেখানে শুধু শিল্পীরাই আসেন। পুলিশের আটকের কারণে সহজ সরল বাউল শিল্পীদের মাঝে আতংক দেখা দিয়েছে। শিল্পীদের প্রাকটিস করার সুযোগ দিতে হবে।



সাতদিনের সেরা