kalerkantho

বুধবার । ২০ নভেম্বর ২০১৯। ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ২২ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

১০ম শ্রেণির ছাত্রীকে ২২ দিন আটকে রেখে ধর্ষণ

সীতাকুণ্ড (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি   

১৬ অক্টোবর, ২০১৯ ২২:৩৫ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



১০ম শ্রেণির ছাত্রীকে ২২ দিন আটকে রেখে ধর্ষণ

প্রতীকী ছবি

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে ১০ম শ্রেণির এক স্কুলছাত্রীকে কৌশলে তুলে নিয়ে গিয়ে ২২ দিন আটকে রেখে ধর্ষণের অভিযোগে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। বুধবার আসামিকে কোর্ট হাজতে পাঠিয়েছে পুলিশ।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, গত ২২ সেপ্টেম্বর সকালে উপজেলার শীতলপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেণির এক ছাত্রী (১৭) প্রতিদিনের মতো স্কুলে যাবার জন্য বের হলে সোনাইছড়ি ইউনিয়নের শীতলপুর মোল্লাপাড়ার মমতাজ মিয়া বাড়ির নুর মিয়ার ছেলে বখাটে পারভেজ প্রকাশ ভোলা (২৫) তাকে জোরপূর্বক তুলে নিয়ে চট্টগ্রামের ডাবলমুরিং থানাধীন একটি বাসায় আটকে রাখে। 

সেখানে ওইদিন থেকে তাকে লাগাতার ধর্ষণ করে সে। এভাবে টানা ২২ দিন চলার পর ১৪ অক্টোবর স্থানীয় লোকজন তাদেরকে দেখে ডাবলমুরিং থানায় খবর দিলে পুলিশ গিয়ে ওই ছাত্রীসহ ধর্ষক ভোলাকে গ্রেপ্তার করে তাদের অভিভাবককে খবর দিয়ে সীতাকুণ্ড থানায় সোপর্দ করে।

এ ঘটনায় ভুক্তভোগী ছাত্রীর বড় ভাই মো. রনি বাদী হয়ে গত মঙ্গলবার গভীর রাতে সীতাকুণ্ড থানায় মামলা দায়ের করে। সীতাকুণ্ড থানার ওসির দায়িত্বে থাকা ওসি (তদন্ত) মো. শামীম শেখ বলেন, ১০ম শ্রেণির ওই ছাত্রী ও বখাটে পারভেজ প্রকাশ ভোলা একই এলাকার বাসিন্দা। সে ছাত্রীটিকে স্কুলে যাবার পথে তুলে নিয়ে গিয়ে চট্টগ্রাম শহরে আটকে রেখে উপর্যুপরি ধর্ষণ করেছে। 

খবর পেয়ে ডাবলমুরিং থানা তাদের আটক করে আমাদের কাছে সোপর্দ করেছে। শেষে মেয়েটির বড় ভাই বাদী হয়ে পারভেজকে আসামি করে মামলা দায়ের করেছে। বুধবার আমরা তাকে কোর্ট হাজতে পাঠিয়েছি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা