kalerkantho

ভুল সবই ভুল

গুটেনবার্গ ছাপাখানা আবিষ্কার করেছিলেন

সবাই সত্যি জানে—এমন অনেক কথা পরে যাচাই করে দেখা গেছে সেগুলো মিথ্যা। লিখেছেন আসমা নুসরাত

৩ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ১ মিনিটে



গুটেনবার্গ ছাপাখানা আবিষ্কার করেছিলেন

হীরক সূত্র : সময়কাল ৮৬৮ খ্রিস্টাব্দ

প্রথম ছাপা হওয়া বইটির নাম হীরক সূত্র। সময়কাল ৮৬৮ খ্রিস্টাব্দ। ছাপা হয়েছিল চীন দেশে। অক্ষর তৈরি হয়েছিল কাঠ দিয়ে। ওয়াং জি নামের এক ভদ্রলোক এটি বানানোর নির্দেশ দিয়েছিলেন। ব্রিটিশ মিউজিয়ামে বইটি (১৭ ফুট লম্বা স্ক্রল) সংরক্ষিত আছে। সে আমলে একটি কাঠের অক্ষর একবারই ব্যবহার করা যেত। পরে ১০৪১ সালে ওই চীন দেশেই একই অক্ষর বহুবার ব্যবহার উপযোগী করে ব্লক (মুভেবল টাইপ) বানানো হয়। গুটেনবার্গও একই কাজ করেছিলেন ১৪৪০ থেকে ১৪৫০ সালের মধ্যে। মানে চীন দেশে মুভেবল টাইপ তৈরি হওয়ার প্রায় ৪০০ বছর পরে। তাই গুটেনবার্গকে ছাপাখানা আবিষ্কারের কৃতিত্ব দেওয়া যায় না। তবে গুটেনবার্গ ছাপার কৌশলের উন্নতি ঘটিয়েছিলেন। তাতে ছাপার গতি বৃদ্ধি পেয়েছিল। খরচও হচ্ছিল কম। তিনি যে বাইবেল ছেপেছিলেন, তা দেখতে সুন্দরও হয়েছিল। চীনাদের সমস্যা হলো তাদের অক্ষর অনেক, সে ক্ষেত্রে পশ্চিমা ভাষাগুলোর বেশির ভাগেরই অক্ষরসংখ্যা ২০-২৬টি। তাই তাদের প্রচুর ব্লক তৈরি করতে হতো না। সে কারণে গুটেনবার্গের দেখানো পথে ইউরোপের অগ্রসর হতে বেশি সময় লাগেনি।

মন্তব্য