kalerkantho

মঙ্গলবার  । ২০ শ্রাবণ ১৪২৭। ৪ আগস্ট  ২০২০। ১৩ জিলহজ ১৪৪১

বিশ্বব্যাংকের প্রতিবেদন

ঢাকার সামনে তিন চ্যালেঞ্জ

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৩ জুলাই, ২০১৮ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বন্যা, যানজট ও আবর্জনা—এই তিনটি বিষয়কে রাজধানী ঢাকার জন্য ‘নীরব’ চ্যালেঞ্জ হিসেবে উল্লেখ করেছে বিশ্বব্যাংক। আন্তর্জাতিক এ আর্থিক প্রতিষ্ঠান মনে করে, এ তিনটি সমস্যার কারণে ঢাকার অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির গতি শ্লথ হচ্ছে। ভবিষ্যতে এসব সমস্যা আরো প্রকট হবে বলেও সতর্ক করে দিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

সম্প্রতি ‘টুওয়ার্ড গ্রেটার ঢাকা’ শিরোনামে ১৮৩ পৃষ্ঠার একটি প্রতিবেদনে বিশ্বব্যাংক এ চিত্র তুলে ধরে। বিশ্বব্যাংক বলছে, রাজধানীতে বেশির ভাগ প্রকল্প নেওয়া হয় দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা ছাড়া। বিদ্যমান পরিকল্পনাগুলোতে নজর না দিয়ে বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও বিভাগ নিজেদের মতো প্রকল্প বাস্তবায়ন করে। অনেক প্রভাবশালী আইনকানুন মানেন না।

বাস র‌্যাপিড ট্রান্সপোর্ট (বিআরটি) ও মেট্রো রেলের কাজ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে বিশ্বব্যাংক বলছে, এ দুটি প্রকল্প রাজধানীর মধ্যবিত্তের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু প্রকল্প দুটির কাজ চলছে ধীরগতিতে।

বিশ্বব্যাংকের হিসাব অনুযায়ী, রাজধানীতে চার হাজার ১০০ কিলোমিটার সড়কের বেশির ভাগ নির্মিত হয়েছে দুর্বল পরিকল্পনায়। ১২ শতাংশেরও কম সড়ক গুণগত মানসম্পন্ন।

বিশ্বব্যাংকের গবেষণা অনুযায়ী, দশ বছর আগে ঢাকায় প্রতি ঘণ্টায় গাড়ির গড় গতি ছিল ২১ কিলোমিটার। সেটি এখন সাত কিলোমিটার। রাজধানীর মানুষ প্রতিদিন গড়ে ২ দশমিক ৪ ঘণ্টা যানজটে কাটায় বলেও বিশ্বব্যাংকের প্রতিবেদনে উঠে এসেছে। অর্থাৎ দুই কোটি মানুষের এই শহরে দিনে ৩২ লাখ কর্মঘণ্টা নষ্ট হচ্ছে।

বিশ্বব্যাংক বলছে, ঢাকার যে সম্ভাবনা, তা পুরোপুরি কাজে লাগানো যাচ্ছে না। তবে সম্ভব। এ জন্য নগরের যে পরিকল্পনা আছে, সেখানে পরিবর্তন আনতে হবে। পূর্ব ঢাকাকে নতুন করে ঢেলে সাজানোর পরিকল্পনা গ্রহণ করতে হবে। পূর্ব ঢাকাকে আধুনিক করে গড়ে তুলতে পারলে সেখানে ৫০ লাখ মানুষের আবাসনব্যবস্থা এবং ১৮ লাখ মানুষের নতুন কর্মসংস্থান হবে।

মন্তব্য