kalerkantho

শুক্রবার ।  ২৭ মে ২০২২ । ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ । ২৫ শাওয়াল ১৪৪

কাবা শরিফের ১০ নির্মাতা

মাওলানা সাখাওয়াত উল্লাহ   

২৪ জানুয়ারি, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



কাবা শরিফের ১০ নির্মাতা

তাফসিরে জালালাইনের ব্যাখ্যাকার ‘হাশিয়াতুল জামাল’-এর লেখক আল্লামা সুলাইমান আল-জামাল (রহ.) বলেন, আমাদের শায়েখ আল-মাদাবিগি (রহ.) কাবা শরিফের নির্মাতাদের নাম ও ক্রম-তালিকা কবিতার মধ্যে তুলে ধরেছেন অত্যন্ত চমৎকাররূপে। তা এই—

আরশের প্রভুর ঘর (কাবা শরিফ) নির্মাণ করেছেন ১০ জনে। যথাক্রমে : ১. আল্লাহর ফেরেশতারা, ২. আদম (আ.), ৩. শিশ (আ.), ৪. ইবরাহিম (আ.), ৫. আমালিক গোত্র, ৬. জুরহুম গোত্র, ৭. কুসাই ইবনে কিলাব, ৮. কুরাইশ গোত্র, ৯. আবদুল্লাহ ইবনে জুবাইর (রা.) ও ১০. হাজ্জাজ ইবনে ইউসুফ। এটাই সর্বশেষ।

বিজ্ঞাপন

(হাশিয়াতুল জামাল, ১/৩১৩, ২/৪২০)

ইবরাহিম (আ.)-এর নির্মিত কাবা শরিফের দৈর্ঘ্য ছিল ৩০ (ত্রিশ) হাত; প্রস্থ ২২ (বাইশ) হাত; উচ্চতা ৯ (নয়) হাত। ওপরে ছাদ ছিল না। পরবর্তী সময়ে কুসাই ইবনে কিলাব ইবরাহিম (আ.)-এর ভিতের ওপর কাবা শরিফ পুনর্নির্মাণ করে এবং কাঠ দ্বারা ছাদের কাজও সম্পন্ন করে। তখনো দরজা ছিল মাটি বরাবর।

কালের চাকা ঘুরে এলো কুরাইশদের কর্তৃত্ব। তারা মনস্থ করল কাবা ঘরটির পুনর্নির্মাণের। পর্যাপ্ত অর্থ ছিল না তাদের কাছে। তবু এই মহতীপূর্ণ কাজের সিদ্ধান্ত নিলই তারা। তখন রাসুল (সা.)-এর বয়স ২৫ বছর। তারা ইবরাহিম (আ.)-এর নির্মিত কাবা শরিফে কিছু পরিবর্তন করল। কিছুটা ইচ্ছা করে, কিছুটা অর্থের অভাবে। যেমন : (১) উচ্চতায় আরো ৯ হাত বৃদ্ধি করল। ফলে তার উচ্চতা হলো ১৮ (আঠারো) হাত।

 (২) দৈর্ঘ্যে কমিয়ে দিল সাড়ে ছয় হাত। আর তা হাতিম বা হিজর আকারে রেখে দিল। তখন নির্মিত অংশের দৈর্ঘ্য দাঁড়াল সাড়ে ২৩ হাত।

(৩) দরজার চৌকাঠ উঠিয়ে দিল অনেক উঁচুতে, যেন শুধু প্রভাবশালীরাই কাবার অভ্যন্তরে প্রবেশ করতে পারে।

এরপর আবদুল্লাহ ইবনে জুবাইর (রা.) হাতে নিলেন পুনর্নির্মাণের কাজ। তিনি রাসুল (সা.)-এর ইচ্ছার বাস্তবায়নকল্পে ইবরাহিম (আ.)-এর ভিতের ওপর কাবা শরিফের নির্মাণ করলেন। হাতিমকে কাবার অন্তর্ভুক্ত করলেন। তবে উচ্চতায় আরো ৯ হাত বৃদ্ধি করলেন। তখন কাবা শরিফের উচ্চতা দাঁড়াল ২৭ হাতে। দরজা বানালেন দুটি। একটি প্রবেশের জন্য, অপরটি বের হওয়ার জন্য। দরজার চৌকাঠ মাটি বরাবর করে দিলেন।

এরপর হাজ্জাজ ইবনে ইউসুফ কাবা ঘরটিকে ভেঙে আবদুল মালিক ইবনে মারওয়ানের নির্দেশমতো নির্মাণ করলেন। তাতে উচ্চতা বহাল রেখে হাতিমকে বাইরে রাখা হলো এবং পশ্চিম দিকের দরজাটি বন্ধ করে দিল। (হাশিয়াতুল জামাল ২/৪২০ : মুসলিম শরিফ ১/৪২৯-৪৩১)

 

 



সাতদিনের সেরা