kalerkantho

সোমবার । ৬ বৈশাখ ১৪২৮। ১৯ এপ্রিল ২০২১। ৬ রমজান ১৪৪২

প্রশ্ন-উত্তর

২ মার্চ, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



মসজিদ স্থানান্তরের শর্ত

প্রশ্ন : আমাদের মসজিদটি ছোট, মুসল্লিদের জায়গা সংকুলান হয় না বিধায় সব মুসল্লি একমত হয়েছে মসজিদটি বড় করার দরকার। অথচ পুরনো মসজিদটির পাশে চাহিদা অনুযায়ী বড় মসজিদ করার মতো জায়গা-জমি নেই। এ জন্য অন্য জায়গায় বেশি জমি পাওয়ায় আমরা মসজিদটি সরিয়ে নিতে চাই। এখন আমাদের জানার বিষয় হলো, শরিয়ত মোতাবেক কী কী করণীয়?

মুহাম্মদ সোহেল শেখ, লোহাগড়া, নড়াইল।

উত্তর : ইসলামের দৃষ্টিতে যে জায়গায় একবার শরয়ি মসজিদ হয়েছে, কিয়ামত পর্যন্ত সেটা মসজিদ হিসেবেই গণ্য হয়ে থাকে। সেটাকে ক্রয়-বিক্রয় বা স্থানান্তর করা যায় না বিধায় উক্ত মসজিদে জায়গা সংকুলান না হলে বহুতল বিশিষ্ট মসজিদ নির্মাণ করা যেতে পারে। আর নতুন মসজিদ করতে চাইলেও তার অনুমতি আছে। তবে পুরনো মসজিদকে কোনো অবস্থাতে বাদ দিয়ে বা বন্ধ করে নয়; বরং পূর্বের ন্যায় তাতে নামাজ ও জামাত চালু রেখে প্রয়োজনে নতুন মসজিদ নির্মাণ করতে আপত্তি নেই। (রদ্দুল মুহতার : ৪/৩৫৮, আলবাহরুর রায়েক ৫ : /৪২১, হিন্দিয়া : ২/৪২৮)

 

মসজিদের টাকায় জানাজার খাট

প্রশ্ন : মসজিদের ফান্ডের টাকা থেকে পরামর্শ ক্রমে জানাজার খাট বানানো জায়েজ আছে কি? যদি হয় তাহলে খাট রাখবে কোথায়?

মুহাম্মদ আনোয়ার হুসাইন, নাটোর।

উত্তর : জানাজার খাট মসজিদের কোনো প্রয়োজনীয় বস্তু নয় বিধায় মসজিদের ওয়াকফকৃত টাকা থেকে জানাজার খাট বানানো বৈধ নয় এবং জানাজার খাট মসজিদে না রেখে পরামর্শক্রমে অন্য কোথাও রাখবে। (হিন্দিয়া : ২/৪৩১, ফতাওয়ায়ে সিরাজিয়া : ৯১, ফতাওয়ায়ে রহিমিয়া : ২/১৬৩)

 

হাজারি রোজার ভিত্তি আছে?

প্রশ্ন : অনেক মানুষ রজব মাসের ২৭ তারিখের রোজাকে অনেক গুরুত্ব দিয়ে থাকেন। এটি হাজারি রোজা বলে বিশ্রুত আছে। অর্থাৎ হাজার রোজার সওয়াব মনে করা হয় এবং এই বিশ্বাসেই রোজা রাখা হয়। এ ব্যাপারে ইসলামের বিধান কী?

মুহাম্মদ আব্দুর রহমান, কলাপাড়া, পটুয়াখালী।

উত্তর : ইসলামে রজব মাসের হাজারি রোজার ভিত্তি নেই। (ইবনে মাজাহ : ১২৫, ফতাওয়া দারুল উলুম : ৬/২৯১ , ফতাওয়া মাহমুদিয়া : ৩/১৩৩)

 

আসরের পর কাজা নামাজ

প্রশ্ন: আসরের ফরজ পড়ার পর থেকে নিয়ে হারাম ওয়াক্ত আসার আগ পর্যন্ত এই সময়ের মধ্যে অতীতের ছুটে যাওয়া নামাজ কাজা আদায় করা যাবে কি? বিস্তারিত জানতে চাই।

মারিয়া জিলানী, কুমিল্লা।

উত্তর : আসরের ফরজ নামাজের পর যদিও নফল নামাজ পড়ার অনুমতি নেই কিন্তু অতীতের ছুটে যাওয়া কাজা নামাজ পড়তে কোনো অসুবিধা নেই বিধায় কাজা নামাজ পড়া জায়েজ হবে। (ফাতাওয়ায়ে আলমগীরী : ১/৫২, ফাতাওয়ায়ে মাহমুদিয়া : ২/২৩৮)

 

কাপড়সহ কবজি ধরলে সুন্নত আদায় হবে?

প্রশ্ন : নামাজে ডান হাত দিয়ে বাম হাতের কবজি ধরা সুন্নত। যদি পাঞ্জাবি, শার্ট ইত্যাদির ওপর দিয়ে কবজি ধরা হয়, তাহলে কি সুন্নত আদায় হবে?

তাকি উদ্দিন, যশোর।

উত্তর : জামার ওপর থেকে হোক বা ভেতর থেকে, কবজি ধরলেই সুন্নত আদায় হয়ে যাবে। (আদ্দুররুল মুখতার : ১/৪৮৭, শুআবুল ঈমান : ৫/১৫৫, ফাতাওয়ায়ে দারুল উলুম : ৪/৩৯, ফাতাওয়ায়ে ফকীহুল মিল্লাত : ৩/২৬৬)

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা