kalerkantho

মঙ্গলবার। ৯ আগস্ট ২০২২ । ২৫ শ্রাবণ ১৪২৯ । ১০ মহররম ১৪৪৪

উত্তাল সমুদ্র, ভীতিকর যাত্রা

বাংলাদেশ-ওয়েস্ট ইন্ডিজ প্রথম টি-টোয়েন্টি আজ

ক্রীড়া প্রতিবেদক   

২ জুলাই, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



উত্তাল সমুদ্র, ভীতিকর যাত্রা

উত্তাল আটলান্টিক যাত্রায় ক্লান্ত হয়ে পড়েন বাংলাদেশ জাতীয় দলের অনেক ক্রিকেটার। ছবি : সংগৃহীত

মাঠের পারফরম্যান্স যাচ্ছেতাই হওয়ার কারণে টেস্ট সিরিজের সময় ক্যারিবিয়ানের চোখ-ধাঁধানো সৌন্দর্য উপভোগ করার উপায় ছিল না বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটারদের। তবে টেস্ট শেষে টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলার জন্য সেন্ট লুসিয়া থেকে ডমিনিকা যাত্রার শুরুটা তাঁদের জন্য তারিয়ে তারিয়ে উপভোগ করার মতোই ছিল। আকাশ নয়, তাঁদের যাত্রা ছিল সমুদ্রপথে। সেন্ট লুসিয়ার রাজধানী কাস্ট্রিজের বন্দর থেকে ফেরিতে রওনা হওয়ার পর ছবি-টবি তুলে দারুণ সময় কাটানোর পর্ব অবশ্য স্থায়ী হয়নি বেশিক্ষণ।

বিজ্ঞাপন

উত্তাল আটলান্টিকের ঢেউয়ের তোড় এবং ‘মোশন সিকনেস’-এর কারণে মুহূর্তেই অসুস্থ হয়ে পড়েন দলের বেশ কয়েকজন ক্রিকেটার। এর মধ্যে পেসার শরীফুল ইসলাম ও উইকেটরক্ষক-ব্যাটার নুরুল হাসানের অবস্থা ছিল অন্যদের তুলনায় বেশি খারাপ। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে খেলাধুলাভিত্তিক পোর্টাল অলরাউন্ডার-এর পোস্ট করা ভিডিওতে ওই দুজনের সশব্দে বমি করার দৃশ্য দেখে শিউরে ওঠে দেশের ক্রিকেটপ্রেমী জনতাও। সেই সঙ্গে ভিডিওতে ফেরিতে টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক মাহমুদ উল্লাহর এমন ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়াও ভক্তদের ফুঁসে ওঠার পক্ষে যথেষ্ট ছিল, ‘কে দায়-দায়িত্ব নেবে? এখনো আড়াই ঘণ্টা বাকি। সামনে অবস্থা আরো খারাপ। চার-পাঁচজন ক্রিকেটার শুধু দাঁড়িয়ে আছে, বাকিরা সবাই শুয়ে পড়েছে। ’

সেন্ট লুসিয়া থেকে ডমিনিকা যাওয়ার পথে ফরাসি শাসনাধীন দ্বীপ মার্টিনিকে যাত্রাবিরতি করেছিল ফেরি। যেখানে ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলের ক্রিকেটাররাও ছিলেন। মার্টিনিক থেকে ডমিনিকা পর্যন্ত আটলান্টিক আরো উত্তাল হবে ভেবে ক্রিকেটাররা নেমে যেতে চেয়েছিলেন সেখানেই। ভিসার ব্যবস্থা করে তাঁদের বিমানে ডমিনিকা নিয়ে যাওয়ার অনুরোধও ছিল। তবে নানা কারণেই সেটি সম্ভব না হওয়ায় বাকি পথও ফেরিতেই পাড়ি দিতে হয় ক্রিকেটারদের। অবশ্য মাহমুদের পূর্ব ধারণা মেলেনি। বাকি পথ আর অতটা উত্তাল ছিল না। তাই নিরাপদেই ‘ন্যাচার আইল্যান্ড অব ক্যারিবিয়ান’ ডমিনিকায় পৌঁছে বাংলাদেশ দল।

বমি করতে করতে ক্লান্ত ক্রিকেটাররাও উত্তাল যাত্রার ধকল কাটিয়ে সুস্থ আছেন বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা নিজাম উদ্দিন চৌধুরী। গতকাল সন্ধ্যায় তিনি কালের কণ্ঠকে বলছিলেন, ‘একটু আগেও খোঁজ নিয়েছি আমি। সবাই সুস্থ আছে, ভালো আছে। যারা বমি করেছিল, তারাও। কারণ পৌঁছানোর পর রাতেই ডমিনিকান সরকারের পক্ষ থেকে দুই দলের সম্মানে নৈশ ভোজের আয়োজন ছিল। সেখানে আমাদের পুরো দলই গেছে। কেউ অসুস্থ থাকলে নিশ্চয়ই সেখানে অনুপস্থিত থাকত। ’

অর্থাৎ আজ বাংলাদেশ সময় রাত সাড়ে ১১টায় ডমিনিকার উইন্ডসর পার্কে শুরু হতে যাওয়া সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টির আগে উত্তাল সমুদ্রযাত্রার ধকল কাটিয়ে ওঠা গেছে বলে বিশ্বাস করেন নিজাম উদ্দিন। বিমানে করে কেন দলকে ডমিনিকায় নেওয়া হলো না, এই প্রশ্নের জবাবে বিসিবি প্রধান নির্বাহী বললেন, ‘কভিডের কারণে ক্যারিবিয়ানের বন্ধ হয়ে যাওয়া অনেক ফ্লাইটই এখনো চালু হয়নি। যেসব ফ্লাইট পাওয়া যাচ্ছিল, এর সবই ছোট ছোট বিমান। আর শুধু দলই তো যায় না, দলের হাজার হাজার কেজি মালামালও যায়। ক্রিকেট ওয়েস্ট ইন্ডিজ (সিডাব্লিউআই) আমাদের অনেক আগেই বিষয়টি জানায়। সেই সঙ্গে বিকল্প প্রস্তাবও দেয়। একই ফেরিতে যেহেতু ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলও ভ্রমণ করবে, তাই আমরাও আপত্তি করার কোনো কারণ দেখিনি। ’

 



সাতদিনের সেরা