kalerkantho

মঙ্গলবার । ৩ কার্তিক ১৪২৮। ১৯ অক্টোবর ২০২১। ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

জ্ঞা ন মূ ল ক প্র শ্ন

এইচএসসি প্রস্তুতি : হিসাববিজ্ঞান প্রথম পত্র

মোহাম্মদ জয়নাল আবেদীন, প্রভাষক, হিসাববিজ্ঞান বিভাগ সিদ্ধেশ্বরী কলেজ, ঢাকা

২২ আগস্ট, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৭ মিনিটে



এইচএসসি প্রস্তুতি : হিসাববিজ্ঞান প্রথম পত্র

অঙ্কন : মাসুম

দ্বিতীয় অধ্যায়

হিসাবের বইসমূহ

চতুর্থ ভাগ

জাবেদার শ্রেণিবিভাগ

[পূর্ব প্রকাশের পর]

৪৯।  নগদপ্রাপ্তি জাবেদা কী?

     উত্তর : একটি নির্দিষ্ট সময়ের মোট নগদ আন্তঃপ্রবাহ জানার উদ্দেশে সব নগদ ও নগদ সমতুল্য প্রাপ্তির লেনদেন নিয়ে যে          জাবেদা প্রস্তুত করা হয় তাকে নগদপ্রাপ্তি জাবেদা বলে।

৫০।  প্রাপ্য/দেনাদারের নিকট থেকে আদায় হলে নগদপ্রাপ্তি জাবেদা কী হবে?

     উত্তর : নগদান হিসাব ডেবিট, প্রদত্ত বাট্টা হিসাব ডেবিট, প্রাপ্য/ দেনাদার হিসাব ক্রেডিট।

৫১। নগদ বিক্রয়/ সেবা আয়ের জন্য নগদপ্রাপ্তি জাবেদা কী হবে?

     উত্তর : নগদান হিসাব ডেবিট, বিক্রয়/সেবা আয় হিসাব ক্রেডিট।

৫২।  মূলধন ও অন্যান্য প্রাপ্তির ক্ষেত্রে নগদপ্রাপ্তি জাবেদা কী হবে?

     উত্তর : নগদান হিসাব ডেবিট, সংশ্লিষ্ট অন্যান্য হিসাব ক্রেডিট।

৫৩।  বিক্রয় হিসাবভুক্তির জন্য জাবেদা কী হবে?

     উত্তর : নগদ/ প্রাপ্য হিসাব ডেবিট, বিক্রয় হিসাব ক্রেডিট।

৫৪।  বিক্রীত পণ্যের ব্যয় হিসাবভুক্তির জন্য জাবেদা কী হবে?

     উত্তর : বিক্রীত পণ্যের ব্যয় ডেবিট, মজুদ পণ্য হিসাব ক্রেডিট।

৫৫। নগদ প্রদান জাবেদা কী?

     উত্তর : একটি নির্দিষ্ট সময়ের মোট নগদ বহিঃপ্রবাহ জানার উদ্দেশে সব নগদ ও নগদ সমতুল্য প্রদানের লেনদেন লিপিবদ্ধ করার জন্য যে জাবেদা প্রস্তুত করা হয়, তাকে নগদ প্রদান জাবেদা বলে।

৫৬।  নগদে ক্রয় কালান্তিক মজুদ পদ্ধতিতে জাবেদা কী?

     উত্তর : ক্রয় ডেবিট, নগদান  ক্রেডিট।

৫৭।  নগদে ক্রয় নিত্য মজুদ পদ্ধতিতে জাবেদা কী?

     উত্তর : মজুদ পণ্য ডেবিট, নগদান ক্রেডিট।

৫৮।  প্রদেয় হিসাব/পাওনাদারকে পরিশোধ কালান্তিক মজুদ পদ্ধতিতে জাবেদা কী?

     উত্তর : প্রদেয় হিসাব  ডেবিট, নগদান ক্রেডিট, প্রাপ্ত বাট্টা ক্রেডিট।

৫৯।  অন্যান্য প্রয়োজনে নগদ অর্থ প্রদান কালান্তিক মজুদ পদ্ধতিতে জাবেদা কী?

     উত্তর : অন্যান্য হিসাব ডেবিট, নগদান হিসাব ক্রেডিট।

৬০।  প্রদেয় হিসাব/ পাওনাদারকে পরিশোধ নিত্য মজুদ পদ্ধতিতে জাবেদা কী?

     উত্তর : প্রদেয় হিসাব  ডেবিট, নগদান হিসাব ক্রেডিট, মজুদ পণ্য হিসাব   ক্রেডিট।

৬১। অন্যান্য প্রয়োজনে নগদ অর্থ প্রদান নিত্য মজুদ পদ্ধতিতে জাবেদা কী?

     উত্তর : অন্যান্য হিসাব ডেবিট, নগদান হিসাব ক্রেডিট।

৬২। কালান্তিক মজুদ পদ্ধতিতে নগদ প্রদান জাবেদা প্রস্তুত করার জন্য টাকার ঘর কয়টি?

     উত্তর : কালান্তিক মজুদ পদ্ধতিতে নগদ প্রদান জাবেদা প্রস্তুত করার জন্য টাকা লিখতে ৫টি ঘর দরকার। যথা—(১) ক্রয় (২) নগদান (৩) প্রদেয় হিসাব/পাওনাদার (৪) প্রাপ্ত বাট্টা এবং (৫) অন্যান্য হিসাব।

৬৩। নিত্য মজুদ পদ্ধতিতে নগদ প্রদান জাবেদা প্রস্তুত করার জন্য টাকার ঘর কয়টি?

     উত্তর : নিত্য মজুদ পদ্ধতিতে নগদ প্রদান জাবেদা প্রস্তুত করার জন্য টাকা লিখতে ৪টি ঘর দরকার। যথা—(১) নগদান (২) প্রদেয় হিসাব/ পাওনাদার (৩) মজুদ পণ্য এবং (৪) অন্যান্য হিসাব।

৬৪। প্রকৃত জাবেদা কী?

     উত্তর : যেসব লেনদেন কোনো বিশেষ জাবেদায় লিপিবদ্ধ করা যায় না, ওই সব লেনদেন লিপিবদ্ধ করার জন্য যে জাবেদা ব্যবহার করা হয় তাকে প্রকৃত জাবেদা বলে। কোন ধরনের লেনদেন প্রকৃত জাবেদায় লিপিবদ্ধ হবে তা নির্ভর করে বিশেষ জাবেদার শ্রেণিবিভাগের ওপর।

৬৫। প্রারম্ভিক দাখিলা কী?

     উত্তর : ব্যবসায়ের প্রারম্ভে আনীত সম্পত্তি, বিগত বছরের যাবতীয় সম্পত্তি ও দায়দেনাসমূহকে প্রাথমিক পর্যায়ে প্রারম্ভিক দাখিলার মাধ্যমে জাবেদাভুক্ত করা হয়। প্রারম্ভিক দাখিলায় সম্পত্তিসমূহ ডেবিট এবং দায় ও মূলধন হিসাবকে ক্রেডিট করা হয়।

৬৬।  সমন্বয় দাখিলা কী?

     উত্তর : আর্থিক বিবরণী প্রণয়নের সময় হিসাবের খাতায় যেসব লেনদেন লিপিবদ্ধ করা হয়নি বা প্রদত্ত খরচ বা প্রাপ্ত আয়কে কম বা বেশি দেখানো হয়েছে এ ধরনের আর্থিক ঘটনাসমূহকে যে দাখিলার মাধ্যমে সমন্বয় সাধন করা হয় তাকে সমন্বয় দাখিলা বলে।

৬৭।  বকেয়া বেতন ৭,০০০ টাকার সমন্বয় দাখিলা কী?

     উত্তর : বেতন হিসাব ডেবিট ৭,০০০ টাকা, বকেয়া বেতন হিসাব ক্রেডিট ৭,০০০ টাকা।

৬৮।  অগ্রিম ভাড়া ৮,০০০ টাকা, এর সমন্বয় দাখিলা কী?

     উত্তর : অগ্রিম ভাড়া হিসাব   ডেবিট ৮,০০০ টাকা, ভাড়া হিসাব ক্রেডিট ৮,০০০ টাকা।

৬৯।  আসবাবপত্রের অবচয় ১,০০০ টাকা, এর সমন্বয় দাখিলা কী?

     উত্তর : অবচয় হিসাব ডেবিট ১,০০০ টাকা, পুঞ্জীভূত অবচয় হিসাব ক্রেডিট ১,০০০ টাকা।

৭০। ভুল সংশোধনী দাখিলা কী?

     উত্তর : একটি নির্দিষ্ট সময়ে কোনো প্রতিষ্ঠানের হিসাবে ভুল থাকলে ওই ভুল সংশোধনের জন্য যে দাখিলা দেওয়া হয় তাকে ভুল সংশোধনী জাবেদা বা দাখিলা বলে। লেনদেনসমূহ লিপিবদ্ধ করার সময় হিসাবরক্ষকের অসাবধানতা বা হিসাববিজ্ঞানের পরিপূর্ণ জ্ঞানের অভাবে ভুল হতে পারে।

৭১।  বিক্রয় বইয়ের যোগফল ৬০০ টাকা বেশি দেখানো হয়েছে এর ভুল সংশোধনী দাখিলা কী?

     উত্তর : বিক্রয় হিসাব  ডেবিট ৬০০ টাকা, অনিশ্চিত হিসাব    ক্রেডিট ৬,০০ টাকা।

৭২।  ভাড়া বাবদ প্রদান ১,০০০ টাকা ভাড়া হিসাবে দুইবার ডেবিট করা হয়েছে। এর ভুল সংশোধনী দাখিলা কী?

     উত্তর : অনিশ্চিত হিসাব ডেবিট ১,০০০ টাকা, ভাড়া হিসাব ক্রেডিট ১,০০০ টাকা

৭৩।  ৫০০ টাকার ক্রয়কে ৫০ টাকায় ডেবিট করা হয়েছে। এর ভুল সংশোধনী দাখিলা কী?

     উত্তর : ক্রয় হিসাব ডেবিট ৪৫০ টাকা, অনিশ্চিত হিসাব ক্রেডিট ৪৫০ টাকা।

৭৪।  আসিফের নিকট থেকে ৪০০ টাকার পণ্যফেরত ভুলক্রমে দৈনিক বিক্রয় বইয়ে লিপিবদ্ধ করা হয়েছে। এর ভুল সংশোধনী দাখিলা কী?

     উত্তর : আন্তঃফেরত হিসাব    ডেবিট ৪০০ টাকা, বিক্রয় হিসাব ডেবিট ৪০০ টাকা, আসিফের হিসাব  ক্রেডিট ৮০০ টাকা।

৭৫।  ২,০০০ টাকার বিক্রয়কে ক্রয় বইয়ে লিপিবদ্ধ করা হয়েছে। তবে ক্রেতার হিসাবকে সঠিকভাবে ডেবিট করা হয়েছে। এর ভুল সংশোধনী দাখিলা কী?

     উত্তর : অনিশ্চিত হিসাব ডেবিট ৪,০০০ টাকা, বিক্রয় হিসাব ক্রেডিট ২,০০০ টাকা, ক্রয় হিসাব ক্রেডিট ২,০০০ টাকা।

৭৬।  সমাপনী দাখিলা কী?

     উত্তর : হিসাব বইয়ের নামিক হিসাবসমূহ বন্ধ করে সমন্বিত রেওয়ামিল তৈরি করার জন্য সমাপনী দাখিলা দেওয়া হয়। আর্থিক অবস্থার বিবরণী প্রণয়নের সময় নামিক বা আয়-ব্যয় বাচক হিসাবসমূহের জের বা উদ্বৃত্ত নির্দিষ্ট হিসাবে স্থানান্তরের মাধ্যমে বন্ধ করা হয়। যেসব দাখিলার মাধ্যমে নামিক হিসাবসমূহ বন্ধ করা হয় ওই সব দাখিলাকে সমাপনী দাখিলা বলে।

৭৭। সমাপ্তি দাখিলা কী?

     উত্তর : চূড়ান্ত হিসাব তৈরির সময় ব্যবসায়ের আয় ও ব্যয় সংক্রান্ত হিসাবসমূহের সমষ্টি বা জের প্রকৃত জাবেদার মাধ্যমে আয় বিবরণীতে স্থানান্তর করে উক্ত হিসাবসমূহে সমাপ্তি টানা হয়।

৭৮। ভুল সংশোধনী দাখিলা কী?

     উত্তর : হিসাবে কোনো ভুলত্রুটি দেখা দিলে তা যে দাখিলার মাধ্যমে সমন্বয় করা হয় তাকে ভুল সংশোধনী দাখিলা বলে। উক্ত দাখিলা প্রকৃত জাবেদায় দেখানো হয়।

৭৯। স্থানান্তর দাখিলা কী?

     উত্তর : এক হিসাব থেকে অন্য হিসাবে স্থানান্তরের জন্য যে দাখিলা দেওয়া হয় তাকে স্থানান্তর দাখিলা বলে। এ ধরনের স্থানান্তর দাখিলা প্রকৃত জাবেদায় দেখানো হয়।

৮০। বিলের প্রত্যাখ্যানজনিত দাখিলা কী?

     উত্তর : দেনাদার কর্তৃক প্রদত্ত প্রাপ্য বিল ও পাওনাদারের নিকট ইস্যুকৃত প্রদেয় লেনদেনসমূহ প্রকৃত বা সাধারণ জাবেদায় লেখা হয়।

৮১। পাল্টা দাখিলা/ বিপরীত দাখিলা কী?

     উত্তর : একই হিসাবের একদিক থেকে অন্যদিকে স্থানান্তরের জন্য যে দাখিলা প্রদান করা হয় তাকে পাল্টা দাখিলা বলে। বিগত বছরের সমন্বয়গুলোর চলতি হিসাব বছরে সমাপ্ত করার জন্য বিপরীত দাখিলার প্রয়োজন হয়।

৮২।  ক্ষুদ্র কী?

     উত্তর : অপেক্ষাকৃত ছোট বিষয়কে ক্ষুদ্র বলে। প্রতিষ্ঠানের আকার ছোট হলে তাকে ক্ষুদ্রায়তন প্রতিষ্ঠান বলে।



সাতদিনের সেরা