kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১২ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৪ রবিউস সানি     

জানা-অজানা

ইউফ্রেটিস নদী

[নবম ও দশম শ্রেণির বাংলাদেশের ইতিহাস ও বিশ্বসভ্যতা বইয়ে ইউফ্রেটিস নদীর কথা উল্লেখ আছে]

আব্দুর রাজ্জাক   

৫ জুন, ২০১৮ ০০:০০ | পড়া যাবে ১ মিনিটে



ইউফ্রেটিস নদী

দক্ষিণ-পশ্চিম এশিয়ার একটি নদী ইউফ্রেটিস। এর আরেক নাম ফোরাত। পারস্য শব্দ ‘ইউফ্রেতু’ থেকে নদীটির নামকরণ হয়েছে ইউফ্রেটিস। পূর্ব তুরস্কের উচ্চ ভূমি থেকে উৎপত্তি হয়ে টাইগ্রিস নদীর (দজলা নদী) সঙ্গে মিলে পারস্য উপসাগরে গিয়ে পড়েছে। এই নদী দুটির (ইউফ্রেটিস নদী ও টাইগ্রিস নদী) অববাহিকায় গড়ে উঠেছিল প্রাচীন মেসোপটেমীয় সভ্যতা। প্রাচীন সুমেরীয়, ব্যাবিলনীয় এবং আসিরীয় সভ্যতাগুলোও এখানে বিকাশ লাভ করেছে। নদীটির দৈর্ঘ্য প্রায় ২৮০০ কিলোমিটার। এপ্রিল ও মে মাসে পানির পরিমাণ থাকে বেশি। নদীর তীরঘেঁষা প্রধান শহরগুলোর মধ্যে রয়েছে সিরিয়ার রাক্কা ও দাইর আজ জর, ইরাকের রামাদি। নদীটি অগভীর হওয়ায় ছোট নৌকা ছাড়া অন্য কোনো যান চলাচল করতে পারে না। পানি সরবরাহের জন্যই নদীটি বেশি গুরুত্বপূর্ণ। তুরস্ক, সিরিয়া ও ইরাক সেচকাজ ও পানিবিদ্যুতের কাজে এ নদীর পানি ব্যবহার করে।    

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা