kalerkantho

মঙ্গলবার । ২১ জানুয়ারি ২০২০। ৭ মাঘ ১৪২৬। ২৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

এসএসসি ২০২০

হিসাববিজ্ঞান

লেনদেন নিয়ে কিছু কথা

মো. জামাল হোসেন   

১৪ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৫ মিনিটে



হিসাববিজ্ঞান

হিসাববিজ্ঞান হলো ‘ব্যবসায়ের একটি ভাষা’, যার মাধ্যমে কোনো ব্যক্তি তার প্রতিষ্ঠানের সব আর্থিক লেনদেন হিসাবের বইতে সঠিকভাবে লিখে রাখতে পারে এবং ওই তথ্য থেকে নির্দিষ্ট সময় শেষে আর্থিক লেনদেনের ফলাফল জানতে পারে।

হিসাব বিজ্ঞানে লেনদেন বুঝতে হলে তোমাকে কী করতে হবে? হিসাব সমীকরণের ওপর লেনদেনের প্রভাব কিভাবে সহজে ধরতে পারবে? একজন কবি যেমন নদী নিয়ে কবিতা লেখার সময় কল্পনায় সে ওই নদীর পাড়ে চলে যায় বা মনের চোখ দিয়ে সে নদীর মনোরম দৃশ্য দেখতে পায়, তেমনি তোমাকে হিসাববিজ্ঞান করার সময় কল্পনায় হতে হবে একজন ব্যবসায়ী বা দোকানদার। তোমাকে ভাবতে হবে, তুমি তোমার দোকান বা ব্যাবসা প্রতিষ্ঠানে বসে আছ।

এবার চিন্তা করো দোকান বা ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হিসাব করার সময় কী ঘটে? দেওয়া ও নেওয়া অর্থাৎ গ্রহণ ও প্রদান, তাই তো? এই দেওয়া ও নেওয়া বা গ্রহণ ও প্রদানকে বলে লেনদেন।

লেনদেন তো অনেক রকমের হয়। যেমন—তুমি তোমার বন্ধুকে একটি বই দিলে আর তোমার বন্ধু তোমাকে একটি কমল উপহার দিল। এটি কি লেনদেন নয়? হ্যাঁ, এটিও একটি লেনদেন; কিন্তু হিসাববিজ্ঞানে লেনদেন এমন নয়। তাহলে কেমন হবে হিসাববিজ্ঞানের লেনদেন? ওই ঘটনাকে লেনদেন বলব যখন কোনো আর্থিক ঘটনা ঘটবে অর্থাৎ যদি কোনো আর্থিক ঘটনার দ্বারা দুটি পক্ষ আর্থিকভাবে প্রভাবিত হবে, তখন সেটি হিসাববিজ্ঞানের ভাষায় লেনদেন হবে।

ধরো, তুমি এখন দোকানে বা তোমার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে আছ। এখন খেয়াল করো কী কী লেনদেনের মাধ্যমে তোমার নিকট থেকে অর্থ বা পণ্য বা সম্পদ চলে যাচ্ছে অথবা তোমার নিকট আসছে। মানে গ্রহণ ও প্রদান এ দুটি ঘটনা ঘটছে।

লেনদেনের ফলে হিসাব সমীকরণে সম্পদ, দায় ও মালিকানাস্বত্বের ওপর প্রভাব পড়ে। এই সমীকরণকে A=L+E দিয়ে প্রকাশ করা হয়। এখানে A= Assets (সম্পদ) L= Liabilities (দায়) E= Equity (মালিকানাস্বত্ব)। এবার আমাদের জানা দরকার সম্পদ, দায় ও মালিকানাস্বত্ব কী?

সম্পদ : সম্পদ বলতে বুঝায় অর্থনৈতিক পরিসম্পদ। মানে যা ব্যবসায়ে মালিকের অধীনে থাকে এবং ব্যবসায়ে লাভ বা মুনাফা অর্জনে সাহায্য করে। যেমন—আসবাবপত্র, দালানকোঠা, কলকবজা ইত্যাদি।

দায় : দায় হচ্ছে ব্যবসায়ের আর্থিক দায়বদ্ধতা, যা নির্দিষ্ট সময় পর অবশ্যই পরিশোধ করতে হবে। যেমন—ধরো, কারো কাছ থেকে তোমার ব্যবসায়ের জন্য টাকা ধার নিয়েছ এবং তা এক বছর পর তোমাকে পরিশোধ করতে হবে।

মালিকানাস্বত্ব :  ব্যবসায়ের মোট সম্পদ থেকে দায় বাদ দেওয়ার পর যা থাকে তা-ই মালিকানাস্বত্ব। এই মালিকানাস্বত্বকে আবার চারটি উপাদান প্রভাবিত করে। তা হলো ১. মালিকের বিনিয়োগ, ২. আয়, ৩. উত্তোলন, ৪. ব্যয় বা খরচ।

 

হিসাব সমীকরণে লেনদেনের প্রভাব দেখাও, প্রশ্নে সম্ভাব্য লেনদেনগুলোতে চোখ বুলিয়ে নাও।

১। নগদ ৬০,০০০ টাকা, আসবাবপত্র ১০,০০০ টাকা, ব্যাংক জমা ২০,০০০ টাকা ও ব্যাংকঋণ ২০,০০০ টাকা নিয়ে ব্যাবসায় শুরু করলেন।

২। পণ্য ক্রয় ৩০,০০০ টাকা, যার মধ্যে নগদ ২০,০০০ টাকা, চেকে ৫০০০ টাকা এবং অবশিষ্ট ধারে।

৩। পণ্য বিক্রয় ৫০,০০০ টাকা, যার মধ্যে নগদ ৩০,০০০ টাকা, চেকে ১০,০০০ টাকা এবং অবশিষ্ট ধারে।

৪। ব্যাংকঋণ পরিশোধ করেন ১৫,০০০ টাকা।

৫। পণ্য বিক্রয় ১০,০০০ টাকা এবং কারবারি বাট্টা ১০%।

৬। বিনিয়োগের সুদ ৫,০০০ টাকা। ঋণের সুদ ২,০০০ টাকা।

৭। আসবাবপত্র/কলকবজা/দালানকোঠা ইত্যাদির অবচয় ৩,০০০ টাকা।

৮। ভাড়া ২,০০০ টাকা, বেতন ৫,০০০ টাকা, বিদ্যুৎ ১,০০০ টাকা, বিজ্ঞাপনের জন্য ২,০০০ টাকা খরচ করা হলো।

৯। প্রাপ্য হিসাবের ৫,০০০ টাকা এবং প্রদেয় হিসাবের ২,০০০ টাকা পরিশোধ করা হলো।

১০। ধারে ক্রয়কৃত ১,০০০ টাকার পণ্য ফেরত দেওয়া হলো।

১১। ধারে বিক্রয়কৃত ১,০০০ টাকার পণ্য ফেরত এলো।

১২। মনিহারি ক্রয় করা হলো ১,০০০ টাকা।

১৩। ক্যাশ থেকে ১,০০০ টাকা চুরি হয়েছে।

১৪। ২,০০০ টাকার পণ্য নষ্ট হয়েছে।

১৫। ৫,০০০ টাকার মেশিন ক্রয় করা হয়েছে, যার সংস্থাপন ব্যয় ৫০০ টাকা এবং পরিবহন খরচ ৫০০ টাকা।

১৬। কমিশনপ্রাপ্তি ১,০০০ টাকা।

১৭। জীবন বীমা প্রিমিয়াম প্রদান ১,৫০০ টাকা।

১৮। ব্যক্তিগত প্রয়োজনে উত্তোলন নগদে ১,০০০ টাকা এবং পণ্য ৫০০ টাকা।

১৯। আয়কর প্রদান করা হলো ৫,০০০ টাকা।

২০। বাট্টাপ্রাপ্তি ১,০০০ টাকা, প্রদান ৫০০ টাকা।

 

লেনদেন নয় এমন কিছু ঘটনা এর সঙ্গে দিয়ে দেবে। নিচে লেনদেন নয় এমন ঘটনা দেওয়া হলো।

১। মালিকের ব্যক্তিগত তহবিল থেকে ২,০০০ টাকা হারিয়ে গেছে।

২। ব্যক্তিগত তহবিল থেকে ২০,০০০ টাকা দিয়ে ছেলের জন্য একটি ল্যাপটপ ক্রয়।

৩। ১০,০০০ টাকার পণ্য ক্রয়ের সিদ্ধান্ত গ্রহণ।

৪। ৫০,০০০ টাকার পণ্য ক্রয়ের ফরমায়েশ প্রদান।

৫। ৫,০০০ টাকায় কর্মী নিয়োগ।

৬। ১০,০০০ টাকা পণ্য ক্রয়ের জন্য চুক্তিবদ্ধ হলেন।

৭। দক্ষ কর্মী মারা গেলেন।

৮। অফিসের জন্য ৮,০০০ টাকার একটি আলমারির অর্ডার দেওয়া হলো।

৯। ব্যক্তিগত প্রয়োজনে ব্যাংক থেকে ঋণ গ্রহণ ২০,০০০ টাকা।

১০। মালিকের ব্যক্তিগত গাড়ি চুরি হয়েছে, যার মূল্য ২০,০০,০০০ টাকা।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা