kalerkantho

সোমবার । ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ৩০ নভেম্বর ২০২০। ১৪ রবিউস সানি ১৪৪২

জেকেজির সাবরিনা-আরিফের বিরুদ্ধে সাক্ষ্যগ্রহণ হয়নি

নিজস্ব প্রতিবেদক    

২১ অক্টোবর, ২০২০ ১৬:০৩ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



জেকেজির সাবরিনা-আরিফের বিরুদ্ধে সাক্ষ্যগ্রহণ হয়নি

করোনার ভুয়া রিপোর্ট দেওয়ার অভিযোগে প্রতারণার মামলায় আদালতে সাক্ষী উপস্থিত না হওয়ায় জেকেজি হেলথকেয়ারের চেয়ারম্যান ডা. সাবরিনা চৌধুরী ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) আরিফুল হক চৌধুরীসহ আট জনের বিরুদ্ধে সাক্ষ্যগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়নি। আজ বুধবার ঢাকা মহানগর হাকিম মো. সারাফুজ্জামান আনছারীর আদালত সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য আগামী ৩ নভেম্বর দিন ধার্য করেছেন।

এদিন মামলাটির সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য দিন ধার্য ছিল। কিন্তু সাক্ষী আদালতে হাজির না হওয়ায় রাষ্ট্রপক্ষ সময়ের আবেদন করেন। অবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আদালত পরবর্তী সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য নতুন করে এ দিন ধার্য করেন। একইসঙ্গে সাক্ষী কেন উপস্থিত হয়নি সেজন্য শুলশান ও খিলগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার (ওসি) কাছে ব্যাখ্যা চেয়েছেন আদালত। মামলাটিতে ৪০ জন সাক্ষীর মধ্যে ৬ জনের সাক্ষ্য শেষ হয়েছে।

এ মামলায় অন্য আসামিরা হলেন আবু সাঈদ চৌধুরী, হুমায়ূন কবির হিমু, তানজিলা পাটোয়ারী, বিপ্লব দাস, শফিকুল ইসলাম রোমিও ও জেবুন্নেসা।

গত ২৩ জুন সাবরিনার স্বামী আরিফ চৌধুরীসহ ৬ জনকে গ্রেপ্তার করে তেজগাঁও থানা পুলিশ।  গত ১২ জুলাই দুপুরে সাবরিনাকে তেজগাঁও বিভাগীয় উপ-পুলিশ (ডিসি) কার্যালয়ে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় সাবরিনাকে। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাকে তেজগাঁও থানায় করা মামলায় গ্রেপ্তার দেখায় পুলিশ।

জেকেজি হেলথ কেয়ার থেকে ২৭ হাজার রোগীকে করোনা টেস্টের রিপোর্ট দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে ১১ হাজার ৫৪০ জনের করোনার নমুনা আইইডিসিআরের মাধ্যমে সঠিক পরীক্ষা করানো হয়েছিল। বাকি ১৫ হাজার ৪৬০ জনের ভুয়া রিপোর্ট তৈরি করা হয়, যা জব্দ করা ল্যাপটপে পাওয়া গেছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা