kalerkantho

শনিবার । ৩ ডিসেম্বর ২০২২ । ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ । ৮ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

সন্তান খর্বকায় হবে কি না কিভাবে বুঝবেন

অধ্যাপক ডা. ইন্দ্রজিৎ প্রসাদ   

২০ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ১৬:৩০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



সন্তান খর্বকায় হবে কি না কিভাবে বুঝবেন

আমার সন্তান স্বাভাবিকের চেয়ে খাটো হলে আমি কিভাবে বুঝব?
আপনার সন্তানের ডাক্তার আপনাকে বলবেন। তারা আপনার সন্তানের উচ্চতা পরিমাপ করবেন। তারপর তারা আপনার সন্তানের উচ্চতাকে অন্যান্য শিশুর উচ্চতার সাথে তুলনা করবেন, যারা একই বয়সের। যদি আপনার শিশু একই বয়সী এবং লিঙ্গের অন্য শিশুদের তুলনায় অনেক খাটো হয় তবে তাদের খর্বকায় বা শর্ট স্ট্যাচার বলে।

বিজ্ঞাপন

শিশু বছরে পাঁচ সেন্টিমিটারের চেয়ে কম বাড়লে পরিশেষে খাটো হওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

ডাক্তার বা নার্স প্রতিবার আপনার সন্তানের উচ্চতা পরিমাপ করবেন। এইভাবে তারা তাদের অগ্রগতি ট্র্যাক করে সময়ের সাথে সাথে আপনার সন্তানের বৃদ্ধি অনুসরণ করতে থাকবেন।

সাধারণত শিশুরা জীবনের প্রথম দুই বছরে অনেক বেড়ে যায়। তারপর বয়ঃসন্ধির মধ্য দিয়ে না যাওয়া পর্যন্ত তাদের বৃদ্ধি ধীর হয়ে যায়। বয়ঃসন্ধির সময় শিশুরা অল্প সময়ের মধ্যে অনেক বেড়ে যায়। একে বলা হয় ‘গ্রোথ স্পার্ট’।

যদি আমার সন্তান ছোট হয়, তার মানে কি তার কোনো রোগ আছে?
সম্ভবত না। খাটো অনেক শিশু সুস্থ এবং তাদের কোনো রোগ নেই।  

শিশুদের লম্বা না হওয়ার কারণ
● তাদের পিতা-মাতার একজন বা উভয়ই খাটো
● তারা স্বাভাবিকের চেয়ে ধীরে ধীরে বেড়ে উঠছে। একে ‘বৃদ্ধি বিলম্ব’ বলে।  
● কোনো নির্দিষ্ট কারণ খুঁজে না পাওয়া গেলে  এটিকে  ‘অজানা কারণে ছোট আকার’ বা ইডিওপ্যাথিক শর্ট স্ট্যাচার বলা হয়। কখনো কখনো কোনো রোগের কারণে বাচ্চারা খাটো হয়। যেমন পুষ্টিহীনতা, থাইরয়েড হরমোনের অভাব ইত্যাদি।  
● দীর্ঘমেদি রোগ যা পরিপাকতন্ত্র, হৃৎপিণ্ড, ফুসফুস, কিডনি বা রক্তকে প্রভাবিত করে
● ‘গ্রোথ হরমোন ডেফিসিয়েন্সি’ নামক একটি অবস্থা―এই অবস্থার লোকদের শরীরে খুব কম গ্রোথ হরমোন থাকে। গ্রোথ হরমোন হলো মস্তিষ্কের গোড়ায় অবস্থিত একটি গ্রন্থী দ্বারা তৈরি একটি পদার্থ। এই গ্রন্থীকে বলা হয় পিটুইটারি গ্রন্থী। শিশুদের স্বাভাবিকভাবে বেড়ে উঠতে গ্রোথ হরমোনের প্রয়োজন হয়।
● জেনেটিক রোগ

আমার সন্তানের কি পরীক্ষা লাগবে?
ডাক্তার জানতে চাইবেন কেন আপনার সন্তান স্বাভাবিকের চেয়ে ছোট। তারা আপনার সাথে কথা বলবেন এবং পরিবারের অন্য সদস্যদের বৃদ্ধি এবং উচ্চতা সম্পর্কে জিজ্ঞেস করবেন।  
● রক্ত পরীক্ষা―ডাক্তার গ্রোথ হরমোনের ঘাটতিসহ বিভিন্ন অবস্থার জন্য পরীক্ষা করতে পারেন।
● আপনার সন্তানের হাত এবং কব্জির  এক্স-রে―ডাক্তাররা এই এক্স-রে ব্যবহার করে অনুমান করতে পারেন যে আপনার সন্তান কতটা লম্বা হবে।

আমার সন্তানের কি চিকিৎসা লাগবে?
এটা নির্ভর করে আপনার সন্তান কেন ছোট তার ওপর। যদি আপনার শিশু কোনো  রোগের কারণে ছোট হয়, তাহলে তাদের ডাক্তার হয়তো এটির চিকিৎসা করতে সক্ষম হবেন।

ডাক্তাররা বাচ্চাদের গ্রোথ হরমোন দিয়ে গ্রোথ হরমোনের ঘাটতির চিকিৎসা করেন। কখনো কখনো তারা নির্দিষ্ট দীর্ঘমেয়াদি চিকিৎসা অবস্থার কারণে স্বাভাবিকভাবে বেড়ে উঠছে না এমন শিশুদের চিকির জন্য গ্রোথ হরমোনও ব্যবহার করে।  

গ্রোথ হরমোনের ঘাটতি ছাড়াই কি শিশুদের জন্য গ্রোথ হরমোন ট্রিটমেন্ট ব্যবহার করা হয়?
কখনো কখনো ‘ইডিওপ্যাথিক ছোট আকারের’ শিশুদের জন্য গ্রোথ হরমোন চিকিৎসার ব্যবহার করা হয়। কোনো কোনো পরিবার এই চিকিৎসা বেছে নেয়।

আমার সন্তানকে সাহায্য করার জন্য আমি কি নিজে থেকে কিছু করতে পারি?
হ্যাঁ, আপনি করতে পারেন।
● আপনার শিশুর জন্য পর্যাপ্ত , সুষম এবং স্বাস্থ্যকর খাবার নিশ্চিত করুন
● শিশুকে খেলাধুলা করতে উৎসাহিত করুন
● শিশুকে মানসিক ভাবে চাঙ্গা রাখুন

লেখক : বিভাগীয় প্রধান, ডায়াবেটিস, থাইরয়েড ও হরমোন রোগ বিভাগ
ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতাল



সাতদিনের সেরা