kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২১ শ্রাবণ ১৪২৮। ৫ আগস্ট ২০২১। ২৫ জিলহজ ১৪৪২

পানির নিচে বাঁধা ছিল লাশ, ভাসল শুধু পা

বামনা (বরগুনা) প্রতিনিধি   

১৩ জুন, ২০২১ ১৮:৩৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পানির নিচে বাঁধা ছিল লাশ, ভাসল শুধু পা

প্রতীকী ছবি।

তিন দিন নিখোঁজ থাকার পর নিজ বাড়ির পুকুরে ঘাটলার সঙ্গে বাঁধা অবস্থায় মো. কবির হোসেন (৪০) নামে একজনের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তিনি বরগুনার বামনা উপজেলার দক্ষিন কালাইয়া গ্রামের মৃত খালেক হাওলাদারের ছেলে। 

আজ রবিবার সকাল ৯টায় তার মরদেহ পুকুরে ভাসতে দেখতে পায় পরিবারের লোকজন। পরে পুলিশ এসে লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বরগুনা মর্গে পাঠান।

বামনা থানার ওসি (তদন্ত) মো. আবুল হোসেন শরিফ জানান, লাশটির পা ভাসমান অবস্থায় পাওয়া গেছে এবং তার গলা পুকুরের পানির নিচে একটি ঘাটলার সঙ্গে বাঁধা অবস্থায় ছিলো।

নিহতের স্ত্রী তাসলিমা বেগম জানান, তার স্বামী গত শুক্রবার সকাল ৯টার দিকে বাসা থেকে বের হয়ে যায়। এরপর তিনি বাড়িতে না আসলে পরিবারের লোকজন আত্মীয় স্বজনের বাড়িসহ বিভিন্নস্থানে খোঁজাখুঁজি করেও তাকে পাওয়া যায়নি। আজ সকালে তার লাশ পুকুরে ভাসতে দেখেন বাড়ির লোকজন।

বামনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. বশির আলম বলেন, আমরা খবর পেয়ে পুকুর থেকে লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বরগুনা মর্গে পাঠিয়ে দিয়েছি। তবে পরিবারের পক্ষে কেউ এখন পর্যন্ত থানায় কোনো অভিযোগ দায়ের করেননি। পরিবার অভিযোগ না করলে আমরা ময়নাতদন্তের ফলাফল পাওয়ার পরে আইনানুগ ব্যবস্থাগ্রহণ করবো।  



সাতদিনের সেরা