kalerkantho

শনিবার । ৮ কার্তিক ১৪২৭। ২৪ অক্টোবর ২০২০। ৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

টাকা না দেওয়ায় সনদ দিচ্ছেন না প্রধান শিক্ষক

ভাঙ্গুড়া (পাবনা) প্রতিনিধি   

২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ২০:৩৪ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



টাকা না দেওয়ায় সনদ দিচ্ছেন না প্রধান শিক্ষক

পাবনার ভাঙ্গুড়া উপজেলার দিলপাশার ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষককে টাকা না দেওয়ায় ২০১৯ সালের এসএসসি পরীক্ষায় পাস করা শিক্ষার্থীদের সনদ আটকে রাখার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এতে পাঁচজন শিক্ষার্থী বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আফসার আলী রানার বিরুদ্ধে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ২০১৯ সালে ওই বিদ্যালয় থেকে অর্ধশতাধিক শিক্ষার্থী এসএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়। সেসময় প্রধান শিক্ষক আফছার আলী রানা নম্বরপত্র দিতে প্রত্যেক শিক্ষার্থীর কাছ থেকে ২০০ টাকা করে আদায় করেন। এই নম্বরপত্র দিয়ে শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন কলেজে ভর্তি হয়। তবে শিক্ষার্থীদেরকে টাকা নেওয়ার বিষয়টি গোপন রাখতে বলেন ওই প্রধান শিক্ষক। পরবর্তী সুরুজ, মেহেদী, স্বাধীন, রমজান ও রাজীবসহ কয়েকজন শিক্ষার্থী টাকা নেওয়ার বিষয়টি প্রকাশ করে দেন। এতে প্রধান শিক্ষক ওই শিক্ষার্থীদের ওপর ক্ষিপ্ত হন। এরপর এ বছরের জুন মাসে রাজশাহী শিক্ষা বোর্ড থেকে ২০১৯ সালের এসএসসি পরীক্ষার মূল সনদ বিদ্যালয়ে আসে। এরপর থেকেই ওই শিক্ষার্থীরা বিদ্যালয়ে সনদ চাইতে গেলে টাকা নেওয়ার বিষয়টি প্রকাশ করায় প্রধান শিক্ষক গত তিন মাস ধরে সনদ না দিয়ে নানা টালবাহানা করতে থাকেন। ফলে বাধ্য হয়ে এসব শিক্ষার্থীরা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে সনদ পাওয়ার ব্যবস্থা করতে লিখিত আবেদন করেন।

অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে আফসার আলী রানা বলেন, আমার বিরুদ্ধে অভিযোগ দিয়ে কোনো লাভ নেই। অভিযোগকারী শিক্ষার্থীরা আমার কিছুই করতে পারবে না।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দ আশরাফুজ্জামান বলেন, এ বিষয়ে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তাকে শিক্ষার্থীদের সনদ পাইয়ে দেওয়ায় ব্যবস্থা করতে বলেছি। এরপর ও প্রধান শিক্ষক সনদ না দিলে তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা