kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৬ আগস্ট ২০২২ । ১ ভাদ্র ১৪২৯ । ১৭ মহররম ১৪৪৪

টিভি কেনার আগে

আনিতা জীনাত   

৩ জুলাই, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



টিভি কেনার আগে

কেনার আগে কিছু খুঁটিনাটি তথ্য জেনে নিলে খুঁজে নেওয়া যাবে নিজের পছন্দসই টিভিটি।

 

আকার

এইচডিআর, ফোরকে, ডলবি ভিশন, এলইডি ও কিউএলইডি যে প্রযুক্তিরই কিনুন না কেন, সবার আগে ভাবতে হবে টিভির আকার নিয়ে। ঘরে আনার পর শোরুমের চেয়ে ছোট মনে হতে পারে। তাই টেপ দিয়ে মাপজোখ করে কেনা ভালো।

বিজ্ঞাপন

বসার ঘর বড় হলে ৫৫ ইঞ্চির টিভি কেনাই ভালো। এটি যেকোনো ড্রয়িং রুমেই মানিয়ে যায়।

 

পর্দাতেও আছে পার্থক্য

রেজল্যুশনের ওপর ভিত্তি করে বাজারে এলসিডি (লিকুইড ক্রিস্টাল ডিসপ্লে), এলইডি (লাইট এমিটিং ডায়োড), কিউএলইডি (কোয়ান্টাম ডট লাইট-এমিটিং ডায়োড) ও ওএলইডি (অরগানিক লাইট-এমিটিং ডায়োড) টিভি পাওয়া যায়। উজ্জ্বল ছবি চাইলে কিউএলইডি বেছে নিতে পারেন। ছবি বার্ন হয় না, দাম কম, আবার স্থায়িত্বও বেশি। অন্যদিকে সবচেয়ে ভালো রেজল্যুশন ও সাউন্ড পাওয়া যাবে ওএলইডি টিভিতে। মান ভালো বলে দামও কিছুটা বেশি। কম বাজেট বা মিড রেঞ্জের মধ্যে আছে এলসিডি ও এলইডি। গেম খেলার জন্য এলইডি টিভি ভালো। এলসিডি টিভির উন্নত সংস্করণই এলইডি টিভি। এতে ফ্লুরোসেন্ট আলোর বদলে বিশেষ ধরনের ব্যাকলাইট থাকে, এলইডি টিভি বিদ্যুৎসাশ্রয়ী। ডিসপ্লে ইউনিটের আকার ছোট হয় বলে এলইডির আকার বেশি পাতলা হয়। তবে একবার নষ্ট হলে এলইডি টিভি ঠিক করা বেশ কঠিন। সে তুলনায় এলসিডি টিভি মেরামত করা সহজ।

 

সাউন্ড

ডলবি অ্যাটমোস্ট বা ডিটিএস স্পিকার থাকা মানেই যে সাউন্ডের মান ভালো হবে তা নয়। কেনার আগে অবশ্যই দেখে নিতে হবে এতে সাব উফার বেজ আছে কি না। টিভির কনফিগারেশন ২.১ লেখা থাকলে বুঝে নিতে হবে, এতে দুটি স্পিকার ও একটি বেজ ইউনিট আছে।

দুটি স্পিকারের সঙ্গে সাব উফার থাকলে সাউন্ড অনেক ভালো আসবে। ডলবি অ্যাটমোস্ট বা ডিটিএস না থাকলেও চলবে।

 

অপারেটিং সিস্টেম

ইন্টারনেট চলে এমন টিভিগুলোই ‘স্মার্ট টিভি’ নামে পরিচিত। স্মার্ট টিভিতে ইন্টারনেট যুক্ত করে বিভিন্ন অ্যাপ ইনস্টল করা যায়। ভিন্ন ভিন্ন ব্র্যান্ডের টিভি, ভিন্ন ভিন্ন অ্যাপ ও সেবা সমর্থন করে। মূলত তিন ধরনের অপারেটিং সিস্টেম আছে স্মার্ট টিভিতে। অ্যানড্রয়েড ছাড়াও আরো দুই ধরনের প্ল্যাটফরম আছে। স্যামসাং টিভি চলে টাইজেন ওএসে এবং লিনাক্সভিত্তিক অপারেটিং সিস্টেম ওয়েবওএস চলে এলজি টিভিতে।

 

রেজল্যুশন

বাজারে এখন ৮কে রেজল্যুশনের টিভি পাওয়া গেলেও ৮কে প্রযুক্তিতে বানানো কনটেন্টের সংখ্যা খুবই কম। তাই পয়সা উসুল করতে এইচডি বা ইউএইচডি (৪কে) টিভির মধ্যে যেকোনো একটা বেছে নেওয়া ভালো। মনে রাখবেন এইচডি টিভির চেয়ে ইউএইচডি টিভির রেজল্যুশন চার গুণ বেশি ভালো। এখনকার বেশির ভাগ টিভিতেই হাই ডাইনামিক রেঞ্জ বা এইচডিআর আছে।

 

পোর্ট

এক্সটার্নাল মিডিয়া ডিভাইস যদি টিভিতে সংযুক্ত করতে চান, তবে অবশ্যই দেখে নেবেন টিভিতে ইউএসবিএ পোর্ট আছে কি না।



সাতদিনের সেরা