kalerkantho

রবিবার । ২৬ মে ২০১৯। ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ২০ রমজান ১৪৪০

দাপট ধরে রাখতে চায় বসুন্ধরা কিংস

রাহেনুর ইসলাম, নীলফামারী থেকে   

১৮ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



দাপট ধরে রাখতে চায় বসুন্ধরা কিংস

আজ নীলফামারীর শেখ কামাল স্টেডিয়ামের প্রথম পর্বের শেষ ম্যাচে চট্টগ্রাম আবাহনীর মুখোমুখি বসুন্ধরা কিংস। ম্যাচ হারলেও প্রিমিয়ার লিগের প্রথম পর্ব শেষে শীর্ষস্থানের মুকুট থাকবে নবাগত দলটির। তবে প্রথম পর্বটা জয় দিয়েই শেষ করতে চান কোচ অস্কার ব্রুজোন, ‘লিগের এখনো অনেক বাকি। আমরা চাই প্রথম পর্বটা জয় দিয়ে শেষ করতে। চট্টগ্রাম আবাহনী ভালো দল। ওদের হারাতে সেরা খেলাটা খেলতে হবে।’

 

দুপুরের কড়া রোদে ঘণ্টা দেড়েক ঘাম ঝরানো। মাঠ ছাড়ার সময় নীলফামারীর শেখ কামাল স্টেডিয়ামের রেলিংয়ে ঝুলছিলেন ড্যানিয়েল কলিনড্রেস। বসুন্ধরা কিংসের এক সতীর্থ ইঙ্গিতে বোঝাচ্ছিলেন, বাংলাদেশে এভাবে দোলাকে ‘দোলনা’ বলে। ভাঙা ভাঙা বাংলায় কোস্টারিকার হয়ে বিশ্বকাপ খেলা কলিনড্রেস জানতে চাইলেন, ‘দো-ল-না!’ উঠল হাসির রোল। ইমন বাবু মজা করলেন, ‘কলিনড্রেস স্প্যানিশ ছাড়া কিছু বোঝে না, বলতেও পারে না। আমরা ইংরেজি না শিখিয়ে তাই কিছু বাংলা শেখাচ্ছি।’ বাংলা যে শিখছেন বোঝা গেল এই বিশ্বকাপার ‘শুব (শুভ) নববশ (নববর্ষ)’ বলার পর!

ভাষাটা না জানলেও বাংলাদেশের ক্লাব ফুটবলের দর্শন ভালো বুঝে গেছেন কলিনড্রেস। তাঁর কাঁধে চেপে প্রিমিয়ার লিগের নবাগত এই দল ১১ ম্যাচ শেষে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে। আজ নীলফামারীর শেখ কামাল স্টেডিয়ামের প্রথম পর্বের শেষ ম্যাচে চট্টগ্রাম আবাহনীর মুখোমুখি বসুন্ধরা কিংস। ম্যাচ হারলেও প্রিমিয়ার লিগের প্রথম পর্ব শেষে শীর্ষস্থানের মুকুট থাকবে নবাগত দলটির। তবে প্রথম পর্বটা জয় দিয়েই শেষ করতে চান কোচ অস্কার ব্রুজোন, ‘লিগের এখনো অনেক বাকি। আমরা চাই প্রথম পর্বটা জয় দিয়ে শেষ করতে। চট্টগ্রাম আবাহনী ভালো দল। ওদের হারাতে সেরা খেলাটা খেলতে হবে।’

নীলফামারীতে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন আবাহনীকে ৩-০ গোলে বিধ্বস্ত করেছিল বসুন্ধরা কিংস। নিজেদের হোম ভেন্যুতে প্রথম ম্যাচের এমন দাপট ছিল টুর্নামেন্টজুড়ে। নোফেলকে ২-০, রহমতগঞ্জকে ১-০, আরামবাগকে ৩-২, শেখ রাসেলকে ১-০ আর সব শেষ ম্যাচে সাইফ স্পোর্টিংকে এখানে হারিয়েছে ৩-২ গোলে। জয় ছয় ম্যাচের সবগুলোতে। আজ সাত নম্বর ম্যাচে সৌভাগ্যের সপ্তম জয়ের প্রত্যাশায় অস্কার ব্রুজোন, ‘ঘরের মাঠে সবাই জয় নিশ্চিত করতে চায়। আমরাও চাই। লিগের প্রথম পর্বে হারার কল্পনাও করছি না আমরা কেউ।’

প্রিমিয়ার লিগ জুড়ে ১১ ম্যাচে বসুন্ধরা কিংসের গোল ২৩টি, যা দ্বিতীয় সর্বোচ্চ। হজম করেছে ছয়টি। শেখ রাসেলের চারটির পর এটা সবচেয়ে কম গোল হজমের দৃষ্টান্ত। তবে ছয় গোলের চারটিই নিজেদের মাঠে দুই ম্যাচে আরামবাগ ও সাইফ স্পোর্টিংয়ের বিপক্ষে। সব শেষ খেলায় সাইফ স্পোর্টিংই এগিয়ে গিয়েছিল শুরুতে গোল করে। আজ প্রথম পর্বের শেষ ম্যাচে রক্ষণভাগ নিয়ে বাড়তি নজর তাই থাকবে কিংসের।

চট্টগ্রাম আবাহনী ১১ ম্যাচে ১৪ পয়েন্ট নিয়ে রয়েছে সপ্তম স্থানে। এর আসল কারণ ফরোয়ার্ডদের ব্যর্থতা। দলের মূল স্ট্রাইকার নাইজেরিয়ার মাগালান আওয়ালা। স্বাধীনতা কাপে কোনো গোল পাননি তিনি। প্রিমিয়ার লিগের প্রথম ১০ ম্যাচে গোল মাত্র একটি। তবে সব শেষ ম্যাচে সেই ম্যাচে মাগালানের জোড়া গোলে নোফেলের বিপক্ষে তারা জিতেছে ৩-০ ব্যবধানে। অন্য গোলটি নাইমুর রহমান শাহেদের। তাতে জয়ে ফেরে পাঁচ ম্যাচ পর। বসুন্ধরা কিংসের মুখোমুখি হওয়ার আগে এই জয় আত্মবিশ্বাস ফেরাবে নিশ্চয়ই।

চট্টগ্রাম আবাহনীর কোচ জুলফিকার মাহমুদ মিন্টু জানালেন ভালো খেলার প্রত্যয়, ‘আশা করি জিতব। এই ম্যাচ জিতলে সামনের ম্যাচগুলোর জন্য অনুপ্রেরণা মিলবে। আমি খেলোয়াড়ি জীবন থেকেই বিপক্ষ নিয়ে খুব বেশি মাথা ঘামাই না। কোচ হয়েও করছি না। নিজেদের শক্তি কাজে লাগিয়ে সেরাটা খেলব। বসুন্ধরা কিংসের কে বিশ্বকাপ খেলেছে, কে ব্রাজিলিয়ান এসব নিয়ে ভেবে হারার আগে হারতে চাই না।’

চট্টগ্রাম আবাহনী ১১ ম্যাচে মাত্র আট গোল করার পাশাপাশি হজম করেছে আটটি। মানে রক্ষণ শক্তিশালী যথেষ্ট। কোস্টারিকার হয়ে বিশ্বকাপ খেলা ড্যানিয়েল কলিনড্রেস, ছন্দে থাকা মার্কোস ভিনিসিয়াস, কিরগিজস্তানের মিডফিল্ডার বখতিয়ার দুশবেকভের সঙ্গে মতিন মিয়া, মাহবুবুর রহমানদের আক্রমণভাগের সেই দুর্গ ভাঙার সক্ষমতা আছে ভালোভাবে। গতকাল দুপুরে ঘাম ঝরানোর পর সেই প্রত্যয় সবার শরীরে। প্রথম পর্বের শেষ ম্যাচে জয় ছাড়া অন্য ভাবনা নেই কারো।

মন্তব্য