kalerkantho

বুধবার । ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ । ১৩ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ১ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

৪০ সেকেন্ডে মোটরসাইকেল চুরি, গ্রেপ্তার ১০

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১১ আগস্ট, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মোটরসাইকেল চুরি করে বিক্রি করা দুটি চক্রের ১০ সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি)। এর মধ্যে চোরাই মোটরসাইকেল বিক্রি চক্রের তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে ডিএমপির উত্তরা বিভাগ। মোটরসাইকেল চোর চক্রের সাত সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে লালবাগ বিভাগ।

তদন্ত সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা বলছেন, চোর চক্রের সদস্যরা নকল চাবির মাধ্যমে বেশ কয়েক বছর ধরে মোটরসাইকেল চুরি করে আসছিল।

বিজ্ঞাপন

মাত্র ৪০ থেকে ৫০ সেকেন্ডের মধ্যে মোটরসাইকেল চুরি করতে পারে তারা। চোরাই মোটরসাইকেল বিক্রি চক্রের সদস্যরা সীমান্ত থেকে কুরিয়ারের মাধ্যমে রাজধানীতে বিভিন্ন ব্র্যান্ডের মোটরসাইকেল নিয়ে আসত।

গতকাল বুধবার ডিএমপির লালবাগ বিভাগের উপকমিশনার (ডিসি) মো. জাফর হোসেন নিজ কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, গত মাসের ২৪ জুলাই লালবাগ কেল্লার সামনে থেকে এক এনএসআই কর্মকর্তার মোটরসাইকেল চুরি হয়। লালবাগ থানায় চুরির অভিযোগ দায়ের করলে শুরু হয় তদন্ত কার্যক্রম। প্রথমে মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলা থেকে চোর চক্রের দুজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। তাদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে শরীয়তপুর ও মুন্সীগঞ্জ থেকে চক্রের বাকিদের গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলো চক্রের হোতা সোহেল এবং তার সহযোগী সুনীল, হুমায়ুন, হৃদয়, আওয়াল ও স্বাধীন। এ সময় তাদের কাছ থেকে চুরি করা ১০টি মোটরসাইকেল ও চুরিতে ব্যবহৃত বেশ কিছু নকল চাবি উদ্ধার করা হয়।

ডিসি জাফর হোসেন আরো জানান, যেসব মোটরসাইকেলে অতিরিক্ত লক দেওয়া থাকে না এবং দুর্বল লক, সেগুলো টার্গেট করত চক্রটি। এরপর চক্রটি তাদের কাছে থাকা নকল চাবি দিয়ে ৪০ থেকে ৫০ সেকেন্ডের মধ্যে মোটরসাইকেল চুরি করে পালিয়ে যেত। পরে ৩০ থেকে ৫০ হাজার টাকায় এসব মোটরসাইকেল বিক্রি করত।

পুলিশের এই কর্মকর্তা আরো বলেন, চোর চক্রের অন্যতম হোতা সোহেল গত পাঁচ থেকে ছয় বছর ধরে মোটরসাইকেল চুরি করে আসছিল।



সাতদিনের সেরা