kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৩০ জুন ২০২২ । ১৬ আষাঢ় ১৪২৯ । ২৯ জিলকদ ১৪৪৩

পুলিশের বিরুদ্ধে বাদীর সই জাল করার অভিযোগ

সোনারগাঁ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি   

৫ জানুয়ারি, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার মারবদী গ্রামের চাঞ্চল্যকর নয়ন মিয়া হত্যা মামলার আসামিদের ফাঁসি দাবি এবং মামলাকে ভিন্ন খাতে নেওয়ার অভিযোগে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করেছে এলাকাবাসী।

মানববন্ধনে নয়ন মিয়ার বাবা আলম ব্যাপারী বলেন, ‘সনমান্দী ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) ৪ নম্বর ওয়ার্ডের নবনির্বাচিত সদস্য দেলোয়ার হোসেনের পক্ষে নির্বাচনের সময় কাজ না করায় দেলোয়ার ও তাঁর সহযোগীরা আমার ছেলে নয়নকে ৩১ ডিসেম্বর রাতে বাড়ি থেকে ধরে নিয়ে টেঁটাবিদ্ধ ও লাঠি দিয়ে পিটিয়ে হত্যা করে সড়কের পাশে ফেলে যায়। পরে সোনারগাঁ থানার পুলিশ আমার দেওয়া মামলা (এজাহার) পরিবর্তন করে আমার সই জাল করে মামলাটি ভিন্ন খাতে নিতে দায়সারাভাবে একটি এজাহার গ্রহণ করে। আদালত থেকে মামলার কপি পাওয়ার পর বিষয়টি আমার নজরে আসে।

বিজ্ঞাপন

আমরা জানতে পেরেছি, পুলিশের ঢাকা রেঞ্জে কর্মরত পুলিশ সুপার (এসপি) নাবিলা জাফরিন রীনা মামলার প্রধান আসামি দেলোয়ার হোসেনের নিকট আত্মীয়। এ কারণে ওই এসপির নির্দেশে থানার পুলিশ আমার সই জাল করে দায়সারাভাবে একটি এজাহার গ্রহণ করেছে। বিষয়টি আমি লিখিতভাবে নারায়ণগঞ্জের পুলিশ সুপারকে জানিয়েছি। মামলাটি জেলা গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) মাধ্যমে তদন্ত করার অনুরোধ জানিয়েছি। ’

অভিযোগের ব্যাপারে জানতে চাইলে ঢাকা রেঞ্জের পুলিশ সুপার (ট্রেনিং অ্যান্ড মিডিয়া) নাবিলা জাফরিন রীনা বলেন, ‘আমার বিরুদ্ধে মামলার বাদীপক্ষের অভিযোগ সত্য নয়। আমি এ ব্যাপারে কোনো হস্তক্ষেপ করিনি। আমি চাই প্রকৃত অপরাধীদের শাস্তি হোক। ’

তদন্তকারী কর্মকর্তা সোনারগাঁ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) শফিকুল ইসলাম জানান, থানার পুলিশ বাদীর সই জাল করার সঙ্গে জড়িত নয়। পুলিশ ঘটনার পরদিন মামলার প্রধান আসামি নবনির্বাচিত ইউপি সদস্য দেলোয়ার হোসেনকে গ্রেপ্তার করে পাঁচ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠিয়েছে। তিনি কারাগারে আছেন। হত্যায় জড়িত বাকি আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।



সাতদিনের সেরা