kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৬ মাঘ ১৪২৮। ২০ জানুয়ারি ২০২২। ১৬ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

কুপিয়ে হত্যার পর পা কেটে নিয়ে গেল প্রতিপক্ষ

শিবচর (মাদারীপুর) প্রতিনিধি   

২৪ নভেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কুপিয়ে হত্যার পর পা কেটে নিয়ে গেল প্রতিপক্ষ

মাদারীপুরের শিবচরে দাদন চৌকিদারকে হারিয়ে কাঁদছে স্বজনরা; (ইনসেটে) দাদন। ছবি : কালের কণ্ঠ

মাদারীপুরের শিবচরে দাদন চৌকিদার নামের (৪০) এক দিনমজুরকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে গতকাল মঙ্গলবার প্রতিপক্ষের লোকজন হত্যার পর তাঁর বাঁ পা কেটে নিয়ে যায় বলে অভিযোগ উঠেছে।

পুলিশ ও নিহত দাদন চৌকিদারের পারিবারের সদস্যদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, শিবচর পৌরসভার ৮ নম্বর ওয়ার্ডের পূর্ব শ্যামাইল গ্রামের দিনমজুর দাদন চৌকিদারের সঙ্গে প্রতিবেশী শাহ আলম শেখের জমি নিয়ে বিরোধ ছিল। এ বিরোধের জেরে গত বছর উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছিল। কয়েক দিন আগে শাহ আলম শেখের অনুসারী পটু ফকিরের একটি জমি নিয়ে দাদন চৌকিদারের বিরোধ বাধে। গতকাল দুপুরে দাদন চৌকিদার শিবচর বাজার থেকে ইজিবাইকে করে বাড়ি ফিরছিলেন। সেলিম শেখের বাড়ির সামনে পৌঁছার পর সেলিম শেখ, নজরুল শেখসহ ১৫ থেকে ২০ জনের একটি দল তাঁর পথরোধ করে দেশীয় ধারালো অস্ত্র দিয়ে দাদন চৌকিদারকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে আহত করে এবং দেহ থেকে তাঁর বাঁ পা বিচ্ছিন্ন করে নিয়ে যায়। স্থানীয় লোকজন তাঁকে মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করে প্রথমে শিবচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নেওয়ার পথে বিকেলে তাঁর মৃত্যু হয়। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে এলাকায় অতিরিক্ত পলিশ মোতায়েন করেছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মাদারীপুর সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে।

স্থানীয় বাসিন্দা খালেক কাজী বলেন, ‘দাদন চৌকিদারের সঙ্গে সেলিম শেখের আগে থেকেই জমি নিয়ে বিরোধ ছিল। সেলিম শেখ ও তাঁর ছেলেরা মিলে দাদন চৌকিদারকে হত্যা করেছেন। আমরা এ ঘটনার বিচার চাই।’

শিবচর থানার ওসি মিরাজ হোসেন বলেন, উভয় পক্ষের দ্বন্দ্ব দীর্ঘদিনের। গত বছর উভয় পক্ষের সংঘর্ষের ঘটনায় মামলাও হয়েছিল। সে ঘটনায় দাদনও আসামি। সম্প্রতি একটি জমি ভোগদখল নিয়ে বিরোধ আরো চাঙ্গা হয়। এ ঘটনার সূত্র ধরেই এ হত্যাকাণ্ড ঘটেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এলাকার পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত ব্যক্তিদের আটক করতে অভিযান চলছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।



সাতদিনের সেরা