kalerkantho

সোমবার । ১১ শ্রাবণ ১৪২৮। ২৬ জুলাই ২০২১। ১৫ জিলহজ ১৪৪২

লাশ গুমের মামলার ৭ মাস পর সন্ধান গৃহবধূর!

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি   

১ জুন, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ১ মিনিটে



লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে হত্যা করে লাশ গুমের অভিযোগে মামলা দায়েরের সাত মাস পর গৃহবধূ ইয়াসমিন আক্তার বীথির সন্ধান পাওয়া গেছে। ঢাকার সাভারের নবীনগর এলাকায় তাঁর সন্ধান পায় পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)।

গতকাল সোমবার (৩১ মে) সন্ধ্যায় মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও পিবিআই নোয়াখালী কার্যালয়ের উপপরিদর্শক (এসআই) ফরিদ উদ্দিন জানান, বীথিকে সাভার থেকে নিয়ে এসে গত রবিবার বিকেলে লক্ষ্মীপুর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করা হয়। তিনি ম্যাজিস্ট্রেট জুয়েল দেবের আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছেন। পরে তাঁকে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

বীথি রায়পুর উপজেলার চরপাতা গ্রামের ওমানপ্রবাসী আবদুর রবের স্ত্রী। তাঁদের দুই বছরের একটি সন্তান আছে। পিবিআই সূত্র জানায়, নবীনগর এলাকায় একটি কল সেন্টারে কাজ করতেন বীথি।

গত বছরের ১৯ নভেম্বর বীথির বাবা বাবুল মিয়া আদালতে লাশ গুমের অভিযোগে মামলা করেন। আদালত নোয়াখালী পিবিআইকে তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন।



সাতদিনের সেরা