kalerkantho

বুধবার । ১ বৈশাখ ১৪২৮। ১৪ এপ্রিল ২০২১। ১ রমজান ১৪৪২

জাটকা রক্ষায় সরকারের কর্মসূচি

নদীতে মাছ ধরা বন্ধ থাকবে দুই মাস চিন্তায় জেলেরা

চাঁদপুর প্রতিনিধি   

২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



জাটকা সংরক্ষণে চাঁদপুরের পদ্মা, মেঘনাসহ দেশের ছয়টি অভয়াশ্রমে সব ধরনের মাছ ধরা নিষিদ্ধ হচ্ছে। আগামী ১ মার্চ থেকে ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত দুই মাস সরকার এমন কর্মসূচি পালন করতে যাচ্ছে। ফলে চাঁদপুর জেলার সরকারি তালিকায় থাকা ৫২ হাজার জেলে বেকার হয়ে পড়বেন। এ পরিস্থিতিতে জেলে পরিবারের জীবন যাপনের মান নিয়ে নানা প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। এদিকে নিষিদ্ধ সময়ে জেলেদের জাল, নৌকা নিয়ে নদীতে না নামতে চাঁদপুরে গতকাল শনিবার থেকে ব্যাপক প্রচার শুরু করেছে জাটকা সংরক্ষণ বিষয়ক টাস্কফোর্স।

চাঁদপুর সদর উপজেলার হরিণাঘাটের জেলে মিজান গাজী (৫৫)। মেঘনা নদীতে মাছ ধরেই জীবিকা নির্বাহ করেন। সাত সদস্যের পরিবারে তিনিই একমাত্র উপার্জনক্ষম। অন্যের নৌকায় কাজ করেন মিজান। তবে আগামী দুই মাসের জন্য মাছ ধরা নিষিদ্ধ হওয়ায় তিনি দুশ্চিন্তায় পড়েছেন। অবশ্য এই দুই মাসে ৪০ কেজি করে ৮০ কেজি চাল সরকারি খাদ্য সহায়তা হিসেবে পাবেন তিনি—সেই আশ্বাস পেয়েছেন। কিন্তু রান্নার অন্যান্য উপকরণ কিভাবে জোগাড় হবে, তা নিয়ে চিন্তা আছে। চাঁদপুরের পদ্মা ও মেঘনা নদীতে মাছ ধরে জীবিকা নির্বাহ করেন এমন অসংখ্য জেলের এখন একই ভাবনা।

জেলা মৎস্য কর্মকর্তার কার্যালয়ে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, এবার সরকারি তালিকায় থাকা জেলেদের মধ্য থেকে প্রায় ১২ হাজার জন খাদ্য সহায়তা থেকে বাদ পড়েছেন।

মন্তব্য