kalerkantho

রবিবার । ৩ জুলাই ২০২২ । ১৯ আষাঢ় ১৪২৯ । ৩ জিলহজ ১৪৪৩

টিকটক বানাতে গিয়ে নদীতে ঝাঁপ, কিশোরের মৃত্যু

সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি   

২১ মে, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



টিকটক বানাতে গিয়ে নদীতে ঝাঁপ, কিশোরের মৃত্যু

‘আমি মরলে কেউ কাইন্দো না, কেউ তো কারো নয়রে ভাই’—গানটি দিয়ে টিকটক বানাতে গিয়ে ব্রিজের ওপর থেকে নদীতে ঝাঁপ দেয় নীলফামারীর সৈয়দপুরের কিশোর মো. মোস্তাকিম (১৬)।

এলাকাবাসী জানায়, গতকাল শুক্রবার সকাল ৯টার দিকে মোস্তাকিম ও তার বন্ধুরা খড়খড়িয়া নদীর দীঘলডাঙ্গি ব্রিজে গোসল করতে যায়। এ সময় টিকটক বানাতে সে নদীতে ঝাঁপ দেয় এবং তার বন্ধুরা মোবাইলে সেই ভিডিও ধারণ করছিল। এক পর্যায়ে মোস্তাকিমকে আর খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না।

বিজ্ঞাপন

পরে তার বন্ধুরা খোঁজাখুঁজি শুরু করে।

খবর পেয়ে সৈয়দপুর ফায়ার সার্ভিসের একদল সদস্য ঘটনাস্থলে যায়। প্রায় দুই ঘণ্টা খোঁজাখুঁজির পর মোস্তাকিমকে উদ্ধার করা হয়। পরে সৈয়দপুর ১০০ শয্যা হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

সৈয়দপুর ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন ম্যানেজার খুরশিদ আলম বলেন, ‘টিকটক বানাতে নদীতে ঝাঁপ দিলে বালুর সঙ্গে গেঁথে যায় মোস্তাকিম। পরে তাকে কিছুদূরে ভাটি থেকে উদ্ধার করা হয়। ’

জানা গেছে, উপজেলার চার নম্বর বোতলাগাড়ী ইউনিয়নের খোর্দ্দপাড়ার মন্টু মিয়া ও আহেলা খাতুন দম্পতির পুত্র মোস্তাকিম। সাবান তৈরির কারখানার শ্রমিক সে। গতকাল কারখানায় সাপ্তাহিক ছুটি ছিল। এই সুযোগে সে কয়েক জন বন্ধু মিলে টিকটক বানাতে বাড়ির পাশের খড়খড়িয়া নদীর দীঘলডাঙ্গি ব্রিজের ওপর থেকে ঝাঁপ দেয়। মোবাইলে সে ঝাঁপের ভিডিও ধারণ করে তার বন্ধুরা।

সৈয়দপুর থানার ওসি আবুল হাসানাত খান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় থানায় একটি অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা হয়েছে।



সাতদিনের সেরা