kalerkantho

শনিবার । ১১ আশ্বিন ১৪২৭ । ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০। ৮ সফর ১৪৪২

যুক্তরাষ্ট্রে ছয় মাসে নাগরিকত্ব ছাড়লেন ছয় হাজার জন

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১১ আগস্ট, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



যুক্তরাষ্ট্রে ছয় মাসে নাগরিকত্ব ছাড়লেন ছয় হাজার জন

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে চলতি বছরের প্রথম ছয় মাসে রেকর্ড পাঁচ হাজার ৮০০ জন নাগরিকত্ব ছেড়েছেন। গত রবিবার নিউ ইয়র্কভিত্তিক বিশেষায়িত ট্যাক্স ফার্ম ব্যামব্রিজ অ্যাকাউন্ট্যান্টস এই পরিসংখ্যান তুলে ধরেছে। প্রতিষ্ঠানটি জানিয়েছে, এর আগের বছরে ১২ মাসে এই সংখ্যা ছিল দুই হাজার ৭২ জন।

ব্যামব্রিজ অ্যাকাউন্ট্যান্টস যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাষ্ট্রের প্রবাসী, অভিনেতা ও অন্যান্য সৃজনশীল মানুষের ট্যাক্স রিটার্ন জমা দেওয়ার কাজ করে থাকে। ফার্মটি জানিয়েছে, সরকারি তথ্য পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে তারা জানতে পেরেছে যে কোন কোন আমেরিকান নাগরিকত্ব ত্যাগ করেছেন। যুক্তরাষ্ট্র সরকার প্রতি তিন মাস অন্তর এই সম্পর্কিত তথ্য প্রকাশ করে থাকে।

ব্যামব্রিজ অ্যাকাউন্ট্যান্টসের অংশীদার অ্যালিস্টার ব্যামব্রিজ বলেন, ‘এঁরা হলেন সেই সব মানুষ যাঁরা এরই মধ্যে যুক্তরাষ্ট্র ছেড়েছেন এবং সব কিছুই যথেষ্ট পাওয়া হয়ে গেছে বলে ভেবে নিয়েছেন। আমরা দেখছি, প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের আমলে যা ঘটছে, মহামারি যেভাবে সামাল দেওয়া হচ্ছে সেটি নিয়ে এবং এই মুহূর্তে যুক্তরাষ্ট্রের রাজনৈতিক নীতি নিয়ে মানুষ খুব বিরক্ত হয়ে পড়েছে।’

ব্যামব্রিজ বলছে, নাগরিকত্ব ত্যাগকারী অনেকে বর্তমান রাজনৈতিক আবহকে দায়ী করলেও অনেকে আবার বড় কারণ হিসেবে দেখিয়েছেন করের বিষয়টিকে। বিদেশে বসবাসরত যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকদের প্রতিবছর ট্যাক্স রিটার্ন জমা দিতে হয়; ব্যাংক অ্যাকাউন্টস, বিনিয়োগ ও পেনশনের হিসাব দাখিল করতে হয়। এসব নাগরিক প্রণোদনা প্যাকেজের আওতায় এক হাজার ২০০ ডলারের চেক এবং সন্তানপ্রতি ৫০০ ডলারের চেক পাওয়ার অধিকারী থাকলেও করের বার্ষিক প্রতিবেদনটি তাঁদের কাছে বাড়াবাড়িই মনে হয়। যেসব আমেরিকান নাগরিকত্ব ছাড়তে চান তাঁরা যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থান না করে থাকলে যে দেশে রয়েছেন সেখানকার আমেরিকান দূতাবাসে হাজির হয়ে দুই হাজার ৩৫০ ডলার জমা দিতে হয়।

মার্কিন নাগরিকত্ব ছাড়ায় ঝুঁকি থাকলেও এই ধারা সামনের দিনগুলোতে আরো বাড়বে বলে মনে করছেন অ্যালিস্টার ব্যামব্রিজ। তিনি বলেন, ‘অনেক মানুষ আগামী নভেম্বরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের দিকে তাকিয়ে আছে। প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প আবারও নির্বাচিত হলে নাগরিকত্ব ছাড়ার নতুন ঢেউ দেখা দিতে পারে।’ সূত্র : সিএনএন।

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা