kalerkantho

সোমবার  । ১৬ চৈত্র ১৪২৬। ৩০ মার্চ ২০২০। ৪ শাবান ১৪৪১

সবিশেষ

৯ দিনে গলেছে অ্যান্টার্কটিকার ২০% বরফ

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



৯ দিনে গলেছে অ্যান্টার্কটিকার ২০% বরফ

সামনে এলো বিশ্ব উষ্ণায়নের আরো এক ভয়াবহ পরিণতির চিত্র। চলতি মাসের শুরুর দিকে ৯ দিনের তীব্র তাপপ্রবাহে গলদঘর্ম অবস্থা হয়েছে অ্যান্টার্কটিকার উত্তরে। মহাকাশবিষয়ক মার্কিন সংস্থা নাসার সর্বশেষ পাঠানো ছবিতে দেখা গেছে, ৯ দিনে অ্যান্টার্কটিকার বরফের চাদর প্রায় ২০ শতাংশ গলে গেছে।

ছবিতে দেখা গেছে, দ্বীপপুঞ্জের যে জায়গাগুলো বরফের কারণে কোনো সময়ই দেখা যায় না, তা ৯ দিনের তাপপ্রবাহের কারণে উন্মুক্ত হয়ে গেছে। বরফ গলে বেরিয়ে এসেছে টলটলে পানির আস্তরণ।

চলতি মাসের শুরুর দিকে রেকর্ড উষ্ণতম দিনের সাক্ষী হয় অ্যান্টার্কটিকা। তাপমাত্রা পৌঁছে যায় ৬৪.৯ ডিগ্রি ফারেনহাইটে। ওই দিন লসঅ্যাঞ্জেলেসেও একই তাপমাত্রা ছিল।

এই গরমের প্রভাবও পড়েছে যথেষ্ট। নাসার আর্থ অবজারভেটরি জানিয়েছে, মাত্র এক সপ্তাহের কিছু বেশি সময়ের মধ্যেই ইগল আইল্যান্ডের চূড়ার চার ইঞ্চি বরফের আস্তরণ গলে যায়। ম্যাসাচুসেটসের নিকোলস কলেজের অধ্যাপক মৌরী পেলটো অবজারভেটরিকে বলেছেন, ‘অ্যান্টার্কটিকায় এত তাড়াতাড়ি গলে যাওয়া পুকুর কখনো এর আগে দেখিনি। এভাবে বরফ গলে যাওয়ার দৃশ্য আলাস্কা ও গ্রিনল্যান্ডে দেখা গেলেও তা কখনো হয়নি অ্যান্টার্কটিকায়।’

পরিবেশবিজ্ঞানী জেভিয়ার ফেটউইসের মতে, এই গ্রীষ্মে সমুদ্রের পানির স্তর বৃদ্ধিতে সবচেয়ে বেশি প্রভাব ফেলেছে এই তাপপ্রবাহ। বিজ্ঞানীদের মতে, দীর্ঘ সময় ধরে গরমের কারণেই এই পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে। বিশ্বের শীতলতম স্থানে কখনো এমন ঘটনা ঘটতে দেখা যায়নি। সূত্র : এই সময়।

 

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা