kalerkantho

মঙ্গলবার । ৮ আষাঢ় ১৪২৮। ২২ জুন ২০২১। ১০ জিলকদ ১৪৪২

করোনায়ও অদম্য বাংলাদেশ

এই অগ্রযাত্রা অব্যাহত থাক

৭ জুন, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



করোনায় বিপর্যস্ত সারা বিশ্ব। অনেক উন্নত দেশের অর্থনীতিও আজ মন্দার কবলে। অনেক দেশের প্রবৃদ্ধি নেতিবাচক হয়ে গেছে। এমন পরিস্থিতিতেও বাংলাদেশ তার উন্নয়নের গতি ধরে রাখতে পেরেছে। স্বল্পোন্নত থেকে উন্নয়নশীল দেশে রূপান্তরিত হয়েছে। জিডিপির প্রবৃদ্ধিতে ভারতকে পেছনে ফেলেছে। বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ ৪৫ কোটি ডলার ছাড়িয়েছে। মেগাপ্রজেক্টগুলোর কাজ দ্রুত এগিয়ে চলেছে। আর এসবই সম্ভব হয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বের কারণে। তাঁর এমন নেতৃত্বের প্রশংসা করছেন বিশ্বনেতারাও। কমনওয়েলথ মহাসচিব প্যাট্রিসিয়া জ্যানেট বলেছেন, করোনা মহামারি মোকাবেলায় কমনওয়েলথভুক্ত দেশগুলোর সফল তিন নারী নেতার একজন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গত সপ্তাহে আর্চ বিশপ পোপ ফ্রান্সিস বাংলাদেশের অভূতপূর্ব উন্নয়ন অগ্রযাত্রায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদৃষ্টিসম্পন্ন নেতৃত্বের ভূয়সী প্রশংসা করেন। এমন দুর্যোগেও খাদ্যনিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পারায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রশংসা করেছে জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থা (এফএও)। ভারতের দ্য প্রিন্টে প্রকাশিত কলামে বলা হয়েছে, মহামারির এই সংকটময় মুহূর্তে কভিড মোকাবেলায় ভারতকে ত্রাণ ও শ্রীলঙ্কাকে ডলার সহায়তা দেওয়ার মাধ্যমে ক্রমাগ্রসরমাণ বাংলাদেশ তার অর্থনৈতিক সক্ষমতার পরিচয় দিয়েছে।

 

করোনা সংক্রমণের শুরু থেকেই প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে সারা দেশে সাধারণ ছুটিসহ নানা পদক্ষেপ নেওয়া হয়। পর্যায়ক্রমে কঠোর বিধি-নিষেধ আরোপ করা হয়। অনেক দেশ এখনো করোনার টিকা পায়নি, অথচ বাংলাদেশে এরই মধ্যে এক কোটির বেশি ডোজ টিকা দেওয়া হয়ে গেছে। ভারতে উৎপাদিত অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকার সংকট দেখা দেওয়ায় দ্রুত চীন ও রাশিয়া থেকে টিকা সংগ্রহের উদ্যোগ নেওয়া হয়। এরই মধ্যে চীনের দেওয়া টিকার প্রয়োগ শুরু হয়ে গেছে। চলতি মাস থেকেই প্রতি মাসে ৫০ লাখ করে দেড় কোটি ডোজ টিকা আসবে চীন থেকে। দেশে টিকা উৎপাদনের প্রক্রিয়াও এগিয়ে চলেছে। অর্থনীতির চাকা সচল রাখতেও প্রধানমন্ত্রী গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ নেন। ২১টি প্রণোদনা প্যাকেজের মাধ্যমে এক লাখ ২১ হাজার কোটি টাকার ঋণ ও নগদ অর্থ বিতরণ করা হয়। প্রধানমন্ত্রী নিম্ন আয়ের প্রায় ৩৫ লাখ পরিবার এবং প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্ত প্রায় এক লাখ কৃষক পরিবারকে আর্থিক সহায়তার ঘোষণা দেন। আগের অর্থবছরেও ৩৫ লাখ পরিবারকে নগদ সহায়তা দেওয়া হয়।

সঠিক নেতৃত্বই শুধু একটি দেশকে তার সঠিক গন্তব্যে নিয়ে যেতে পারে। সিঙ্গাপুর, মালয়েশিয়াসহ অনেক দেশই তার প্রমাণ। শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বে বাংলাদেশ দ্রুত এগিয়ে চলেছে। আমরা আশা করি, বাংলাদেশের এই অগ্রযাত্রা অব্যাহত থাকবে।