kalerkantho

বুধবার । ২৩ অক্টোবর ২০১৯। ৭ কাতির্ক ১৪২৬। ২৩ সফর ১৪৪১                 

মাদারীপুরে আক্রান্ত ৩০, একদিনে ভর্তি ৭

রাজৈর (মাদারীপুর) প্রতিনিধি   

২ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মাদারীপুরে গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ১১টা পর্যন্ত এক দিনে আরো সাতজন ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী ভর্তি হয়। যা নিয়ে ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল ৩০ জনে। এদের মধ্যে ২৫ জনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় ও ফরিদপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। এর মধ্যে গত বুধবার রাতে ঢাকায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় এক যুবক মারা যান। বর্তমানে সদর হাসপাতালে চারজন এবং শিবচরে একজন ভর্তি আছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জেলা সিভিল সার্জন। ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় জেলার সাধারণ মানুষের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। তবে চিকিৎসকরা বলছেন ভয়ের কিছু নেই। এদিকে গত শুক্রবার ফারুক খান (২২) ও মো. রোমান (২১) নামের যে দুই যুবক জ্বর নিয়ে শিবচর উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি হন, তাঁদের মধ্যে ফারুক খানকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়। সেখানে পাঁচ দিন চিকিৎসা শেষে গত বুধবার সন্ধ্যায় তাঁর মৃত্যু হয়। ফারুক খান শিবচর উপজেলার পুরনো ফেরিঘাট এলাকার সলু বেপারীর কান্দির বাবু খানের ছেলে। তিনি কাঁঠালবাড়ী ফেরিঘাট এলাকার একটি হোটেলে কাজ করতেন। এ ছাড়া বর্তমানে শিবচর উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি মো. রোমান বেপারী ঢাকা থেকে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে বাড়ি আসেন। তিনি শিবচরের পাঁচ্চর ইউনিয়নের বড় বাহাদুরপুর গ্রামের রব বেপারীর ছেলে। ঢাকার পুরানা পল্টন এলাকায় বাংলাদেশ ফটো জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশন কার্যালয়ে অফিস সহকারীর কাজ করেন তিনি। ঢাকায় থাকা অবস্থায় এক সপ্তাহ আগে তিনি ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হন। তখন ঢাকার একটি ক্লিনিকে চিকিৎসা নেন। পরে তিনি ঢাকা থেকে শিবচরের বাড়িতে চলে আসেন। একপর্যায়ে অসুস্থ হয়ে পড়লে সোমবার রাতে তাঁকে উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা