kalerkantho

শনিবার । ১৪ ফাল্গুন ১৪২৭। ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১। ১৪ রজব ১৪৪২

এরদোয়ান ও ম্যাখোঁর চিঠি আদান-প্রদান

অনলাইন ডেস্ক   

১৬ জানুয়ারি, ২০২১ ১৮:০২ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



এরদোয়ান ও ম্যাখোঁর চিঠি আদান-প্রদান

সম্পর্ক উন্নয়নে চিঠির আদান-প্রদানের মাধ্যমে নতুনকরে আলোচনায় বসতে সম্মত হয়েছেন এরদোয়ান ও ম্যাখোঁ। চিঠিতে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইম্যানুয়েল ম্যাখোঁকে নববর্ষের শুভেচ্ছা জানিয়ে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান গত বছর ফ্রান্সে সংঘটিত বেশ কটি হামলার জন্য সমবেদনা প্রকাশ করেন। 

গতকাল শুক্রবার (১৫ জানুয়ারি) দুই রাষ্ট্রপ্রধানের মধ্যে চিঠি আদান-প্রদানের বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নিশ্চিত করেছেন তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত কাভুসোগলু।

তুর্কি পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, ‘চমৎকারভাবে চিঠির জবাব দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ম্যাখোঁ। চিঠির শুরুতেই ‘প্রিয় তাইয়েপ’ লিখে শুরু করেন তিনি।’

ম্যাখোঁর কথা উল্লেখ করে কাভুসোগলু বলেন, ‘তুরস্ক ইউরোপের গুরুত্বপূর্ণ অংশীদার বলে জানিয়েছেন ম্যাখোঁ। তুরস্কের সঙ্গে ইতিবাচক সম্পর্ক গড়ে তুলতে উভয়ের সাক্ষাতের আশা ব্যক্ত করেছেন ফরাসি প্রেসিডেন্ট।’

সিরিয়া ও লিবিয়াসহ আঞ্চলিক ইস্যুতে দ্বিপক্ষীয় আলোচনা,  সন্ত্রাসবাদ ও শিক্ষা বিষয়ে আলোচনার প্রস্তাব দিয়েছেন ম্যাখোঁ। 

দুই দেশের প্রেসিডেন্টের মধ্যে চিঠি আদান-প্রদানের বিষয়টি নিশ্চিত করেছে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্স বিভাগ। অবশ্য এ বিষয়ে বিস্তারিত কোনো কিছু জানায়নি। 

সিরিয়া ও লিবিয়া ইস্যু ছাড়াও বিরোধপূর্ণ অঞ্চল নাগার্নো-কারাবাখ নিয়ে দ্বন্দ্বে জড়িয়ে পড়ে আঙ্কারা-প্যারিস। অবশেষে দু'দেশের প্রেসিডেন্টের ইতিবাচক চিঠি বিনিময়ে সংকট কিছুটা কাটবে মনে করছেন আন্তর্জাতিক রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।

ইসলাম ধর্ম সংকটে রয়েছে গত বছরে অক্টোবরে এমন বেপরোয়া মন্তব্য করেন ফরাসি প্রেসিডেন্ট। ‘ইসলামি বিচ্ছিন্নতাবাদ’-এর বিরুদ্ধে ব্যাপক অভিযান চালানোর ঘোষণা দিলে তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েন তিনি। এমন আচরণে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়ে ম্যাক্রোঁর মানসিক চিকিৎসা জরুরি বলে মন্তব্য করেন এরদোয়ান। এরপর থেকেই দু'দেশের সম্পর্কে টানাপোড়েন শুরু হয়।

সূত্র : আল জাজিরা

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা