kalerkantho

রবিবার । ২ অক্টোবর ২০২২ । ১৭ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

ভয়ংকর প্রোটিয়া পেস আক্রমণে ইংল্যান্ডের ইনিংস পরাজয়

অনলাইন ডেস্ক   

১৯ আগস্ট, ২০২২ ২১:৩১ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ভয়ংকর প্রোটিয়া পেস আক্রমণে ইংল্যান্ডের ইনিংস পরাজয়

ছবি : এএফপি

নিজেদের মাটিতে খেলা। তার ওপর একাদশে আছেন দুই পেস  মহাতারকা স্টুয়ার্ট ব্রড এবং জেমস অ্যান্ডারসন। আছেন ম্যাথু পটস এবং বেন স্টোকস। কিন্তু দক্ষিণ আফ্রিকার ভয়ংকর গতিময় পেস আক্রমণের সামনে নূয়ে পড়ল ইংল্যান্ড।

বিজ্ঞাপন

আনরিখ নর্টিয়ে, কাগিসো রাবাদা, লুঙ্গি এনগিডি, মার্কো জনসেনের গতির সঙ্গে কেশব মহারাজের ঘূর্ণিবলে প্রোটিয়ারা লর্ডস টেস্ট জিতে নিল ইনিংস ও ১২ রানে।

কাগিসো রাবাদার পাঁচ উইকেট আর নর্টিয়ে-জনসনের বোলিং তোপে প্রথম ইনিংসে মাত্র ১৬৫ রানে গুটিয়ে গিয়েছিল ইংল্যান্ড। অলি পোপের ৭৩ রান ছাড়া আর কেউ ত্রিশের ঘরেও যেতে পারেননি! দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২০ রান করেন অধিনায়ক বেন স্টোকস। জবাবে ব্যাটিংয়ে নেমে প্রথম ইনিংসে ৩২৬ রানে অল-আউট হয় দক্ষিণ আফ্রিকা। সফরকারীদেরও সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত রান ৭৩। করেছেন ওপেনার সারেল এরউইয়া। এছাড়া মার্কো জনসন ৪৮, অধিনায়ক ডিন এলগার ৪৭ এবং কেশব মহারাজ ৪১ রান করেন।

১৬১ রানে পিছিয়ে থেকে ইনিংস হারের শংকা নিয়ে দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করে ইংল্যান্ড। ২০ রানে উদ্বোধনী জুটি ভাঙার পর নিয়মিত বিরতিতে তারা উইকেট হারাতে থাকে। সর্বোচ্চ ৩৫ রান করে করে ওপেনার অ্যালেক্স লিস এবং পেসার স্টুয়ার্ট ব্রড! অধিনায়ক বেন স্টোকস এবারও ২০ রানের বেশি করতে পারেননি। বল হাতে প্রথম ইনিংসের মতো এবারও ৩ উইকেট নেন আনরিখ নর্টিয়ে। সেটাও আবার পাঁচ রানের ব্যবধানে। তার তিন উইকেটেই মূলত ধস নামে ইংলিশ ব্যাটিং লাইনআপে।

২০০৬ সালের পর ইংল্যান্ডের মাটিতে দুর্দান্ত গতির কোনো বিদেশি পেস আক্রমণ দেখা গেল। ইংল্যান্ডের দ্বিতীয় ইনিংস থামে ১৪৯ রানে। এতটাও তারা যেতে পারত না, যদি স্টোকস আর ব্রড ৪৫ বলে ৫৫ রানের জুটি না গড়তেন। কাগিসো রাবাদা, মার্কো জনসন আর কেশব মহারাজ নিয়েছেন ২টি করে উইকেট। দুই ইনিংস মিলিয়ে ৭ উইকেট নিয়ে ম্যাচসেরা হয়েছেন কাগিসো রাবাদা। এই জয়ে ৩ ম্যাচ সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেল দক্ষিণ আফ্রিকা।



সাতদিনের সেরা