kalerkantho

বুধবার । ১১ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১৩ রবিউস সানি     

বিয়ে করতে অস্বীকৃতির পর প্রেমিকার বাড়িতেই আত্মঘাতী প্রেমিক আশিক

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২১ মে, ২০১৯ ১৩:৩৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বিয়ে করতে অস্বীকৃতির পর প্রেমিকার বাড়িতেই আত্মঘাতী প্রেমিক আশিক

বিয়ে করতে অস্বীকৃতি জানানোয় আশিক এ এলাহী (২০) নামে এক যুবক আত্মহত্যা করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। আজ মঙ্গলবার ভোরে রাজধানীর ভাটারা থানার কুড়িল পূর্বপাড়া এলাকায় প্রেমিকার বাসায় এ ঘটনা ঘটে। পরে খবর পেয়ে শায়িত অবস্থায় তাঁকে উদ্ধার করে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। এদিকে নিহতের পরিবারের দাবি, বিষয়টি রহস্যজনক।

নিহত আশিকের গ্রামের বাড়ি ভোলার বোরহানউদ্দিন উপজেলার দালালবাজার গ্রামে।

আশিকের সহপাঠী নাজমুস সাকিব গণমাধ্যমকে বলেন, এলাহী আমেরিকান ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশের পঞ্চম সেমিস্টারের ছাত্র। সহপাঠী এক মেয়ের সঙ্গে তার গত এক-দেড় বছর ধরে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। মেয়েটি অন্য একজন মেয়ের সঙ্গে কুড়িল বিশ্বরোড এলাকায় বাসা ভাড়া নিয়ে থাকতেন। আশিকের প্রেমিকা আজ মঙ্গলবার ভোরে ফোনে নিহতের বড় ভাইকে বিষয়টি জানান। এরপর খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে যাই।

সে আরো বলে, আশিকের উচ্চতা ছয় ফুট, তিনি কোনোভাবেই জানালার সঙ্গে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করতে পারেন না। তাছাড়া বিষয়টিকে রহস্যজনক হিসেবে মনে করছেন তার পরিবারের সদস্যরা।

এ ব্যাপারে ভাটারা থানার ওসি আবু বকর সিদ্দিক জানান, দুইজনই একই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। ছেলেটি সকালে মেয়েটির বাসায় গিয়ে আজই বিয়ের কথা বলে। মেয়েটি বিয়ে করতে অস্বীকৃতি জানালে ছেলেটি আত্মহত্যার হুমকি দেয়। এ নিয়ে উভয়ের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয় এবং এক পর্যায়ে মেয়েটি বাসা থেকে বেরিয়ে যায়। কিছুক্ষণ পর মেয়েটি ঘরে ফিরে আশিককে কোমরের বেল্ট দিয়ে জানালার গ্রিলের সঙ্গে ফাঁস দিয়ে থাকতে দেখে।

তিনি বলেন, বিষয়টি জানাজানি হলে ওই বাসার মালিক পুলিশকে খবর দেয়। পরে ঘটনাস্থল থেকে আশিককে উদ্ধার করে কুর্মিটোলা হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে বলেও জানান ওসি আবু বকর।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা