kalerkantho

মঙ্গলবার । ৪ মাঘ ১৪২৮। ১৮ জানুয়ারি ২০২২। ১৪ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

২০১৯ সালের ১৭ নভেম্বর দুর্ঘটনায় পড়েছিল

দুই বছরে একই তারিখে, একইভাবে দুর্ঘটনার শিকার নভোএয়ারের বিমান

অনলাইন ডেস্ক   

১৮ নভেম্বর, ২০২১ ১৫:৪৮ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দুই বছরে একই তারিখে, একইভাবে দুর্ঘটনার শিকার নভোএয়ারের বিমান

রাজশাহীর পর এবার সৈয়দপুরে নভোএয়ারের বিমান একই কায়দায় দুর্ঘটনায় পড়ল। রবুধবার সন্ধ্যায় সৈয়দপুর বিমানবন্দরে অবতরণের সময় নভোএয়ারের একটি ফ্লাইটের (VQ-967) নোজ হুইল (সামনের চাকা) ফেটে গেছে। অল্পের জন্য বেঁচে যাওয়া যাত্রীরা সোশ্যাল মিডিয়ায় ভয়ংকর অভিজ্ঞতা শেয়ার করেছেন।

এই দুর্ঘটনার ফলে বিমানবন্দরে সব ধরনের ফ্লাইট উঠানামা বন্ধ ছিল। বুধবার নভোএয়ারের ফ্লাইটটি ঢাকা থেকে উড্ডয়ন করে সৈয়দপুর বিমানবন্দর রানওয়েতে সন্ধ্যা ৬টা ৫০ মিনিটে অবতরণকালে সামনের চাকা ফেটে যায়। এ অবস্থায় ফ্লাইটটি রানওয়েতে থেমে যায়। সৈয়দপুরগামী ৬৭ জন যাত্রী নিয়ে অবতরণ করছিল ফ্লাইটটি।

ওই বিমানে থাকা যাত্রীরা এ ঘটনায় সন্ত্রস্ত হয়ে পড়েন। ইমারজেন্সি এক্সিট দিয়ে বের হতে গিয়ে  ৯ যাত্রী আহত হন।

এদিকে দুই বছর আগে বিমান সংস্থাটির আরেকটি একই ধরনের দুর্ঘটনা 'কাকতালীয়' বিষয়টিকে আলোচ্য করে তুলেছে। কেননা ১৭ নভেম্বর ২০১৯ সালে রাজশাহী বিমানবন্দরে নভোএয়ারের একটি বিমান দুর্ঘটনায় পড়ে। ওই সময়ও বিমানেরে চাকা ফেটে যায়। বুধবারও ছিল ঠিক ১৭ নভেম্বর। এদিন সৈয়দপুরে দুর্ঘটনায় পড়ে বিমানটি, এটিরও চাকাই ফেটে যায়। তবে এটি ছিল সামনের চাকা। আর দুটো বিমানবন্দরই দেশের উত্তরাঞ্চলে। 

এদিকে সৈয়দপুরে নভোএয়ারের বিমান দুর্ঘটনার পরপরই বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইট অবতরণ না করে যাত্রীসহ ঢাকা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করেছে। অপরদিকে, রানওয়ে বন্ধ থাকায় ইউএস বাংলার একটি ফ্লাইট ঢাকা থেকে উড্ডয়ন করেনি।

বিমানে থাকা মোস্তাক আহমেদ রঞ্জু নামে এক যাত্রী বলেন,  আনুমানিক ৬টা ৫ মিনিটে ঢাকার হযরত শাহজালাল বিমানবন্দর থেকে সৈয়দপুরের উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করে। ৬টা ৫২ মিনিটে সৈয়দপুর বিমানবন্দরে অবতরণ করার সময় রানওয়ের ওপর বিমানটির সামনের চাকা হঠাৎ করে ফেটে যায়। আমি ইমারজেন্সি পয়েন্ট দিয়ে বের হই। পরে একে একে অন্য যাত্রীরাও বিভিন্নভাবে নেমে পড়েন। এতে অনেক যাত্রী হাঁটু ও কোমরে ব্যথা পান। আমি নিজেও কোমরে প্রচণ্ড ব্যথা পেয়েছি। পরে ফায়ার সার্ভিসের একটি দল ঘটনাস্থলে আসে এবং যাত্রীদের নিরাপদে নিয়ে যায়।

এ ব্যাপারে সৈয়দপুর বিমানবন্দরের ব্যবস্থাপক সুপলব ঘোষ জানান, ওই উড়োজাহাজের সামনের নোজ হুইল খোলার উপক্রম হলেও পাইলট নিরাপদে এটি অবতরণ করাতে পেরেছেন।



সাতদিনের সেরা